ঢাকা, সোমবার, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮, ১৪ জুন ২০২১, ০৩ জিলকদ ১৪৪২

রাজনীতি

চাঁদাবাজি মামলা

চট্টগ্রামে সাবেক সাংসদসহ জামায়াতের ১৬ নেতা বেকসুর খালাস

স্টাফ করেসপন্ডেণ্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০০৩ ঘণ্টা, মে ২৩, ২০১১
চট্টগ্রামে সাবেক সাংসদসহ জামায়াতের ১৬ নেতা বেকসুর খালাস

চট্টগ্রাম: গত তত্ত্বাবধায়ক সরকারের আমলে জরুরি অবস্থা চলাকালে চট্টগ্রামে দায়ের হওয়া একটি চাঁদাবাজি মামলায় বেকসুর খালাস পেয়েছেন নগর জামায়াতের নায়েবে আমির ও সাবেক সাংসদ শাহজাহান চৌধুরীসহ একই সংগঠনের ১৬ জন নেতা।

সোমবার বিকেল তিনটায় চট্টগ্রাম জেলা ও দায়রা জজ আব্দুল কুদ্দুস মিয়া এ রায় ঘোষণা করেন।



খালাস পাওয়া আসামিরা হলেন- শাহজাহান চৌধুরী, সাতকানিয়া উপজেলা জামায়াতের নায়েবে আমির ডা. নূরুল হক, সেক্রেটারি ও স্থানীয় কাঞ্চনা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মাওলানা মোজাফফর আহমেদ, মাদর্শা ইউপি চেয়ারম্যান ফরিদুল আলম, সাতকানিয়া পৌরসভার কাউন্সিলর নেছার আহমেদ চৌধুরী, সাবেক কাউন্সিলর নূরুল আমিন, ইউপি সদস্য শামসুল ইসলাম, সাবেক ইউপি সদস্য আহমদ মিয়া ওরফে দুদু মেম্বার, শিক্ষক ওসমান গণি, নেছার, আবু মুসা, নূরুল আলম, মকবুল আহমদ ও আবছার।

জামায়াত দলীয় আইনজীবী অ্যাডভোকেট মনজুর আহমেদ আনসারী বাংলানিউজকে জানান, ২০০৭ সালের ১৩ মে সাতকানিয়ার সোনাকানিয়া ইউনিয়নের জনৈক নূর আহমদ বাদি হয়ে এক লক্ষ টাকা চাঁদাবাজির অভিযোগে ১৬ জনের বিরুদ্ধে এ মামলা দায়ের করেছিলেন।

২০০৮ সালে এ মামলার চার্জ গঠনের পর ৬ জন সাক্ষীর সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে আদালত সব আসামিকে বেকসুর খালাস দেন।

অ্যাডভোকেট আনসারী বাংলানিউজকে বলেন, ‘মামলায় বাদি যেসব অভিযোগ এনেছে সাক্ষীদের সাক্ষ্যে তা প্রমাণ হয়নি। মিথ্যা ও ভিত্তিহীন অভিযোগের জন্য আমরা সাক্ষীদের বিরুদ্ধে ফৌজদারি আইনে মামলা করব। ’

বাংলাদেশ সময়: ২০০১ ঘণ্টা, মে ২৩, ২০১১

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa