ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২৮ মে ২০২৪, ১৯ জিলকদ ১৪৪৫

রাজনীতি

‘বিএনপিকে ১০ ডিসেম্বর ইনিংস ব্যবধানে হারিয়ে আজ হোয়াইটওয়াশ করেছি’

ইউনিভার্সিটি করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮২৪ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৩০, ২০২২
‘বিএনপিকে ১০ ডিসেম্বর ইনিংস ব্যবধানে হারিয়ে আজ হোয়াইটওয়াশ করেছি’

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়: গণতন্ত্রের বিজয় উদযাপন ও বিএনপি-জামায়াতের সন্ত্রাস, নৈরাজ্য, দেশবিরোধী কর্মকাণ্ডের প্রতিবাদে অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছে ছাত্রলীগ।

শুক্রবার (৩০ ডিসেম্বর) দুপুর ২টার দিকে জাতীয় জাদুঘর সংলগ্ন শাহবাগ চত্বরে এ কর্মসূচি পালন করে ছাত্রলীগ।

 

অবস্থান কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন- ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদের সভাপতি সাদ্দাম হোসেন, সাধারণ সম্পাদক শেখ ওয়ালী আসিফ ইনান, ছাত্রলীগের ঢাবি শাখার সভাপতি মাজহারুল কবির শয়ন ও সাধারণ সম্পাদক তানভীর হাসান সৈকত এবং ছাত্রলীগের বিভিন্ন হল ও কলেজ ইউনিটের নেতারা। অবস্থান কর্মসূচিতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন সাংস্কৃতিক সংগঠন দেশাত্মবোধক গান পরিবেশন করে। এ সময় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা তাদের সঙ্গে সমবেত কণ্ঠে গান ধরেন।

এ উপলক্ষে দুপুর ২টা থেকে শাহবাগ চত্বরে জড়ো হতে থাকেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রলীগের বিভিন্ন হল-ইউনিট, ঢাকা কলেজ, ইডেন কলেজসহ বিভিন্ন কলেজ ইউনিটের নেতাকর্মীরা।  

ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি সাদ্দাম হোসেন বলেন, আজকের এদিনে বাংলাদেশের মানুষ শেখ হাসিনার বিজয় নিশ্চিত করেছিল। তাই এদিনটি গণতন্ত্রের বিজয় দিবস হিসেবে আমরা উদযাপন করছি। আমাদের এ অবস্থান কর্মসূচির মূল উদ্দেশ্য হচ্ছে যারা বাংলাদেশে রাজনীতি আর সমাবেশ করার লাইসেন্স নিয়ে বাংলার মানুষের জীবন-জীবিকা নিয়ে ছিনিমিনি খেলছে, তাদের প্রতিহত করা। মানুষের জীবন দুধভাত নয়। মানুষের জীবনের ওপর আঘাত করে রাজনৈতিক ফায়দা নেবে এটা চলতে দেওয়া হবে না।  

তিনি বলেন, জনগণের ভোটে নির্বাচিত সরকারের মাধ্যমে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। কোনো অনির্বাচিতদের ওপর ভর করে যারা সরকার গঠনের দিবাস্বপ্ন দেখছে তাদের দিবাস্বপ্ন দিবাস্বপ্নই থেকে যাবে। ১০ ডিসেম্বর আমরা তাদের ইনিংস ব্যবধানে হারিয়েছি, আজ হোয়াইটওয়াশ করেছি। সামনের দিনে তাদের প্রতিহত করে ওয়াক ওভার নিশ্চিত করবো।

ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক শেখ ওয়ালী আসিফ ইনান বলেন, এ শাহবাগ চত্বরে বসে আমরা মানবতাবিরোধী অপরাধীদের বিচার নিশ্চিত করেছিলাম। আসুন আমরা এ চত্বরে দাঁড়িয়ে প্রত্যয় নেই, আজকের মতো আগামী দিনেও ঢাকা শহরের প্রত্যেকটি অলিতে-গলিতে, পাড়া-মহল্লায় যেখানে স্বাধীনতাবিরোধী শক্তিরা তৎপর হওয়ার চেষ্টা করবে সেখানেই তাদের দাঁত ভাঙা জবাব দেওয়া হবে।  

বাংলাদেশ সময়: ১৮২৩ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৩০, ২০২২
এসকেবি/আরবি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।