ঢাকা, মঙ্গলবার, ৭ আশ্বিন ১৪২৭, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৩ সফর ১৪৪২

আওয়ামী লীগ

‘গুলশান হামলার বিবৃতির ভাষায় খুনিদের পক্ষ নিয়েছেন খালেদা’

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৩৪৮ ঘণ্টা, জুলাই ৩, ২০১৬
‘গুলশান হামলার বিবৃতির ভাষায় খুনিদের পক্ষ নিয়েছেন খালেদা’ ছবি- সুমন শেখ- বাংলানিউজটোয়েন্টিফাের

ঢাকা: গুলশানের সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় খালেদা জিয়া যে ভাষায় বিবৃতি দিয়েছেন তাতে তিনি খুনিদেরই পক্ষ নিয়েছেন বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও ১৪ দলের মুখপাত্র মোহাম্মদ নাসিম।

তিনি বলেছেন, খালেদা জিয়া বিবৃতিতে বলেন, এটা একটি রক্তাক্ত অভ্যুত্থান।

এ ভাষায় তিনি বিবৃতি দিয়ে প্রকারান্তরে খুনিদের পক্ষ অবলম্বন করেছেন। যেখানে প্রধানমন্ত্রী তার জাতির উদ্দেশে দেওয়া ভাষণে কাউকে আক্রমণ করেননি। অথচ এ ঘটনাকে দুঃশাসনের প্রতিক্রিয়া হিসেবে রক্তাক্ত অভ্যুত্থান বলে অভিহিত করেছেন খালেদা জিয়া। এ বক্তব্যের মধ্য দিয়েই খুনিদের প্রতি তার পক্ষাবলম্বন প্রকাশ পেয়েছে।

এদিকে, গুলশান হামলার প্রতিবাদে কর্মসূচি ঘোষণা করেছে ১৪ দল। কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে আগামী ১১ জুলাই কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে প্রতিরোধ সমাবেশ। এছাড়া ১২ জুলাই থেকে ২১ জুলাই পর্যন্ত সারাদেশে জেলা-উপজেলা ও ইউনিয়ন পর্যায়ে সর্বস্তরের জনগণকে সম্পৃক্ত করে সন্ত্রাসবিরোধী কমিটি করা হবে।

পরবর্তীতে ২৪ জুলাই থেকে সারাদেশে সাত দিনব্যাপী প্রতিবাদ সমাবেশ করবে ১৪ দল।

রোববার (০৩ জুলাই) সকালে আওয়ামী লীগ সভাপতির ধানমণ্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে ১৪ দলের জরুরি সভা শেষে সংবাদ সম্মেলনে এসব জানান নাসিম।

নাসিমের সভাপতিত্বে এতে উপস্থিত ছিলেন ওয়াকার্স পার্টির সভাপতি বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটনমন্ত্রী রাশেদ খান মেনন, জাসদের সভাপতি তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু, আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফসহ আওয়ামী লীগ ও ১৪ দলের কেন্দ্রীয় নেতারা।

সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ প্রতিরোধে সকল মানুষের প্রতি আহ্বান জানানো হয়েছে। সেক্ষত্রে বিএনপির প্রতিও এই আহ্বান জানাবেন কি-না এমন প্রশ্নের উত্তরে সংবাদ সম্মেলনে নাসিম বলেন,  ‘তারা তো এখনো জামায়াতের সঙ্গে সম্পর্ক ছেদ করে নাই। আগে জামায়াতের সঙ্গে সম্পর্ক ছেদ করুক, তারপর দেখবো’।

অপর এক প্রশ্নের উত্তরে নাসিম বলেন,  ‘অবশ্যই মানুষ নিরাপদে আছে। আমরা জনগণকে জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে উদ্বুদ্ধ ও ঐক্যবদ্ধ করতেই এসব কর্মসূচি হাতে নিচ্ছি’।

গুলশান হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় এদেশীয় এজেন্টরা জড়িত কি-না জানতে চাইলে নাসিম বলেন, অবশ্যই এদেশীয় এজেন্ট জড়িত। এরা সবাই প্রশিক্ষিত শিবির। দেশে এখন রাজনৈতিক অস্থিরতা বলে কিছু নেই। ভীতি সৃষ্টি করার জন্য এরা এসব কিছু করছে।

মোহাম্মদ নাসিম বলেন, ‘কোনো দানবীয় শক্তির কাছে মানুষ, মানবতার শক্তি  পরাজিত হতে পারে না। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ থেকে এই পরিস্থিতি মোকাবেলা করে দানবীয় শক্তিকে পরাজিত করবোই। ১৪ দলের নেতৃত্বে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এই দানবীয় শক্তিকে আমরা অবশ্যই পরাজিত করবো’।

তিনি আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে দেশ  যখন এগিয়ে যাচ্ছে সেই সময়  দেশি-বিদেশি শক্তি এটাকে ঠেকাতে নারকীয় হত্যাকাণ্ডে মেতে উঠেছে। এই শক্তির বিরুদ্ধে লড়াইয়ে  আমরা অবশ্যই জিতবো।

সভায় উদ্ধার অভিযানে অংশ নেওয়া সশস্ত্র বাহিনীসহ আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে ধন্যবাদ জানানো হয়। জঙ্গিদের হাতে নিহত সকলের স্বজনদের প্রতি সমবেদনা জানানো হয়।

এছাড়া নির্ঘুম থেকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সাহসী নেতৃত্বের মাধ্যমে পরিস্থিতি মোকাবেলা করায় তাকেও ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানানো হয় ১৪ দলের সভায়।

বাংলাদেশের পাশে থাকার জন্য ভারত, জাপান এবং ইতালির প্রধানমন্ত্রীকেও ধন্যবাদ ও  কৃতজ্ঞতা জানানো হয়।

বাংলাদেশ সময়: ১৩৪৫ ঘণ্টা, জুলাই ০৩, ২০১৬
এসকে/জেডএস/এএসআর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa