ঢাকা, বুধবার, ১০ বৈশাখ ১৪৩১, ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ১৪ শাওয়াল ১৪৪৫

রাজনীতি

নির্বাচনে বিদেশি হস্তক্ষেপ-ষড়যন্ত্র করতে দেওয়া হবে না

ডিপ্লোম্যাটিক করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮৫৬ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১১, ২০২২
নির্বাচনে বিদেশি হস্তক্ষেপ-ষড়যন্ত্র করতে দেওয়া হবে না

ঢাকা: পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন বলেছেন, আগামী জাতীয় নির্বাচনে বিদেশি হস্তক্ষেপ ও অভ্যন্তরীণ ষড়যন্ত্র করতে দেওয়া হবে না। সরকার ভোটের অধিকার রক্ষায় প্রতিজ্ঞাবদ্ধ।

রোববার (১১ ডিসেম্বর) রাজধানীর ফরেন সার্ভিস একাডেমিতে এক আলোচনা সভায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

আন্তর্জাতিক মানবাধিকার দিবস উপলক্ষে এই সেমিনারের আয়োজন করে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, বর্তমান সরকার মানবাধিকার, ন্যায় বিচার, মত প্রকাশ রক্ষায় প্রতিজ্ঞাবদ্ধ। আওয়ামী লীগ সুষ্ঠু নির্বাচনে বিশ্বাসী। আমরা ভোটের অধিকার রক্ষায়ও প্রতিজ্ঞাবদ্ধ।

তিনি যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্যের মানবাধিকার পরিস্থিতি নিয়েও সমালোচনা করেন।

ড. মোমেন আরও বলেন, বাংলাদেশে কোনো কোনো এনজিও রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে প্রণোদিতভাবে মানবাধিকার প্রতিবেদন প্রকাশ করে থাকে। তাদের অনেক তথ্য সঠিক নয়।

সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক বলেন, মানবাধিকার রক্ষার বিষয়টি ফোকাস করছে সরকার। এ লক্ষ্যে অনেক উদ্যোগও নিয়েছে সরকার। আমরা মানবাধিকার রক্ষা ও কল্যাণে সচেষ্ট। মানবাধিকারকে মূল্য দেই বলেই রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিয়েছি।

তিনি বলেন, জনগণের অধিকার রক্ষায় মুক্ত ও অবাধ নির্বাচন আয়োজনে সরকার প্রতিজ্ঞাবদ্ধ।

সেমিনারে মূল প্রবন্ধে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম বলেন, বাংলাদেশ সাংবিধানিকভাবেই মানবাধিকার ও মৌলিক অধিকারের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। দারিদ্র্য হ্রাস, শিশুশ্রম নির্মূল, সামাজিক নিরাপত্তার ক্ষেত্রে সরকার সচেষ্ট।

তিনি বলেন, জাতিসংঘ বাংলাদেশের বিরুদ্ধে ৭৬টি গুম নিয়ে অভিযোগ করেছে। এর মধ্যে ১০ জনের খোঁজ পাওয়া গেছে। আর একটি অভিযোগ ২৮ বছরের পুরনো, যখন আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় ছিল না।

সেমিনারে আরও বক্তব্য রাখেন জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান ড. কামাল উদ্দিন আহমেদ, বিলিয়ার পরিচালক অধ্যাপক ড. মিজানুর রহমান, রাষ্ট্রদূত আব্দুল হান্নান, বাংলাদেশ নারী প্রগতি সংঘের নির্বাহী পরিচালক রোকেয়া কবির।

বাংলাদেশ সময়: ১৮৩৩ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১১, ২০২২
টিআর/এমএমজেড

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।