[x]
[x]
ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৩ কার্তিক ১৪২৫, ১৮ অক্টোবর ২০১৮
bangla news

আগামী নির্বাচনে জনগণ বিএনপিকে চূড়ান্তভাবে পরাজিত করবে

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-১০-১২ ২:৩০:৪২ পিএম
আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম

আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম

ঢাকা: আগামী জাতীয় নির্বাচনে জনগণ বিএনপিকে চূড়ান্তভাবে পরাজিত করবে বলে মনে করে আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন ১৪ দল। আসন্ন নির্বাচনে ‘সন্ত্রাস লালনকারী’ দল বিএনপি বিলীন হয়ে যাবে বলেও মন্তব্য করেন ১৪ দল নেতারা।

শুক্রবার (১২ অক্টোবর) ১৪ দলের সভা শেষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে জোটের নেতারা এ মন্তব্য করেন। বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত এ সভায় সভাপতিত্ব করেন ১৪ দলের মুখপাত্র আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম। সভায় ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার রায়কে (১০ অক্টোবর দেওয়া) স্বাগত জানিয়ে আদালতকে ধন্যবাদ জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে মোহাম্মদ নাসিম বলেন, আমরা ১৪ দল আদালতকে ধন্যবাদ জানাই। আদালত যে পর্যবেক্ষণ দিয়েছে তাতে উঠে এসেছে জাতিকে নেতৃত্বশূন্য করার জন্য এই গ্রেনেড হামলা চালানো হয়েছিলো। আদালতের এ পর্যবেক্ষণের সঙ্গে পুরো জাতি একমত পোষণ করে। বিএনপি একটি সন্ত্রাস লালনকারী রাজনৈতিক দল এটা আজ স্বীকৃত, প্রমাণ হয়েছে। আগামী নির্বাচনে এই সন্ত্রাস লালনকারী দলের অস্থিত্ব বিলীন হয়ে যাবে।

নাসিম আরও বলেন, এই গ্রেনেড হামলার পর বিএনপি আরও তিন বছর ক্ষমতায় ছিলো। তারা এই ঘটনার বিচার করেনি, তদন্ত করেনি। এদেশের জনগণ চেয়েছিলো এই বর্বর হত্যাকাণ্ডের বিচার হোক। সেই বিচার হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সাহসিকতার সঙ্গে এই বিচারের ব্যবস্থা করেছেন, সেজন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকেও ১৪ দলের পক্ষ থেকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি। 

ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি সমাজকল্যাণমন্ত্রী রাশেদ খান মেনন বলেন, বিএনপি একটি সন্ত্রাস নির্ভর, জঙ্গি সংশ্লিষ্ট দল; তা প্রমাণ হয়েছে। এই ঘটনাকে সংগঠিত করতে গিয়ে বিএনপি রাষ্ট্রযন্ত্রকে ব্যবহার করেছে, এটি একটি অশনি সংকেত। রাজনীতিতে এই ধারাকে পরাজিত করতে না পারলে রাজনীতি নিষ্কণ্টক হবে না। এই বিএনপির সঙ্গে কারো ঐক্য হলে সেটা হবে জঙ্গি ও দুর্নীতিবাজদের ঐক্য। আগামী নির্বাচনে জনগণ এই বিএনপিকে চূড়ান্তভাবে পরাজিত করবে। 

জাসদের সভাপতি তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু বলেন, এই রায় প্রত্যাখ্যান করার মধ্য দিয়ে বিএনপি প্রমাণ করেছে তারা দল হিসেবে বদলায়নি। এই রায়ের মধ্য দিয়ে সত্য বেরিয়ে এসেছে, বিএনপির স্বরূপ উন্মোচন হয়েছে। জামায়াত যুদ্ধাপরাধীদের দল আর বিএনপি খুনিদের আশ্রয়-প্রশ্রয়কারী দল। সব রাজনৈতিক দলকে এই বিএনপির সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করতে হবে। যারা জাতীয় ঐক্যের নামে বিএনপির সঙ্গে জোট করছে তারা জাতির সঙ্গে বেঈমানী করছে। 

১৪ দলের সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন- বাংলাদেশ জাসদের সভাপতি শরিফ নুরুল আম্বিয়া, সাম্যবাদী দলের সাধারণ সম্পাদক দিলীপ বড়ুয়া, কমিউনিস্ট কেন্দ্রের সভাপতি ডা. ওয়াজেদুল ইসলাম খান, আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ চৌধুরীসহ ১৪ দলের কেন্দ্রীয় নেতারা।  

বাংলাদেশ সময়: ১৪২৭ ঘণ্টা, অক্টোবর ১২, ২০১৮ 
এসকে/জেডএস

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   আওয়ামী লীগ
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache