ঢাকা, শুক্রবার, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ২৪ মে ২০১৯
bangla news

না’গঞ্জে বিএনপির ৭৭ নেতাকর্মী আটক 

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-১১-০৬ ৩:৩৫:৩২ পিএম
আটক স্বেচ্ছাসেবক দলের নেতাকর্মীরা

আটক স্বেচ্ছাসেবক দলের নেতাকর্মীরা

নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জ জেলার ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ লিংক রোড ও ফতুল্লার মুন্সিখোলা চেকপোস্ট এলাকা থেকে ৭৭ জনেক আটক করেছ পুলিশ। 

পুলিশের দাবি, আটকরা সবাই বিএনিপর নেতাকর্মী। তারা ঢাকায় সমাবেশে যোগ দিতে যাচ্ছিলেন। তাদের বিরুদ্ধে নাশকতা সৃষ্টি পরিকল্পনার অভিযোগ রয়েছে।

মঙ্গলবার (৬ নভেম্বর) দুপুরে তাদের আটক করা হয়। এ সময় একটি বাসও জব্দ করা হয়

সমাবেশে যোগ দিতে স্বেচ্ছাসেবক দলের ৪৮ জন নেতাকর্মীসহ একটি বোরাক পরিবহণের বাস আটক করেছে পুলিশ। সেখান থেকে তল্লাশি করে ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ লিংক রোড থেকে বাসটি আটক করে জেলা পুলিশ লাইনসে নিয়ে যাওয়া হয়।

আটকরা হলেন- স্বেচ্ছাসেবক দল নেতা রাব্বানী, হুমায়ূন কবির, রনি, মাহফুজ মাতবর, রাব্বি, রাজু, ইমরান হোসেন, আসাদুল ইসলাম, আবু হানিফ, বিল্লাল হোসেন, আনিছ আনসার, শরীফ, আলমগীর, মো. হোসেন মিয়া, রুহুল আমিন, হাসান, বসার, মাফুজ, চঞ্চল, হৃদয়, রাসেল, বাবু, রিয়াজ, কাউসার মীর, আজাদ, সোহাগ, আনোয়ার, রনি, মঞ্জুর, হাবিব, রানা, লিটন, রাসেল মাহমুদ, হযরত আলী, রুবেল, আনোয়ার, রনি, কামরুল ইসলাম, আবীর, ইমদাদুল হক, সহীব মিয়া এবং বাসের চালক ও সহকারীসহ (হেলপার) ছয়জন।

ফতুল্লা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মঞ্জুর কাদের বাংলানিউজকে জানান, সন্দেহজনকভাবে বাসসহ ৪৮ জনকে আটক করা হয়েছে। তাদেরকে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে, পরবর্তীতে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি আনোয়ার সাদাত সায়েম বাংলানিউজকে বলেন, সমাবেশে যোগ দিতে শান্তিপূর্ণভাবে নেতাকর্মীরা ঢাকায় আসার পথে কোনো কারণ ছাড়াই তাদেরকে বাসসহ ধরে নিয়ে যায় পুলিশ। দ্রুত আটক নেতাকর্মীদের মুক্তির দাবি করেন তিনি।

অপরদিকে সদর উপজেলার ফতুল্লার মুন্সিখোলা এলাকা থেকে বিএনপির ২৯ জনকে আটকের পুলিশ।

ফতুল্লা মডেল থানার পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) ইলিয়াস আলী জানান, বেলা সাড়ে ১১টার দিকে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের ঢাকায় সমাবেশে যাওয়ার পথে ফতুল্লার মুন্সিখোলা চেকপোস্ট এলাকায় দিঘিরপাড় নামক একটি পরিবহনের যাত্রী দেখে সন্দেহ হলে গাড়িটি গতিরোধ করে আটক করা হয়। পরে বাসে থাকা বিএনপির ২৯ নেতাকর্মী আটক করেছে পুলিশ।

আটকরা হলেন- বাদল মিয়া (৪৩), আবু তাহের (৪২), জাহাঙ্গীর হোসেন (২৪), আশরাফুল ইসলাম, শামীম, সালামত গাজী, সানাউল্লাহ (৩২), রবিউল আউয়াল (২৬), অ্যাডভোকেট শিবলী আহম্মেদ (৪৬), জসিম উদ্দিন (৩৫), হাবিব (২২), শানু মিয়া (৫০), সাহেব আলী (৩৫), মিজানুর রহমান, সুলতান আহম্মেদ, উজ্জল, মামুন আহম্মেদ, সাগর, মিজানুর রহমান, নিজাম উদ্দিন, ওসমান গনি, বজলুর রহমান, রিপন শেখ, ওয়াজ করুনী, কামাল হোসেন, আমিনুল ইসলাম, হাসানুল ইসলাম বাপ্পী, ফয়সাল, মিন্টু। আটককৃতদের সবার বাড়ি মুন্সিগঞ্জ সদরে।

আটকের পর পুলিশের দাবি, ঢাকায় জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের সমাবেশে যাওয়ার পথে তাদের আটক করা হয়েছে। আটকরা সবাই বিএনপি ও এর সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মী।

এদিকে আটকদের দাবি, তারা মুন্সিগঞ্জ থেকে ঢাকার খিলগাঁও বিয়ের বরযাত্রীর অনুষ্ঠানে যাওয়ার সময় তাদের বাসসহ আটক করা হয়।

বাংলাদেশ সময়: ১৫৩৫ ঘণ্টা, নভেম্বর ০৬, ২০১৮
জিপি/এএটি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   বিএনপি নারায়ণগঞ্জ
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2018-11-06 15:35:32