ঢাকা, শনিবার, ১ কার্তিক ১৪২৮, ১৬ অক্টোবর ২০২১, ০৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

রাজনীতি

এরশাদের সুনজরে পালে হাওয়া শেরিফার

আসাদ জামান, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৭১১ ঘণ্টা, আগস্ট ৩০, ২০১০
এরশাদের সুনজরে পালে হাওয়া শেরিফার

ঢাকা: জাতীয় পার্টির রাজনীতিতে সক্রিয় হতে না হতেই পালে হাওয়া লেগেছে বেসরকারি বিমান ও পর্যটন মন্ত্রীর স্ত্রী শেরিফা কাদেরের।

গত জুলাইয়ের মাঝামাঝিতে জাতীয় পার্টিতে সক্রিয় হন তিনি।

শুরুতেই তাকে দলের ভাইস-চেয়ারম্যান করেন চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ। আরও বড় পদে শিগগিরই তাকে দেখা যাবে বলে জল্পনা চলছে দলীয় পরিম-লে।

স্ত্রী রওশন অসুস্থ থাকায় এরশাদ যে বর্তমানে তার ভাইয়ের স্ত্রী শেরিফাকে বেশ গুরুত্ব দিয়ে সঙ্গে রাখছেন তাও বেশ বোঝা যাচ্ছে তার সাম্প্রতিক নানা তৎপরতায়। দলীয় কর্মসূচিগুলোতে এতোদিন দর্শক সারিতে বসে থাকলেও ইদানিং এরশাদের পাশেই বসছেন শেরিফা। ক্ষেত্রবিশেষে দলীয় কর্মকা-ে জিএম কাদেরের চেয়েও বেশি গুরুত্ব পাচ্ছেন তিনি।

গত ২৫ আগস্ট গুলশানের এক অভিজাত রেস্তরাঁয় ঢাকা মহানগর (উত্তর) জাতীয় পার্টি আয়োজিত ইফতার মাহফিলে এরশাদের পাশে শেরিফার বসার জায়গা করে দিতে এক প্রেসিডিয়াম সদস্যকে তো উঠে যেতেই দেখা গেলো।

দলীয় সূত্র বলছে, ওই চিত্র এখন জাতীয় পার্টির যে কোনো কর্মসূচিতে নিয়মিত দেখা যাচ্ছে।

শেরিফা কাদেরের এই অকস্মাৎ উত্থানে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে দলে। আরও বড় পদে তাকে বসানো উচিত বলে মনে করছেন কেউ কেউ। কেউবা শরীফা কাদেরকে গুরুত্ব দেওয়ার বিষয়টিকে বাড়াবাড়িই মনে করছেন। তবে এরশাদের রোষাণলে পড়ার ভয়ে এ প্রসঙ্গে মুখ খুলছেন না এমন নেতার সংখ্যা নেহায়েত কম নয়।

দলীয় সূত্র জানায়, জাতীয় পার্টির জন্মলগ্ন থেকেই এরশাদের স্ত্রী রওশন দলের গুরুত্বপূর্ণ পদ ও দায়িত্ব পালন করে আসছেন। কিন্তু সম্প্রতি দলীয় কর্মসূচিতে আর দেখাই যাচ্ছে না তাকে।

দলীয় সূত্রের দাবি, তিনি (রওশন) অসুস্থ। তবে পারিবারিক সূত্র বলছে, সাবেক ফার্স্ট লেডি রওশদ অসুস্থ বটে। কিন্তু দলীয় কর্মসূচিতে লাগাতার অনুপস্থিত থাকার মতো অসুস্থতা তার নেই। এরশাদের  সঙ্গে সম্পর্কের দূরত্ব বাড়ার কারণেই তিনি দলীয় কর্মসূচিতে অংশ নেওয়া থেকে নিজেকে গুটিয়ে রেখেছেন।

শেরিফা কাদেরের উত্থান রওশদ এরশাদের রাজনৈতিক ক্যারিয়ারের জন্য হুমকি বলেও মনে করছেন তারা।

দলের ভাইস চেয়ারম্যান আনোয়ারা বেগম বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম.বিডিকে বলেন, ‘রাজনীতি করার আকাক্সা নিয়েই তিনি (শেরিফা) দলে সক্রিয় হয়েছেন বলে মনে করি। তবে তাকে যেভাবে মাথায় তুলে রাখা হচ্ছে তা বাড়াবাড়ি বটে!’

দলের ভাইস চেয়ারম্যান সাংসদ মাহজাবিন মোরশেদা বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম.বিডিকে বলেন, ‘স্যার (এরশাদ) তাকে (শেরিফা) যোগ্য মনে করেছেন বলেই দলের গুরুত্বপূর্ণ পদে বসিয়েছেন। এ ব্যাপারে আমাদের কিছু বলার নেই। ’

জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য অধ্যাপিকা মাসুদা এম রশিদ চৌধুরী বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম.বিডিকে বলেন, ‘রাজনীতিতে যেই আসুক তাকে মেধা, যোগ্যতা ও দলীয় কাজে সক্রিয়া ভূমিকা রেখেই টিকে থাকতে হবে। অন্য কোনোভাবে বেশিদূর এগোনো যাবে বলে মনে হয় না। ’

প্রসঙ্গত, এরশাদ তার ছোট ভাই জিএম কাদেরকে দলের দায়িত্ব দিয়ে অবসরে যাওয়ার সিদ্ধান্ত মোটামুটি পাকা করে ফেলেছেন বলে জানা গেছে। সম্প্রতি ডিপোøমা ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে জাতীয় পার্টির যৌথ মতবিনিময় সভায় জিএম কাদেরের নেতৃত্বে দলকে শক্তিশালী করার নির্দেশ দিলে বিষয়টি আরও স্পষ্ট হয়ে যায়।

দলীয় সূত্রমতে, এরশাদ নিজের অবর্তমানে ছোট ভাই জিএম কাদেরকে সার্বক্ষণিক সহযোগিতার জন্যই শেরিফা কাদেরকে দলের গুরুত্বপূর্ণ পদে রাখতে চাইছেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৭০০ ঘণ্টা, আগস্ট ২৯, ২০১০

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa