ঢাকা, রবিবার, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ১৯ মে ২০১৯
bangla news

কোকোর টাকা পাচার মামলার শুনানি ১৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত মুলতবি

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১০-০৮-২৯ ৩:১৯:০৯ পিএম

বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার ছোট ছেলে আরাফাত রহমান কোকোর বিদেশে পাচার করা টাকা দেশে ফিরিয়ে আনতে বাংলাদেশ ব্যাংকের আবেদনের শুনানি ১৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত মুলতবি করা হয়েছে।

ঢাকা: বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার ছোট ছেলে আরাফাত রহমান কোকোর বিদেশে পাচার করা টাকা দেশে ফিরিয়ে আনতে বাংলাদেশ ব্যাংকের আবেদনের শুনানি ১৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত মুলতবি করা হয়েছে।

ঢাকার তিন নম্বর বিশেষ জজ আদালতের বিচারক মোজাম্মেল হোসেন সোমবার শুনানির জন্য এ তারিখ ধার্য করেন।
 
মামলার অপর আসামি সাবেক নৌ পরিবহন মন্ত্রী কর্নেল (অব.) আকবর হোসেনের ছেলে ইসমাইল হোসেন সায়মন পলাতক আছেন।

শুনানি মুলতবী চেয়ে দুর্নীতি দমন কমিশনের বিশেষ সরকারী কৌঁশুলি মোশারফ হোসেন কাজলের করা আবেদনে জানা যায়, মামলাটি এটর্নি জেনারেল শুনানি করবেন। তিনি উচ্চ আদালতে ব্যস্ত থাকায় সোমবার শুনানিতে উপস্থিত হতে পারেননি।

দুর্নীতি দমন কমিশনের বিশেষ সরকারী কৌঁশুলি মোশারফ হোসেন কাজল বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম.বিডিকে জানান, বাংলাদেশ ব্যাংক কোকোর সিঙ্গাপুরে পাচার করা ৬ কোটি ২৪ লাখ ৮৯ হাজার ৭৮ টাকা রাষ্ট্রের অনুকুলে বাজেয়াপ্ত করার জন্য গত ১২ জুলাই আবেদন করে।
 
গত বছরের ১৭ মার্চ রাজধানীর কাফরুল থানায় মামলাটি করে দুদক। মামলাটি তদন্ত করে গত ১২ নভেম্বর তদন্তকারী কর্মকর্তা আরাফাত রহমান কোকো ও সায়মনকে অভিযুক্ত করে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন।
 
মামলার অভিযোগে বলা হয়, আরাফাত রহমান কোকো অপর আসামি সায়মনের সহায়তায় ২৮ লাখ ৮৪ হাজার ৬০৩ সিঙ্গাপুরি ডলার এবং ৯ লাখ ৩২ হাজার ৬৭২ মার্কিন ডলার বিদেশে পাচার করেছেন।
 
আসামিপে মামলা পরিচালনা করেন ঢাকা বারের সভাপতি অ্যাডভোকেট সানাউল্লাহ মিয়া, জয়নুল আবেদিন মেজবাহ, মহিউদ্দিন আহমেদ প্রমুখ।

বাংলাদেশ সময়: ১২৪০ ঘণ্টা, আগস্ট ৩০, ২০১০

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14