ঢাকা, বুধবার, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০৮ ডিসেম্বর ২০২১, ০৩ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৩

রাজনীতি

সরকারের লুটপাট ঢাকতেই বিদ্যুতে নতুন আইন: দেলোয়ার

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৩২৮ ঘণ্টা, অক্টোবর ৬, ২০১০
সরকারের লুটপাট ঢাকতেই বিদ্যুতে নতুন আইন: দেলোয়ার

ঢাকা: বিনা টেন্ডারে বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণের সুযোগ রেখে সম্প্রতি সংসদে পাস করা নতুন ইনডেমনিটি (দায়মুক্তি) আইনের কড়া সমালোচনা করেছেন বিএনপি মহাসচিব খোন্দকার দেলোয়ার হোসেন।

তিনি বলেছেন, ‘বিনাটেন্ডারে অনেক কাজ দেওয়া হয়েছে।

আরও দেওয়া হচ্ছে। সরকার লুটপাটের চিত্র ঢাকতেই এ আইন করেছে। এ আইন সরকারের দুর্নীতির নগ্নতাকে উন্মোচিত করে। কিন্তু বাংলাদেশের সংবিধান দুর্নীতিকে সমর্থন করে না। দেশের ক্ষতির জন্যই এ আইনে বিনাটেন্ডারে বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণে জড়িতদের বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলা করা যাবে না বলে বিধান রাখা হয়েছে। ’

বুধবার দুপুরে নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

এ ধরনের অস্বচ্ছ ও দুর্নীতিতে সহায়তাকারী আইন বাতিল করে সবার কাছে গ্রহণযোগ্য আইন প্রণয়নেরও দাবি জানান তিনি।

সংসদের জবাবদিহিতা বলতে কি বোঝায় সে প্রশ্ন তুলে তিনি বলেন, ‘সংসদ এ ধরনের কোনো আইন করতে পারে না। এ আইন সংসদের নৈতিকতা প্রশ্নবিদ্ধ করেছে। ’

বিনা টেন্ডারে যারা কাজ পাবে তারা আড়াই টাকার বিদ্যুতের দাম ১২ টাকা ধরবে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করে তিনি বলেন, ‘এতে বছরে ৮ থেকে ১০ হাজার কোটি টাকা আর্থিক ক্ষতি হবে। তাই এমন জনস্বার্থ বিরোধী ও অন্যায় কাজ বিএনপি করতে দিতে পারে না। চড়া বিদ্যুৎ বিলে দেশের ক্ষতি জনগণ মেনে নেবে না। ’

তিনি বলেন, ‘দেশের জন্য ক্ষতিকারক নতুন আইন পাসের সময়ে  আমরা না হয় সংসদে ছিলাম না। কিন্তু সরকারি দলে কি বিবেকবান এমন একজনও সাংসদ নেই যিনি এ বিষয়ে কথা বলতে পারতেন?’

এক প্রশ্নের উত্তরে বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘আমরা সংসদের যেতে চাই। তাই কারচুপির নির্বাচন মেনে নিয়েই সংসদে গেছি। কিন্তু তারা আমাদের সঙ্গে কি আচরণ করেছে তা আপনারা দেখেছেন। ’

তিনি বলেন, ‘ভদ্র ও সহনশীল হয়ে বিরোধী দলকে সংসদের রাখার দায়িত্ব সরকারের। কিন্তু  আমরা সংসদে না গেলেই তারা খুশি হয়। ’

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন বিএনপির ভাইসচেয়ারম্যান রাজিয়া ফয়েজ, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ডা. এজেডএম জাহিদ হোসেন, যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবীর রিজভী, আমান উল্লাহ আমান, শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক খায়রুল কবীর খোকন, অর্থ বিষয়ক সম্পাদক আব্দুস সালাম, স্বেচ্ছাসেবক দল সভাপতি হাবিব উন নবী খান সোহেল, বিএনপি নেতা এবিএম মোশাররফ হোসেন প্রমুখ।

বাংলাদেশ সময়: ১৩৫০ ঘণ্টা, অক্টোবর ৬, ২০১০

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa