ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ২৬ নভেম্বর ২০২০, ০৯ রবিউস সানি ১৪৪২

রাজনীতি

দিমেক এখন এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৪১৬ ঘণ্টা, এপ্রিল ১০, ২০১৭
দিমেক এখন এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল দিমেক এখন এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল

ঢাকা: দিনাজপুর মেডিকেল কলেজ (দিমেক) ও হাসপাতাল এখন ‘এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল’ নামে পরিচিত হবে।

সোমবার (১০ এপ্রিল) স্বাস্থ্য, শিক্ষা ও পরিবার কল্যাণ বিভাগের উপ-সচিব খান মো. নুরুল আমিন স্বাক্ষরিত এক প্রজ্ঞাপনে নতুন নামকরণের কথা জানানো হয়।

১৯৯৬ সালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২৪ একর জমির ৫০০ শয্যাবিশিষ্ট দিনাজপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন।

২০০৬ সালে হাসপাতাল ভবন নির্মাণসহ আধুনিক চিকিত্সা সরঞ্জাম স্থাপন করা হয়।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঘনিষ্ঠ সহযোগী এম আব্দুর রহিম ১৯৯১ সালে দিনাজপুর সদর আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। তিনি ছিলেন সংবিধান প্রনয়ন কমিটির সদস্য, মহান মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাবেক কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি।

মহান মুক্তিযুদ্ধে বৃহত্তর দিনাজপুর অঞ্চলের মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক ছিলেন এম আব্দুর রহিম।   ১৯৭১ সালের ১৭ এপ্রিল মুজিবনগর সরকার গঠন করে যুদ্ধ পরিচালনার জন্য সারা দেশকে ১১টি বেসামরিক জোনে ভাগ করা হলে পশ্চিম জোন-১ এর জোনাল চেয়ারম্যান নিযুক্ত করা হয় তাকে।

স্বাধীনতার পর যুদ্ববিধ্বস্ত বৃহত্তর দিনাজপুর পুনর্গঠনে তিনি আত্মনিয়োগ করেন এবং ত্রাণ ও পুনর্বাসন কমিটির চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

এম আব্দুর রহিম দশম জাতীয় সংসদের দিনাজপুর-৩ আসন হতে নির্বাচিত সংসদ সদস্য  ও জাতীয় সংসদের হুইপ ইকবালুর রহিম এর পিতা।

হুইপ ইকবালুর রহিম বলেন, দিনাজপুর মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালকে এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল নামকরণ করায় তার সততা, নীতি, আদর্শ, দেশাত্মবোধ, মানুষের প্রতি অকৃত্রিম ভালবাসা, রাজনৈতিক শিক্ষা নতুন প্রজন্মকে উৎসাহিত করবে।

বাংলাদেশ সময়: ২০১৬ ঘণ্টা, এপ্রিল ১০, ২০১৭
এসই/জিপি/জেডএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa