ঢাকা, সোমবার, ২১ ফাল্গুন ১৪৩০, ০৪ মার্চ ২০২৪, ২২ শাবান ১৪৪৫

রাজনীতি

কেন্দ্রের সিদ্ধান্তে মিথ্যাচার করছে বিএনপি: লিটন

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫২৫ ঘণ্টা, জুলাই ১৬, ২০১৮
কেন্দ্রের সিদ্ধান্তে মিথ্যাচার করছে বিএনপি: লিটন বনপুকুর এলাকায় গণসংযোগে খায়রুজ্জামান লিটন। ছবি: বাংলানিউজ

রাজশাহী: মহাজোট সমর্থিত মেয়র প্রার্থী মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন বলেছেন, 'বিএনপি যে অভিযোগগুলো করেছে, তা নিয়ে আমরা চিন্তিত নই। কারণ মিথ্যাচার-অপপ্রচার করা বিএনপির মজ্জাগত অভ্যাস। কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্তে তারা নির্বাচনের শুরু থেকেই মিথ্যাচার করছে'।

সোমবার (১৬ জুলাই) বিকেলে মহানগরীতে গণসংযোগের সময় এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।    

এ সময় খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, 'আমরা যে অভিযোগগুলো দিচ্ছি, সেগুলো একদম সত্য।

আমরা এখনও আশা করি তাদের (বিএনপির) শুভ বুদ্ধির উদয় হবে। নির্বাচনের পরিবেশ বজায় রেখে নির্বাচন করবে। জনগণ তাদের মতামত দেবে। সেই মতামত যেটাই হোক না কেন তাদের মেনে নিতে হবে। আমরাও জনগণের মতমত মেনে নেওয়ার জন্য প্রস্তুত আছি। আমরা নির্বাচনের পরিবেশ সুষ্ঠু রাখবো। তারা কী করবে জানি না। কারণ তাদের সঙ্গে তো জামায়াত-শিবির আছে'।

এদিকে সোমবার পৌনে ১১টার দিকে মহানগরীর বনপুকুর এলাকা থেকে দিনের গণসংযোগ শুরু করেন আওয়ামী লীগ মনোনীত মহাজোট সমর্থিত মেয়র প্রার্থী এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন। এরপর কাদিরগঞ্জ, কাদিগরঞ্জ গ্রেটার রোড এলাকা, দড়িখরবনা ও নিউ মার্কেট এলাকায় দুপুর পর্যন্ত গণসংযোগ করেন খায়রুজ্জামান লিটন।

বনপুকুর এলাকায় গণসংযোগের শুরুতে সমবেত জনতার উদ্দেশে খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, 'সিটি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে মানুষের মধ্যে ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনার সৃষ্টি হয়েছে। আশা করছি নির্বাচনের শেষ দিন পর্যন্ত এমন পরিবেশ বজায় থাকবে'।

এ সময় বিএনপির সদ্য বিদায়ী মেয়র মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুলের সমালোচনা করে খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, 'বিএনপির এই মেয়রের কারণে রাজশাহী অনেক পিছিয়ে গেছে। গত ৫ বছরের কোনো উন্নয়নই হয়নি। যারা কাজ করতে পারেননি, তাদের নতুন করে দেখার সুযোগ নাই'।

খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, '২০১২ সালে প্রধানমন্ত্রীর কাছে দাবি করে রাজশাহীতে গ্যাস এনেছি। অনেক বাসাবাড়িতে গ্যাস সংযোগ দেওয়া হয়েছে। আগামীতে মেয়র নির্বাচন হলে মা-বোনদের রান্নার সুবিধার জন্যে ঘরে ঘরে গ্যাস সংযোগ দেওয়া হবে। গ্যাস থেকে বিদ্যুৎ তৈরি করে তা দিয়ে শিল্পকারখানা চালানো হবে। প্রায় ১শ' শিল্পকারখানা তৈরি করে এক লাখ ছেলে-মেয়ের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করা হবে। আমি পিছিয়ে পড়া রাজশাহীতে উন্নত ও সমৃদ্ধ মহানগরীর হিসেবে গড়ে তুলতে চাই। এজন্য সবার সহযোগিতা প্রয়োজন। তাই আমাকে কাজ করার সুযোগ দিন। স্বাধীনতা ও উন্নয়নের প্রতীক নৌকা মার্কায় ভোট দিন'।

পরে বিকেল ৪টার দিকে মেয়র প্রার্থী খায়রুজামান লিটন, বিসিক শিল্প এলাকায় রাজশাহী সিল্ক মিলস লিমিটেড আয়োজিত একটি নির্বাচনী সভায় অংশ নেন। এছাড়া বিকেল ৫টার দিকে মহানগরীর শালবাগান, পানি উন্নয়ন বোর্ড ও দড়িখরবনা এলাকায় গণসংযোগ করেন। সন্ধ্যায় নিউ মার্কেট এলাকায়ও গণসংযোগ করেন তিনি।

বাংলাদেশ সময়: ২১২১ ঘণ্টা, জুলাই ১৬, ২০১৮
এসএস/এএটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।