bangla news

গ্যাস-বিদ্যুতের দাম বাড়লেই বিএনপির কর্মসূচি

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৬-০৪-০৮ ৩:১৪:৪৭ এএম
রুহুল কবির রিজভী

রুহুল কবির রিজভী

ফের গ্যাস-বিদ্যুতের দাম বাড়ানো হলে কঠোর কর্মসূচি দেবে বাংলাদেশ জাতীয়তাব‍াদী দল বিএনপি। একই সঙ্গে সরকারকে এ অবস্থান থেকে ফিরে আসারও আহ্বান জান‍ায় দলটি।

ঢাকা: ফের গ্যাস-বিদ্যুতের দাম বাড়ানো হলে কঠোর কর্মসূচি দেবে বাংলাদেশ জাতীয়তাব‍াদী দল বিএনপি। একই সঙ্গে সরকারকে এ অবস্থান থেকে ফিরে আসারও আহ্বান জান‍ায় দলটি।

শুক্রবার (০৮ এপ্রিল) দুপুরে রাজধানীর নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে দলের এই অবস্থানের কথা জানান বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আহমেদ।

গ্যাস-বিদ্যুতের দাম বাড়ানোর ‘পরিকল্পনার’ বিরুদ্ধে তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে বিএনপির এই নেতা বলেন, ‘অবিলম্বে সরকারের এ ধরনের গণবিরোধী পরিকল্পনা থেকে সরে আসতে হবে। অন্যথায় বিএনপি জনগনকে সঙ্গে নিয়ে কঠোর কর্মসূচি ঘোষণা করবে।’

রিজভী বলেন, ‘অবৈধ এ সরকার দুর্নীতি ও লুটপাটের মধ্যদিয়ে সকল সেক্টর ধ্বংসের পর আবারও গ্যাস ও বিদ্যুতের দাম বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে। বিশ্ববাজারে তেলের দাম কমায় বিদ্যুৎ উৎপাদন খরচ কমেছে। তারপরও এই মুল্যবৃদ্ধি করা হচ্ছে সরকারের দুর্নীতির ব্যপ্তি আরো বৃদ্ধি করার জন্য।’

“মানুষ সরকারের ভয়াবহ গণতন্ত্র হরণের দুঃশাসনে পিষ্ট ও নির্বাক। এর ওপর গ্যাস-বিদ্যুতের দাম বাড়ালে মানুষের জীবন যাত্রার ব্যয় আতিমাত্রায় বৃদ্ধি পেয়ে জনগনকে অতুল গহ্বরে ঠেলে দেওয়া হবে। মানুষ ক্রয় ক্ষমতা হারিয়ে ফেলবে এবং মানুষের দৈনন্দিন জীব যাপন আরও কষ্টকর হয়ে পড়বে। কৃষি ও শিল্প উৎপাদনেও ব্যাপক প্রভাব পড়বে”, বলেন রিজভী।

বিএনপির এই নেতা বলেন, ‘একদিকে রাজকোষ জনগণের শত শত কোটি টাকা চুরি, গত কয়েক বছর ধরে সরকারি ব্যাংকগুলো লুপাট, শেয়ার বাজার থেকে লক্ষকোটি টাকা আত্মসাৎ করে দেশের সম্পদের বিরাট অংশ বিদেশে পাচার করে ক্ষমতাসীনরা দেশের অর্থনীতিকে কাফন পড়িয়ে দিয়েছে।

রিজভী বলেন, ‘তারা গণমাধ্যমকে সম্পূর্ণভাবে নিয়ন্ত্রণ করছে। আর এজন্য গণমাধ্যম বন্ধসহ সম্পাদক ও সাংবাদিকদের গ্রেফতার নির্যাতন ও দলন নিপীড়ণের মাধ্যমে আতঙ্ক ছড়িয়ে দিয়েছে। সকল গণমাধ্যমকে রাখা হয়েছে প্রবল হুমকির মধ্যে।’

তিনি বলেন, ‘আমার দেশ পত্রিকার সম্পাদক মাহমুদুর রহমানকে তিন বছর ধরে মিথ্যা মামলা দিয়ে কারাগারে আটক করে রাখা হয়েছে। তিনি বার বার উচ্চ আদালত থেকে জামিন পেলেও মিথ্যা ও রাজনৈতিক হীন উদ্দেশ্যপ্রণোদিত মামলায় শ্যোন অ্যারেস্ট দেখিয়ে তাকে কারা ফটকে আটকে রাখা হচ্ছে। বর্তমানে তাকে তিলে তিলে নি:শেষ করার ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে।’

কারাগারে আটক থাকা অবস্থায় নতুন করে মাহমুদুর রহমানকে আটক দেখিয়ে রিমান্ড চাওয়া সম্পূর্ণ অমানবিক ও সরকারের নিষ্ঠুর প্রতিহিংসা চরিতার্থেরই বহি:প্রকাশ বলে মন্তব্য করেন বিএনপির এই যুগ্ম মহাসচিব।

তিনি মাহমুদুর রহমানের রিমান্ড আবেদন বাতিল করে তার বিরুদ্ধে করা মামলা প্রত্যাহার ও অবিলম্বে নিঃশর্ত মুক্তির জোর দাবি জানান।

সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলন, অর্থনৈতিক বিষয়ক সম্পাদক আবদুস সালাম, শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক খায়রুল কবির খোকন, গণশিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট সানা উল্লাহ মিয়া, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক মাসুদ আহমেদ তালুকদার, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুস সালাম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৩০৫ ঘণ্টা, এপ্রিল ০৮, ২০১৬
এমএম/বিএস

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
db 2016-04-08 03:14:47