ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৬ ফাল্গুন ১৪৩০, ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৮ শাবান ১৪৪৫

রাজনীতি

আ.লীগ লুটপাট করে দেশকে সংকটে ফেলেছে: ডা. জাহিদ

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১২২ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ৭, ২০২৩
আ.লীগ লুটপাট করে দেশকে সংকটে ফেলেছে: ডা. জাহিদ

সিলেট: আওয়ামী লীগ লুটপাট করে দেশকে সংকটের মধ্যে ফেলে দিয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ডা. এ জেড এম জাহিদ হোসেন। তিনি বলেন, তারা দেশের হাজার হাজার কোটি টাকা বিদেশে পাচার করে অর্থনীতিকে ধ্বংস করে দিয়েছে।

মঙ্গলবার (০৭ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে সিলেটের কেমুসাস হলরুমে আয়োজিত সিলেট বিএনপির সাংগঠনিক সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে ডা. জাহিদ এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগের নেতারা রাষ্ট্রক্ষমতা কুক্ষিগত করে রেখেছেন। দেশে আজ গণতন্ত্র, বাকস্বাধীনতা, ভোটাধিকার, আইনের শাসন নেই। তেল নাই, গ্যাস নাই, বিদ্যুৎ নাই; চারিদিকে শুধু নাই আর নাই। তাই এই সরকারের ক্ষমতায় থাকার আর কোনো অধিকার নাই। এই সংকট থেকে দেশকে বাঁচাতে হলে বিএনপির ১০ দফা দাবি বাস্তবায়ন করে দেশে জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠা করতে হবে।

এজন্য দেশের সাধারণ মানুষকে সঙ্গে নিয়ে ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন-সংগ্রামে রাজপথে থাকতে দলের নেতাকর্মীদের আহ্বান জানান বিএনপির এই নেতা।

সিলেট জেলা বিএনপির সভাপতি আব্দুল কাইয়ুম চৌধুরীর সভাপতিত্বে সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা তাহসিনা রুশদির লুনা, ড. এনামুল হক চৌধুরী ও খন্দকার আব্দুল মুক্তাদির, কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ডা. সাখাওয়াত হাসান জীবন, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক কলিম উদ্দিন মিলন, নির্বাহী কমিটির সদস্য আরিফুল হক চৌধুরী ও আবুল কাহের চৌধুরী শামীম।

বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা তাহসিনা রুশদির লুনা বলেন, যারাই আওয়ামী লীগের দুঃশাসনের বিরুদ্ধে কথা বলে তাদের ওপর মামলা-হামলা করা হয়। হত্যা-নির্যাতন চালানো হয়। সরকার বিএনপি নেতা এম ইলিয়াস আলী, ছাত্রদল নেতা দিনার, জুনেদ, আনসার আলীসহ অসংখ্য নেতাকর্মীদের গুম করে রেখেছে। সরকারের সকল অপকর্মের জবাব দিতে আন্দোলন সংগ্রামের মাধ্যমে তাদের বিদায় করতে হবে।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা খন্দকার আব্দুল মুক্তাদির বলেন, জনগণের পিঠ দেয়ালে ঠেকে গেছে। এখন আর পেছনে ফিরে তাকানোর সময় নেই। তাই সরকারের অনিয়ম ও দুর্নীতির বিরুদ্ধে জনমত সৃষ্টি করতে হবে। আগামী দিনের আন্দোলনে দলের সকল নেতাকর্মীদের যেকোন ত্যাগ শিকার করতে প্রস্তুত থাকতে হবে।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য আরিফুল হক চৌধুরী বলেন, আওয়ামী লীগ গণতন্ত্রে বিশ্বাস করে না, তারা জোর করে ক্ষমতা আঁকড়ে আছে। দেশের সাধারণ মানুষ রাস্তায় নামলে তারা পালাবার রাস্তাও খুঁজে পাবে না।

সভাপতির বক্তব্যে সিলেট জেলা বিএনপির সভাপতি আব্দুল কাইয়ুম চৌধুরী বলেন, বিদ্যুতের ভয়াবহ লোডশেডিংয়ে জনজীবন আজ বিপর্যস্ত। দ্রব্যমূল্য সাধারণ মানুষের নাগালের বাইরে। মানুষ ওএমএসের লাইনে দাঁড়িয়েও ন্যায্য মূল্যের চাল পাচ্ছে না। ওএসএসের ট্রাকের পাশে পড়ে থাকা চাল কুড়িয়ে নিয়ে যাওয়ার সময়ও মানুষদের লাঞ্ছিত করা হচ্ছে। মানুষ কতটা দারিদ্র্যসীমার নিচে থাকলে এমন পরিস্থিতি হতে পারে। তাই এই ফ্যাসিস্ট সরকারের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধভাবে রাজপথে নেমে আন্দোলন সংগ্রামের মাধ্যমে ফ্যাসিবাদকে বিদায় করে দেশে জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠা করতে হবে।

সাংগঠনিক সভায় জেলার ১৮টি উপজেলা ও পৌর বিএনপির সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক, সিনিয়র সহ-সভাপতি, সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও সাংগঠনিক সম্পাদকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশ সময়: ২১২০ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ০৭, ২০২৩
এনইউ/এমজেএফ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।