ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৯ আশ্বিন ১৪২৭, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৫ সফর ১৪৪২

বিএনপি

খালেদার হাজিরা

আদালত চত্বরে কড়া নিরাপত্তা

বাংলানিউজ টিম | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৯৫০ ঘণ্টা, এপ্রিল ১৭, ২০১৬
আদালত চত্বরে কড়া নিরাপত্তা ছবি: দীপু মালাকার- বাংলানিউজটোেয়েন্টিফোর.কম

ঢাকা: জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার প্রধান আসামি বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া ৩৪২ ধারায় আত্মপক্ষ সমর্থনে আদালতে যাচ্ছেন। রোববার (১৭ এপ্রিল) সকাল নয়টা ৫০ মিনিটে আদালতে হাজির হতে গুলশানের বাসভবন থেকে রওনা হয়েছেন তিনি।

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট ও জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্টের অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) দায়ের করা মামলা দু’টির বিচারিক কার্যক্রম চলছে রাজধানীর বকশিবাজারে কারা অধিদফতরের প্যারেড মাঠে স্থাপিত তৃতীয় বিশেষ জজ আবু আহমেদ জমাদারের অস্থায়ী আদালতে।

খালেদা জিয়ার আদালতে হাজির হওয়া উপলক্ষে নিরাপত্তার স্বার্থে আদালতপাড়া ও আশাপাশের এলাকা নিরাপত্তার চাদরে ঢেকে দেওয়া হয়েছে। পুলিশ, ৠাব ও গোয়েন্দা বিভাগের সদস্যসহ আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর চার শতাধিক সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে।

চকবাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শামীম অর রশিদ তালুকদার বাংলানিউজকে জানান, খালেদা জিয়ার নিরাপত্তার স্বার্থে পুরো এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ সদস্য দিয়ে নিরাপত্তা দেওয়া হয়েছে।

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) এডিসি সঞ্জিত কুমার রায় জানান, কয়েক স্তরের নিরাপত্তা ও ব্যারিকেড দেওয়া হয়েছে। স্তরে স্তরে আর্চওয়ে স্থাপন করে মেটাল ডিটেক্টর দিয়ে চেক করে ভেতরে ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে। পুলিশ, ৠাব, সাদা পোশাকের গোয়েন্দা পুলিশসহ আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর চার শতাধিক সদস্য নিরাপত্তায় নিয়োজিত রয়েছেন বলেও জানান তিনি।

সরজেমিনে দেখা গেছে, বকশি বাজারের মোড়, বদরুন্নেছা কলেজের সামনে, আলিয়া মাদ্রাসার সামনে, কারা সদর দফতর ও আদালতের প্রবেশের প্রথম ফটকসহ আশপাশের এলাকায় পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

এসব এলাকায় দোকানপাট বন্ধ থাকলেও যান চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে। আলিয়া মাদ্রাসা ও বকশিবাজার মোড়ে এপিসিসহ পুলিশের সাজোয়া যান দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা গেছে।

গত ৭ এপ্রিল জামিনে থাকা তিন আসামির আত্মপক্ষ সমর্থনের দিন ধার্য থাকলেও খালেদা জিয়া হাজির না হয়ে আইনজীবীদের দিয়ে সময়ের আবেদন জানান। এ আবেদন মঞ্জুর করে ১৭ এপ্রিল দিন পুনর্নির্ধারণ করে তাকে হাজির থাকার আদেশ দেন আদালত।  

ওইদিন জামিনে থাকা অন্য দুই আসামি জিয়াউল ইসলাম মুন্না ও মনিরুল ইসলাম খান আত্মপক্ষ সমর্থন করে আদালতে বক্তব্য দেন। তারা কোনো সাফাই সাক্ষী দেবেন না এবং পরে লিখিত বক্তব্য দেবেন বলেও জানান।

গত ৩১ মার্চ ৩২তম ও শেষ সাক্ষী তদন্তকারী কর্মকর্তা দুদকের উপ-পরিচালক হারুন-অর রশিদকে আসামিপক্ষের জেরার মধ্য দিয়ে শেষ হয় জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার সাক্ষ্যগ্রহণ ও জেরা।

অন্যদিকে জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলার বাদী ও প্রথম সাক্ষী দুদকের উপ-পরিচালক হারুন-অর-রশিদকে আসামিপক্ষের জেরা চলছে। অসমাপ্ত জেরা ও নতুন সাক্ষীদের সাক্ষ্যগ্রহণের দিনও ধার্য রয়েছে রোববার।

বাংলাদেশ সময়: ০৯৫০ ঘণ্টা, এপ্রিল ১৭, ২০১৬
এমআই/এজেডএস/এএটি/এএসআর

** আত্মপক্ষ সমর্থনে আদালতে যাচ্ছেন খালেদা

 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa