[x]
[x]
ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৫ আশ্বিন ১৪২৫, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮
bangla news

খালেদার চিকিৎসকদের মেডিকেল বোর্ডে অন্তর্ভুক্তির দাবি

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-০৯-১৪ ৭:৫৮:২৭ পিএম
বিএনপির সংবাদ সম্মেলন

বিএনপির সংবাদ সম্মেলন

ঢাকা: খালেদা জিয়ার ব্যক্তিগত বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের মেডিকেল বোর্ডে রাখা হয়নি জানিয়ে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, এটা বিদ্বেষপ্রসূত মনোভাবেরই বহিঃপ্রকাশ। খালেদার ব্যক্তিগত চিকিৎসকদের মেডিকেল বোর্ডে অন্তর্ভুক্তির দাবি জানান তিনি।

শুক্রবার (১৪ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যা ৭টায় নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে একথা বলেন রিজভী।

তিনি বলেন, কারা কর্তৃপক্ষের মৌখিক বার্তা অনুযায়ী মেডিকেল বোর্ডে অন্তর্ভুক্ত করার জন্য ব্যক্তিগত ৫ জন চিকিৎসকের নাম দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু ব্যক্তিগত চিকিৎসকদের বোর্ডে অন্তর্ভুক্ত না করায় বিএনপি শুধু উদ্বিগ্নই নয়, চিকিৎসা না দিয়ে তাকে গুরুতর শারীরিক ক্ষতির দিকে ঠেলে দেয়ার জন্য সরকারের অশুভ পরিকল্পনারই অংশ বলে দল মনে করে।

রুহুল কবির রিজভী বলেন, যেসব চিকিৎসকের নাম বিএনপি সুপারিশ করেছিল তারা চিকিৎসা শাস্ত্রে স্ব স্ব ক্ষেত্রে প্রথিতযশা এবং চিকিৎসাঙ্গনের অভিজ্ঞ চিকিৎসক। যারা খালেদা জিয়ার চিকিৎসক হিসেবে তাকে চিকিৎসা সেবা দিয়ে আসছেন।

তিনি আরো বলেন, সরকার কর্তৃক গঠিত মেডিকেল বোর্ডের সদস্য ডা. আবু জাফর চৌধুরী নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এবং নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের এমপি প্রার্থী। তিনি দলীয় প্রার্থী হিসেবে সংশ্লিষ্ট এলাকায় নির্বাচনী প্রচারণা চালাচ্ছেন। অপর সদস্য অধ্যাপক ডা. হারিসুল হক আওয়ামী লীগ সমর্থিত চিকিৎসক সংগঠন স্বাচিপ (স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদ) বিএসএমএমইউ-এর ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক। এছাড়া অধ্যাপক ডা. তারেক রেজা আলী আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য বিষয়ক উপ-কমিটির সদস্য।

সরকারের গঠিত বোর্ডে মনোনীত চিকিৎসকদের বাছাইয়ের ক্ষেত্রে পেশাগত দক্ষতার চেয়ে সরকার দলীয় আনুগত্যকে গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। অতএব আওয়ামী লীগের প্রতি অনুগত চিকিৎসকরা অন্তর্ভুক্তকৃত মেডিকেল বোর্ডের মাধ্যমে যথাযথ চিকিৎসা এবং তার শারীরিক পর্যবেক্ষণ সঠিকভাবে প্রতিফলিত হবে না। কারণ সরকার কর্তৃক গঠিত মেডিকেল বোর্ড সরকারের নির্দেশ মতোই কাজ করবে, বলেন রুহুল কবির রিজভী।

অভিযোগ করে তিনি বলেন, এর আগেও খালেদা জিয়াকে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য যখন পিজি হাসপাতালে নেওয়া হয়েছিল তখন তার ব্যক্তিগত চিকিৎসকদের ডাকা হলেও স্বাস্থ্য পরীক্ষার সময় তাদের রাখা হয়নি। এমনকি খালেদা জিয়ার সঙ্গে তাদের দেখা করতেও দেওয়া হয়নি।

সরকার খালেদা জিয়াকে সুচিকিৎসা না দিয়ে তিলে তিলে নি:শেষ করতে চায়। এটি সরকারের অশুভ পরিকল্পনারই ইঙ্গিতবাহী। আমি আবারও দলের পক্ষ থেকে দৃঢ়কণ্ঠে বলতে চাই- খালেদা জিয়ার ব্যক্তিগত চিকিৎসকদের মেডিকেল বোর্ডে অন্তর্ভুক্ত করতে হবে। কর্তৃপক্ষের অবহেলায় যদি তার কোনো ক্ষতি হয়, সেজন্য সম্পূর্ণ সরকারের ওপর বর্তাবে, যোগ করেন রুহুল কবির রিজভী।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ডা. এজেড এম জাহিদ হোসেন, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ডা. ফরহাদ হালিম ডোনার প্রমুখ।

বাংলাদেশ সময়: ১৯৫৪ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ১৪, ২০১৮
এমএইচ/এমজেএফ

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa