ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৪ আশ্বিন ১৪২৭, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১০ সফর ১৪৪২

রাজনীতি

মেসি পেনাল্টি মিস করলেও শেখ হাসিনা করবেন না

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৪৩৪ ঘণ্টা, জুন ২৭, ২০১৮
মেসি পেনাল্টি মিস করলেও শেখ হাসিনা করবেন না সিরডাপ মিলনায়তনে বাংলাদেশ হেরিটেজ ফাউন্ডেশন আয়োজিত সেমিনার/ছবি: বাদল

ঢাকা: বিশ্বকাপ জ্বরে কাঁপছে বাংলাদেশ। সেই তালে পিছিয়ে নেই রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বরা। আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, বিশ্বকাপে বা ফুটবলে মেসি পেনাল্টি মিস করতে পারে। কিন্তু আগাম নির্বাচনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গোল দিতে পেনাল্টি মিস করবেন না। কেননা রাজনীতিও একটি কৌশল।

বুধবার (২৭ জুন) রাজধানীর সিরডাপ মিলনায়তনে বাংলাদেশ হেরিটেজ ফাউন্ডেশন আয়োজিত ‘নির্বাচন ও লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড’ শীর্ষক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।
 
এবারের বিশ্বকাপে মন্ত্রীর একমাত্র পছন্দের ফুটবল দল আর্জেন্টিনা উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, আমি আর্জেন্টিনার সমর্থক।

এটা এর আগে কখনও বলিনি, আজ বলছি। গতকালকের খেলায় মেসি গোল করে বেঁচে গিয়েছে। নাহলে সে তার সমর্থকদের কাছে ‘জবাই’ হয়ে যেত। ম্যারাডোনাকে দেখলাম সে গ্যালারিতে বসে দুঃচিন্তায় একবার ঘুমায় আর একবার জাগে। তবে মেসি খুব ভালো গোল দিয়েছে।  
 
ফুটবলের উত্তেজনার সঙ্গে বাংলাদেশের আসন্ন জাতীয় নির্বাচনের উত্তেজনাকে তুলনা করে তিনি বলেন, ফুটবল বিশ্বকাপ শেষ হলে এদেশে শুরু হবে জাতীয় নির্বাচনের ভোটের উত্তেজনা। খেলা এদেশ জোড়া মাঠেও হবে। সেই খেলাকে জমজমাট করতে বিএনপিকে অনুরোধ জানাবো নির্বাচনে অংশগ্রহণ করতে। রাজনীতিতে একটি দল নির্বাচনে অংশগ্রহণ না জরলে দুর্বল হয়ে পড়ে। বিএনপিও তাই দুর্বল হয়ে পড়েছে।
 
গাজীপুর সিটি করপোরেশনের নির্বাচন সুষ্ঠু হয়েছে উল্লেখ করে তিনি আরও বলেন, গাজীপুরে কিছু বিচ্ছিন্ন ঘটনা ঘটেছে। সে কারণে কয়েকটা কেন্দ্রে ভোট স্থগিত করা হয়েছে। এর আগে সব প্রার্থীরা সমানভাবে প্রচারণা চালাতে পেরেছে। ভোটাররা শান্তিমত ভোট দিতে পেরেছে। তাহলে প্রমাণিত আগামী জাতীয় নির্বাচনও সুষ্ঠুভাবে অনুষ্ঠিত হবে। আমি বিএনপিকে বলবো, আপনাদের এজেন্টদের শক্ত করেন। তারা কোনো কথাই বলতে পারে না। তাদের অধিকার প্রতিষ্ঠা করতে পারে না। এর আগে একবার আমাদের আন্দোলনের তোড়ে আপনারা এক মাসের বেশি ক্ষমতায় থাকতে পারেন নি। কিন্তু আপনারা তো কিছুই করতে পারলেন না। আবার আপনাদের নেত্রীকে (খালেদা জিয়া) প্রধানমন্ত্রী ডেকেছিলেন চা খেতে খেতে আলোচনার জন্য। তিনি তাকেও অপমান করেছেন। প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু কন্যা, তিনি অনেক কিছু সহ্য করতে পারেন। তাই কিছু বলেন নি।
 
প্রতিষ্ঠানটির প্রতিষ্ঠাকালীন চেয়ারম্যান ওয়ালিউর রহমানের সভাপতিত্বে সেমিনারে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য জিয়াউদ্দিন বাবলু, সংসদ সদস্য শিরিন আক্তার, বাংলাদেশ ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক ফজলে হোসেন বাদশা, জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য কাজী ফিরোজ রশিদ, তৃণমূল বিএনপি’র চেয়ারম্যান নাজমূল হুদাসহ প্রমুখ।
 
বাংলাদেশ সময়: ২০৩০ ঘণ্টা, জুন ২৭, ২০১৮
এমএএম/এসএইচ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa