bangla news

বগুড়া থেকে তিস্তা অভিমুখে বাসদের রোডমার্চ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৭-০২-১৫ ৫:৪৫:৪৬ এএম
তিস্তা অভিমুখে বাসদের রোডমার্চ- ছবি: আরিফ জাহান

তিস্তা অভিমুখে বাসদের রোডমার্চ- ছবি: আরিফ জাহান

বগুড়া: তিস্তাসহ ৫৪টি অভিন্ন নদীর পানির ন্যায্য হিস্যার দাবিতে বগুড়া থেকে তিস্তা ব্যারেজ অভিমুখে রোডমার্চ শুরু করেছে বাসদ।

বুধবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে রাজশাহী ও রংপুর বিভাগের উদ্যোগে শুরু হওয়া রোডমার্চের উদ্বোধনী সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয় বগুড়া শহরের সাতমাথায়।

জেলা বাসদের আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট সাইফুল ইসলাম পল্টুর সভাপতিত্বে সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন দলের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক কমরেড খালেকুজ্জামান।

তিনি বলেন, নদীমাতৃক বাংলাদেশ আজ মরুকরণের হুমকির মুখে। উজানে একতরফা পানি সরিয়ে নেওয়ার ভারতীয় আগ্রাসী তৎপরতা ও দেশের ভেতরে সরকারের নতজানু, ভ্রান্তনীতি ও দখল-দূষণে ১ হাজান ২শ’টি নদী কমে ২শ’ ৩০টিতে এ নেমে এসেছে। নদীর চেহারা খালে পরিণত হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, দেশের চতুর্থ বৃহত্তম নদী তিস্তায় এবারে শুষ্ক মৌসুম আসতে না আসতেই পানি প্রবাহ আশংকাজনকভাবে কমে গেছে। গত ২০ জানুয়ারি তিস্তার পানি প্রবাহ ছিলো ইতিহাসে সর্বনিম্ন ৪০০ কিউসেক।

বাসদসহ বিভিন্ন বাম প্রগতিশীল গণতান্ত্রিক দলসগুলোর পক্ষ থেকে বারবার দাবি জানানো সত্ত্বেও ভারত ও বাংলাদেশ সরকারের কেউই কর্ণপাত করছে না। জোট-মহাজোটের ভোটের রাজনীতির কাছে দেশ, জনগণ, নদী ও প্রাণ-প্রকৃতি-পরিবেশ কোনো কিছুই গুরুত্ব পায় না বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

সমাবেশে আরও বক্তব্য রাখেন- বাসদের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য কমরেড বজলুর রশিদ ফিরোজ, সদস্য কমরেড জাহেদুল হক মিলু, কমরেড জয়নাল আবেদিন মুকুল, কমরেড নব কুমার কর্মকার, কমরেড দেবাশীষ রায় প্রমুখ।

সমাবেশ শেষে রোডমার্চটি তিস্তা ব্যারেজ অভিমুখে যাত্রা শুরু করে সাতমাথা থেকে শহর প্রদক্ষিণ করে মাটিডালী পর্যন্ত মিছিল করে যায়।

পথিমধ্যে রোডমার্চ মহাস্থানগড়, মোকামতলা, ফাঁসিতলা, গোবিন্দগঞ্জ, পলাশবাড়ী, পীরগঞ্জ, মিঠাপুকুর, শঠিবাড়ীতে সমাবেশ করে রংপুরে রাত্রীযাপন করবে। পরদিন ১৬ ফেব্রুয়ারি সকাল ১০টায় রংপুর প্রেসক্লাব থেকে মেডিকেল মোড়, পাগলাপীর, তারাগঞ্জ, কিশোরগঞ্জ, জলাঢাকা, তিস্তা ব্যারেজ গিয়ে সমাপনী সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে।

সমাপনী সমাবেশ থেকে পরবর্তী আন্দোলনের কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে বলে সমাবেশ থেকে জানানো হয়।

বাংলাদেশ সময়: ১৬৪৩ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ১৫, ২০১৭
এমবিএইচ/জিপি/এএ

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
db 2017-02-15 05:45:46