[x]
[x]
ঢাকা, রবিবার, ৫ ফাল্গুন ১৪২৫, ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৯
bangla news

জোটগত নয়, উপজেলা পরিষদ নির্বাচন হবে দলীয় প্রতীকে

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০১-১৫ ১:১১:০১ পিএম
সভায় বক্তব্য রাখছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। ছবি: বাংলানিউজ

সভায় বক্তব্য রাখছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। ছবি: বাংলানিউজ

ঢাকা: আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে জোটগত নয়, দলীয় প্রতীকেই ভোট হবে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। 

তিনি বলেছেন, আগামী উপজেলা নির্বাচন দলীয় প্রতীকে হবে। আমরা জোটগতভাবে উপজেলা পরিষদ নির্বাচন কখনও করিনি, এবারও করবো না।

মঙ্গলবার (১৫ জানুয়ারি) দুপুর ১২টার দিকে রাজধানীর ধানমন্ডির হোয়াইট হল কনভেনশন সেন্টারে আওয়ামী লীগ ঢাকা মহানগর উত্তর শাখার বর্ধিত সভায় কাদের এসব কথা বলেন। 

১৯ জানুয়ারি সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে অনুষ্ঠেয় আওয়ামী লীগের বিজয় সমাবেশ সফল করতে এ বর্ধিত সভার আয়োজন করা হয়েছে। 

সভার প্রধান অতিথি কাদের বলেন, দলীয় প্রতীকেই উপজেলা নির্বাচন হবে। সংশ্লিষ্ট উপজেলা ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি তাদের স্বাক্ষরসহ সম্ভাব্য তিনজন প্রার্থীর নাম কেন্দ্রে পাঠাবেন। সেখান থেকে উপজেলা নির্বাচন মনোনয়ন বোর্ড একজন প্রার্থীকে মনোনয়ন দেবেন। এছাড়া নেত্রীর জরিপ হয়েছে, সেই জরিপে যারা এগিয়ে এবং যোগ্য তাদের মনোনয়ন দেওয়া হবে।

তিনি বলেন, নির্বাচন কমিশন আগামী মাসে উপজেলা নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করবে। উপজেলা নির্বাচন স্থানীয় সরকার নির্বাচন। স্থানীয় সরকার নির্বাচন আমরা দলীয়ভাবে করি, এখানে জোটগতভাবে স্থানীয় সরকার নির্বাচন আমরা কখনো করিনি। এমনকি সিটি করপোরেশন নির্বাচনও আমরা দলীয়ভাবে দলীয় প্রতীকেই করেছি। এবার আমাদের দলের সভাপতি আমাদের নেত্রী সিদ্ধান্ত দিয়েছেন উপজেলা নির্বাচন দলীয়ভাবে নৌকা প্রতীকে হবে।

তিনি আরও বলেন, উপজেলা নির্বাচন আমাদের অভ্যন্তরীণ গণতন্ত্রকে প্রাধান্য দেবে। এবার যারা উপজেলায় মনোনয়ন চাইবেন তাদের প্রথমে স্থানীয়ভাবে তৃণমূলের স্বীকৃতি নিয়ে আসতে হবে। উপজেলায় বর্ধিত সভা করে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদকের উপস্থিতিতে তিন জনের নাম তারা ‘রিকগনাইজড’ করবে। দলের গঠনতন্ত্র অনুযায়ী তিন জনের মধ্যে থেকে কেন্দ্রীয় স্থানীয় সরকার মনোনয়ন বোর্ড একজনকে প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন দেবে। তাছাড়া নেত্রীর নিকট জরিপ রয়েছে, সেই জরিপ এবং তৃণমূলের সিদ্ধান্তকে প্রাধান্য দিয়ে প্রার্থী চূড়ান্ত করা হবে।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, ‘আমি কখনও সংলাপের কথা বলিনি। যার অডিও-ভিডিও রয়েছে। এরপরও কেন ধুম্রজাল সৃষ্টি করা হচ্ছে। এখানে সংলাপের কোনো বিষয় নেই। নির্বাচন নিয়ে সংলাপ হাস্যকর।

সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল, সংসদ সদস্য ও ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাদেক খান, সংসদ সদস্য আসলামুল হক, ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) ভারপ্রাপ্ত মেয়র জামাল মোস্তফা প্রমুখ।

বাংলাদেশ সময়: ১৩১০ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৫, ২০১৯
এসএম/আরআইএস/

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   রাজনীতি আওয়ামী লীগ
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache