ঢাকা, শুক্রবার, ১৮ ফাল্গুন ১৪৩০, ০১ মার্চ ২০২৪, ১৯ শাবান ১৪৪৫

রাজনীতি

‘মীরজাফর’ আখ্যা দিয়ে শাহজাহান ওমরের কুশপুত্তলিকা দাহ

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯৪৩ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১, ২০২৩
‘মীরজাফর’ আখ্যা দিয়ে শাহজাহান ওমরের কুশপুত্তলিকা দাহ

ঝালকাঠি: বিএনপি থেকে আকস্মিক আওয়ামী লীগে যোগ দিয়ে নৌকা প্রতীকে সংসদ নির্বাচনে অংশ নেওয়ায় ঝালকাঠিতে ব্যারিস্টার শাহজাহান ওমর বীরউত্তমের কুশপুত্তলিকা দাহ করা হয়েছে।  

শুক্রবার (১ ডিসেম্বর) জুমার নামাজ শেষে ঝালকাঠি শহরের বিভিন্ন স্থানে শাহজাহান ওমরের কুশপুত্তলিকায় ঝাঁটা এবং জুতাপেটা করে আগুন জ্বালিয়ে ‘মীরজাফর’ বেইমানের আখ্যা দেয় বিএনপি এবং অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা।

 

সকাল ১১টার দিকে ঝালকাঠি শহরের পশ্চিম চাঁদকাঠী এলাকায় ঝালকাঠি জেলা ও পৌর বিএনপি নেতাকর্মীরা শাহজাহান ওমরের কুশপুত্তলিকা দাহ করে দলের সঙ্গে বেইমানি করার কথা উল্লেখ করে নানারকম নেতিবাচক স্লোগান দেয়।  

বিকেল ৩ টায় আমতলা সড়কে  ঝালকাঠি জেলা বিএনপি কার্যালয়ের সামনে জপলা ছাত্রদলের  যুগ্ম সম্পাদক আহমেদ সালাউদ্দিনের নেতৃত্বে ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা শাহজাহান ওমরকে মীরজাফর উপাধি দিয়ে স্লোগান দেয়। এ সময় তারা শাহজাহান ওমরের কুশপুত্তলকায় ঝাঁটা ও জুতাপেটা করে তাতে আগুন জ্বালিয়ে দেয়। অপরদিকে ভৈরবপাশার ঢাপড় এলাকায় ছাত্রদল ও যুবদলের নেতাকর্মীরা কুশপুত্তলিকা দাহ করে।  

কুশপুত্তলিকা দাহ করার বিষয়ে ঝালকাঠি জেলা বিএনপির সদস্য সচিব অ্যাডভোকেট শাহাদাত হোসেন জানান, ব্যারিস্টার শাহজাহান ওমর দলের রাজপথে আন্দোলনে নেতাকর্মীদের ঝড়ানো রক্তের সঙ্গে বেইমানি করেছেন। গত ১৫ বছর ফ্যাসিবাদী কায়দায় যে দলটি ক্ষমতা কুক্ষিগত করতে শত শত নেতাকর্মীদের গুম খুন করেছে। রাজপথ রক্তে রঞ্জিত করেছে সেই দলের হয়ে নির্বাচনে অংশ নেওয়ার মতো ঘৃণ্য কাজ হতে পারে না। নেতাকর্মীদের ঘৃণার বহিঃপ্রকাশ তার কুশপুত্তলিকা দাহ। তাকে ইতোমধ্যে দল থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। ঝালকাঠি জেলা বিএনপি তাকে ঝালকাঠিতে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করেছে। তিনি নৌকায় না উঠে বেইমানি করে স্বতন্ত্র প্রার্থী হলেও হয়ত কিছুটা কম ঘৃণিত হতেন।  

নির্বাচনে যাওয়ায় তার আম ছালা দুটোই যাবে বলেও মন্তব্য প্রকাশ করেন তিনি।  

বাংলাদেশ সময়: ১৯৩৬ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ০১, ২০২৩ 
এসএএইচ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।