ঢাকা, শুক্রবার, ১৮ ফাল্গুন ১৪৩০, ০১ মার্চ ২০২৪, ১৯ শাবান ১৪৪৫

রাজনীতি

‘সারাদেশেই আচরণবিধি লঙ্ঘন হচ্ছে, শোকজ খেলাম আমি আর সাকিব’

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৩ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১, ২০২৩
‘সারাদেশেই আচরণবিধি লঙ্ঘন হচ্ছে, শোকজ খেলাম আমি আর সাকিব’

ফরিদপুর: ফরিদপুর-৪ আসনের মনোনয়ন পত্র জমাদানের দিনে বিরাট গাড়ি বহর নিয়ে শোভাযাত্রা করে নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘনের জবাব দিয়েছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী মজিবুর রহমান নিক্সন চৌধুরী। তিনি লিখিত জবাব দাখিল শেষে নির্বাচনী অনুসন্ধান কমিটির কার্যালয় থেকে বের হয়ে সাংবাদিকদের বলেন, অনেকেই নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘন করেছেন।

কিন্তু শোকজ খেলাম আমি আর সাকিব। তবে ভবিষ্যতে এবিষয়ে সতর্ক থাকবেন বলেও তিনি জানান।

শুক্রবার (১ ডিসেম্বর) বিকাল ৩টার দিকে ফরিদপুর-৪ আসনের নির্বাচন কমিশনের অনুসন্ধান কমিটির চেয়ারম্যান ও জেলা যুগ্ম ও দায়রা জজ (২য় আদালত) মোহাম্মদ মঈন উদ্দীন চৌধুরীর কার্যালয়ে স্বশরীরে হাজির হয়ে তিনি লিখিত জবাব দাখিল করেন।

এর আগে বৃহস্পতিবার (৩০ ডিসেম্বর) নির্বাচনী অনুসন্ধান কমিটির ফরিদপুর ৪-এর চেয়ারম্যান এবং এবং যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ (২য় আদালত) মোহাম্মদ মঈন উদ্দীন চৌধুরী সইকরা এক আদেশে তাকে আচরণবিধি লঙ্ঘনের ব্যাখ্যা দিতে নির্দেশ দেয়া হয়।

গত মঙ্গলবার ফরিদপুরের জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয়ে ফরিদপুর-৪ আসনের মনোনয়ন পত্র জমা দেন মজিবুর রহমান নিক্সন চৌধুরী। তার বিরুদ্ধে শত শত মাইক্রোবাস ও মোটর সাইকেলের বহর নিয়ে ছাদ খোলা গাড়িতে দাঁড়িয়ে হাত নেড়ে নেড়ে শোভাযাত্রার অভিযোগ উঠে মনোনয়ন পত্র দাখিলের দিনে। বিষয়টি জানতে পেরে তার কাছে ব্যাখ্যা চেয়ে তাকে স্বশরীরে তলব করে নির্বাচন অনুসন্ধান কমিটি।

নিক্সন চৌধুরী অনুসন্ধান কমিটির কার্যালয় থেকে বের হয়ে সাংবাদিকদের বলেন, আমাদের কাছে ব্যাখ্যা চাওয়া হয়েছিল। আজ তার লিখিত জবাব দিলাম। এর বেশিকিছু নয়। তিনি বলেন, ভবিষ্যতে যাতে এমন কিছু না হয় সেদিকে খেয়াল রাখবো। আচরণবিধি মেনেই নির্বাচন করবো।

তিনি দাবি করেন, কাউকে দাওয়াত দিয়ে আনিনি। আমরা জনপ্রতিনিধি। অনেকেই সেদিন মনোনয়ন পত্র জমা দেন। কোথা থেকে কে এসেছে তাতো আমি জানিনা। এজন্য অনেক লোকের ভিড় হয়ে গেছে। তবে মনোনয়নপত্র জমা দেয়ার সময় আমরা মাত্র পাঁচজনই প্রবেশ করেছিলাম রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয়ে।

নিক্সন চৌধুরী বলেন, দেশের এমন কোথাও নাই যেখানে মনোনয়ন জমা দেয়ার সময় মিছিল মিটিং হয় নাই। কিন্তু শোকজ খেলাম শুধু আমি আর সাকিব। তিনি বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন একটি সুষ্ঠু নির্বাচন করবেন। আমরাও চাই একটি সুষ্ঠু নির্বাচন করতে। আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগের শোকজ দেয়ায় এটি ভালোই হয়েছে উল্লেখ করে নিক্সন বলেন, এতে অন্যরাও সতর্ক থাকবে। এটি নির্বাচন সুষ্ঠু করতে ভূমিকা রাখবে।

বাংলাদেশ সময়: ২০০৬ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ০১,২০২৩
এমএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।