ঢাকা, শনিবার, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ২৫ মে ২০১৯
bangla news

‘সুদিনে আরেকজনকে কনুই দিয়ে গুতোবেন না’

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৬-০৪-০৫ ১১:৩৩:০৪ এএম
ছবি: বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ছবি: বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

নেতা-কর্মীদের সব সময় ঐক্যবদ্ধ থাকার আহ্বান জানিয়ে আওয়ামী লীগ সভাপতিমন্ডলীর সদস্য ও কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী বলেছেন, ‘সুদিনে আজ একজন আরেকজন কনুই দিয়ে গুতিয়ে ফেলে দিলে কেউ এগুতে পারবো না।’

ঢাকা: নেতা-কর্মীদের সব সময় ঐক্যবদ্ধ থাকার আহ্বান জানিয়ে আওয়ামী লীগ সভাপতিমন্ডলীর সদস্য ও কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী বলেছেন, ‘সুদিনে আজ একজন আরেকজন কনুই দিয়ে গুতিয়ে ফেলে দিলে কেউ এগুতে পারবো না।’

তিনি আরো বলেন, ‘এটা সু-রাজনীতির সাথে যায় না। কারণ কাউকে খাটো করে বড় হওয়া যায় না। সবাইরে নিয়া চললে বড় হবো। সেটা শেখ হাসিনা সবাইরে নিয়ে চলে প্রমাণ করেছেন।’

মঙ্গলবার (এপ্রিল ০৫) বিকেলে বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ের আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগ আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন মতিয়া।

এক/এগারোর তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সময় শেখ হাসিনার মুক্তির দাবিতে গণস্বাক্ষর সংগ্রহ দিবস উপলক্ষ্যে আলোচনা সভার আয়োজন করে নগর আওয়ামী লীগ। আওয়ামী লীগ সে সময় ২৫ লক্ষ স্বাক্ষর সংগ্রহ করেছিলো।

ঐক্য ও পারস্পরিক সুসর্ম্পকের ওপর জোর দিয়ে মতিয়া বলেন, সাংগঠনিক শক্তি আর জনগণের শক্তি এক হলে যেকোন অসাধ্য সাধন হয়।

বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়াকে ‘লেডি লাদেন’ হিসেবে মন্তব্য করে মতিয়া চৌধুরী বলেন, ক্ষমতায় থাকতেও গ্রেনেড মারে, অপজিশনে গিয়েও গ্রেনেড মারে।মানুষ পুড়িয়ে মারে। লাদেন যেমন পাকিস্তানের অ্যাটোয়াবাদে বসে হামলার পরিকল্পনা করে ঠিক তেমনি খালেদা জিয়া গুলশান কার্যালয়ের দোতলায় বসে থাকে আর দেশে একের পর রেললাইন ওঠানোর নির্দেশ দেয়, আগুন দিয়ে মানুষ পুড়িয়ে মারার নির্দেশ দেয়।

তারেক রহমানকে দেশে ফিরে আইনি লড়াইয়ে অংশ নেওয়ার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, সাহস নাই এজন্য দেশে ফিরে আইনি লড়াই করে না। চোর, লুটেরা, দস্যুদের আবার সাহস কি।

ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি কামাল আহমেদ মজুমদারের সভাপতিত্বে অন্যানের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ডা. দীপু মনি, ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও ত্রাণমন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও খাদ্যমন্ত্রী অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম প্রমুখ।

বাংলাদেশ সময়: ২১৩০ ঘণ্টা, এপ্রিল ০৫, ২০১৬
এমইউএম/আরআই

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
db 2016-04-05 11:33:04