bangla news

রামপাল প্রকল্প বাতিলের দাবিতে গণসংহতির জনসংযোগ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৬-১১-১৫ ৮:১৩:৪০ এএম

রামপাল কয়লা প্রকল্প বাতিলের দাবিতে ঢাকা শহরব্যাপী প্রচারণা ও আন্দোলন সংগঠিত করার লক্ষ্যে প্রেসক্লাব-মতিঝিল এলাকায় প্রচারপত্রবিলি, পথসভা ও জনসংযোগ করেছে গণসংহতি আন্দোলন।

ঢাকা: রামপাল কয়লা প্রকল্প বাতিলের দাবিতে ঢাকা শহরব্যাপী প্রচারণা ও আন্দোলন সংগঠিত করার লক্ষ্যে প্রেসক্লাব-মতিঝিল এলাকায় প্রচারপত্রবিলি, পথসভা ও জনসংযোগ করেছে গণসংহতি আন্দোলন।

মঙ্গলবার (১৫ নভেম্বর) বিকেল ৪টায় গণসংহতি আন্দোলন ঢাকা মহানগরের উদ্যোগে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে আয়োজিত সমাবেশের মাধ্যমে এসব কর্মসূচি শুরু হয়।

গণসংহতি আন্দোলনের সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য মনিরউদ্দীন পাপ্পুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন দলটির প্রধান সমন্বয়কারী জোনায়েদ সাকি ও রাজনৈতিক পরিষদের সদস্য আবুল হাসান রুবেল।

এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন গণসংহতি আন্দোলনের কেন্দ্রীয় রাজনৈতিক পরিষদের সদস্য তাসলিমা আখ্‌তার, সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য বাচ্চু ভুঁইয়া, আবু বকর রিপন, কেন্দ্রীয় সদস্য জান্নাতুল মরিয়ম ও দীপক রায়।

সমাবেশে বক্তারা জনমত, বিশেষজ্ঞদের মতামত ও ইউনেস্কোর তাগিদ সত্ত্বেও রামপাল প্রকল্প চালিয়ে যাওয়ার তীব্র সমালোচনা করে অবিলম্বে এই প্রকল্প বাতিলের দাবি জানান।

তারা বলেন, এই প্রকল্পে দূষণ রোধের যেসব ব্যবস্থা নেওয়ার কথা এতদিন বলা হয়েছে সেগুলো যে ফাঁকিবাজি তা বাংলাদেশ-ভারত মৈত্রী পাওয়ার কোম্পানির এমডি ভারতীয় নাগরিক উজ্জ্বল কান্তি ভট্টাচার্যের বক্তব্য থেকেই স্পষ্ট। উজ্জ্বল কান্তি বাংলাদেশের জনগণকে অবমাননা করছেন, সরকারকে মিথ্যাচারের দোষে দুষ্ট করছেন সরকারেরই প্রশ্রয়ে। এটা বাংলাদেশের জাতীয় সার্বভৌমত্বের বিরোধী হলেও সরকার তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়নি।

জনসমাবেশ-প্রচারণা ও জনসংযোগের এই কর্মসূচিগুলো ‘তেল-গ্যাস-খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটি’র আগামী ২৬ নভেম্বরের মহাসমাবেশ সফলের উদ্দেশ্যে ওই দিন পর্যন্ত ঢাকার বিভিন্ন স্থানে চলবে।
 
জাতীয় প্রেসক্লাবের জনসমাবেশের শেষে সংগঠনের প্রধান সমন্বয়কারী জননেতা জোনায়েদ সাকির নেতৃত্বে প্রেসক্লাব থেকে মতিঝিল পর্যন্ত এলাকায় প্রচারপত্রবিলি, পথসভা ও জনসংযোগ অনুষ্ঠিত হয়।

বুধবার (১৬ নভেম্বর) সকাল ১০টা ৩০ মিনিট থেকে নিউমার্কেট ও আজিমপুর অঞ্চলে বিভিন্ন স্কুল-কলেজের সামনে এই প্রচারাভিযান চলবে।

বাংলাদেশ সময়: ১৯০৬ ঘণ্টা, নভেম্বর ১৫, ২০১৬
পিআর/এমজেএফ

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
db 2016-11-15 08:13:40