ঢাকা, সোমবার, ৯ আশ্বিন ১৪৩০, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪৫

রাজনীতি

‘ভয়াবহ বিদ্যুৎ বিপর্যয়ের জন্য কুইক রেন্টাল-দুর্নীতিই দায়ী’

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫৪২ ঘণ্টা, জুন ৮, ২০২৩
‘ভয়াবহ বিদ্যুৎ বিপর্যয়ের জন্য কুইক রেন্টাল-দুর্নীতিই দায়ী’

রাজশাহী: লোডশেডিং ও বিদ্যুৎখাতে দুর্নীতির প্রতিবাদ জানিয়ে রাজশাহীতে বিক্ষোভ মিছিল ও অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছে বিএনপি। পরে একই দাবিতে স্মারকলিপি দেওয়া হয়।

বৃহস্পতিবার (৮ জুন) বেলা ১১টার দিকে এ কর্মসূচি পালন করে নগর বিএনপি। কর্মসূচি থেকে বিদ্যুতের এ বিপর্যয়ের জন্য সরকারের কুইক রেন্টাল বিদুৎ কেন্দ্র আর দুর্নীতিকে দায়ী করেন বিক্ষুব্ধ নেতাকর্মীরা।

প্রথমেই নগরীর মালোপাড়ায় থাকা বিএনপির দলীয় কার্যালয় থেকে নেতাকর্মীরা বিক্ষোভ মিছিল বের করেন। বিক্ষোভ মিছিলটি বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে নগরীর হেতেমখাঁয় থাকা নেসকো কার্যালয়ের সামনে গিয়ে শেষ হয়।

এরপর তারা নর্দান ইলেকট্রিসিটি সাপ্লাই কোম্পানি লিমিটেডের কার্যালয়ে সামনে অবস্থান কর্মসূচি পালন করেন।

এ সময় বিএনপির নেতারা বলেন, রাজশাহীতে দিন-রাত মিলে ১২ থেকে ১৪ ঘণ্টা বিদ্যুৎ থাকছে না। এতে মানুষের জীবনযাত্রায় অসহনীয় হয়ে পড়েছে। গত কয়েক সপ্তাহের টানা তাপদাহ আর বিদ্যুতের লোডশেডিংয়ে রাজশাহীর মানুষের জীবন দুর্বিষহ হয়ে উঠেছে। এ অবস্থার জন্য তারা সরকারের কুইক রেন্টাল বিদুৎকেন্দ্র আর দুর্নীতিকে দায়ী করেন। বিএনপির নেতারা এ সংকট নিরসন করে দ্রুত সরকারের পদত্যাগ দাবি করেন। পরে বেলা ১২ পর বিএনপি নেতারা নেসকো কর্তৃপক্ষের কাছে স্মারকলিপি দেন।

কর্মসূচিতে বিএনপির রাজশাহী বিভাগীয় সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক শাহীন শওকত, নগর বিএনপির সদস্য সচিব মামুনুর রশীদসহ অন্য নেতারা বক্তব্য রাখেন।  

এছাড়া রাজশাহী জেলা বিএনপির সদস্য সচিব বিশ্বনাথ সরকারসহ জেলা ও নগর বিএনপি এবং তার অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

স্মারকলিপিতে উল্লেখ করা হয়েছে- জৈষ্ঠ্যের খরতাপে মানুষের জীবনে নাভিশ্বাস উঠেছে। এর ওপর বিদ্যুতের ভয়াবহ লোডশেডিংয়ে মানুষ এক ভয়াবহ দুর্বিষহ অবস্থার মধ্যে দিনাতিপাত করছে। গ্রামে চাহিদার তুলনায় ৩০-৩৫ শতাংশ বিদ্যুৎ কম পাচ্ছে পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ড। গ্রাম-গঞ্জের মানুষ ২৪ ঘণ্টায় মাত্র ২/১ ঘণ্টা বিদ্যুৎ পায়। মফস্বল শহরগুলোতে রাতে ২ ঘণ্টারও বেশি বিদ্যুৎ থাকে না। দিনের বেলার অধিকাংশ সময় লোডশেডিং ,থাকে।

প্রচণ্ড গরম ও যানবাহনের কারণে রাজশাহী যেন গ্যাস চেম্বারে পরিণত হচ্ছে। এতে মানুষের বসতবাড়িতে সীমাহীন দুর্ভোগের পাশাপাশি বিদ্যুতের অভাবে ক্ষুদ্র, মাঝারি ও বৃহৎ শিল্প-কলকারখানায় উৎপাদন ব্যাপকভাবে ব্যাহত হচ্ছে ও পর্যায়ক্রমে সেগুলো বন্ধ হওয়ার উপক্রম হয়েছে।

বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের (বিএনপি) পক্ষে অবিলম্বে বিদ্যুতের এ অবর্ণনীয় লোডশেডিং বন্ধ এবং নিরবিচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহ নিশ্চিত করে জনজীবনে স্বস্তি ফিরিয়ে আনার দাবি জানানো হয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৫৪২ ঘণ্টা, জুন ০৮, ২০২৩
এসএস/জেএইচ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa