bangla news

পাবনায় যুবলীগ নেতা সাবু হত্যা মামলায় ১০ আসামি বেকসুর খালাস

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১০-১০-১৯ ৭:৪৫:২৩ এএম

পাবনায় যুবলীগ নেতা সাইফুল আলম সাবু হত্যা মামলার রায়ে ১০ আসামি বেকসুর খালাস পেয়েছেন। মঙ্গলবার দুপুরে পাবনার অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালত-১ এর বিচারক মঞ্জুর কাদের চাঞ্চল্যকর এই মামলার রায় প্রদান করেন।

পাবনা: পাবনায় যুবলীগ নেতা সাইফুল আলম সাবু হত্যা মামলার রায়ে ১০ আসামি বেকসুর খালাস পেয়েছেন। মঙ্গলবার দুপুরে পাবনার অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালত-১ এর বিচারক মঞ্জুর কাদের চাঞ্চল্যকর এই মামলার রায় প্রদান করেন।

খালাস পাওয়া ১০ জন হলেন, পাবনা সদর উপজেলার মাহমুদপুর গ্রামের মৃত ইউসুফ আলীর ছেলে মালঞ্চি ইউপি চেয়ারম্যান আলী রেজা কাকন (৩৭), সদর থানার নুরপুর মহল্লার মৃত আহম্মদ আলীর ছেলে অ্যাডভোকেট সাইফুল ইসলাম ওরফে সুজা (৪৮), সদর উপজেলার সিংগা কারিগরপাড়া গ্রামের নছিমুদ্দিন প্রামানিকের ছেলে নজরুল ইসলাম ওরফে নুরুল (৪২), একই গ্রামের নাজিমুদ্দিন প্রামানিকের ছেলে শহিদুল ইসলাম ওরফে শফি (৩৬), একই উপজেলার ভাড়ারা গ্রামের বাদশা প্রামানিকের ছেলে বকুল হোসেন (২৬), বিলভাদুরী গ্রামের মৃত আব্দুল জলিলের ছেলে মোখলেছুর রহমান ওরফে কাটা বাচ্চু (২৫), একই গ্রামের আয়েন উদ্দিনের ছেলে খোকন হোসেন (২৭), গোলাপ হোসেনের ছেলে আমিরুল ইসলাম (২৪), ওমর আলীর ছেলে আসাদ (২৪) ও শমসের আলীর ছেলে হেলাল উদ্দিন (২০)।

দুপুর ১২ টার দিকে বিজ্ঞ বিচারক উভয় পরে যুক্তি-তর্ক শুনানি শেষে আসামিদের বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় সবাইকে বেকসুর খালাস প্রদান করেন। এসময় আসামিরা আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

আসামি পে মামলা পরিচালনা করেন অ্যাডভোকেট সনৎ কুমার। বাদী পে ছিলেন এপিপি অ্যাডভোকেট মুক্তার হোসেন মুক্তা।

মামলার সংপ্তি বিবরণে জানা যায়, জেলা যুবলীগের কার্যকরী সদস্য সদর উপজেলার সিংগা গ্রামের মৃত ডা. আবুল কাশেমের ছেলে ডা. সাইফুল আলম সাবু ২০০৭ সালের ১৮ সেপ্টেম্বর রাত সাড়ে ৯টার দিকে বাড়িতে ফিরছিলেন। পথে গ্রামের হাশেম আলীর বাড়ির কাছে মোটরসাইকেল আরোহী অজ্ঞাত পরিচয় ৫/৬ জন দুর্বৃত্ত তাকে কুপিয়ে হত্যা করে।

এ ঘটনায় নিহতের বড় ভাই মাহবুব আলম বাদী হয়ে একইদিন রাত সাড়ে ১১টার দিকে সদর থানায় অজ্ঞাতনামা ৫/৬ জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা সদর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) বদরুদ্দোজা তদন্ত শেষে উল্লেখিত ১০ জনকে অভিযুক্ত করে ২০০৮ সালের ৭ আগস্ট আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৭২৬ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৯, ২০১০

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
db 2010-10-19 07:45:23