ঢাকা, সোমবার, ৯ কার্তিক ১৪২৮, ২৫ অক্টোবর ২০২১, ১৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

অলিম্পিক

প্রিয় ইভেন্টে হেরে গেলেন ফেলপস

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১২২৬ ঘণ্টা, আগস্ট ১৩, ২০১৬
প্রিয় ইভেন্টে হেরে গেলেন ফেলপস

ঢাকা: অবশেষে থামতে হলো বিশ্বসেরা সাঁতারু মাইকেল ফেলপসকে। তাও আবার নিজের প্রিয় ইভেন্ট ১০০ মিটার বাটারফ্লাইয়ে।

যুক্তরাষ্ট্রের তারকাকে পেছনে ফেলে অলিম্পিকের নতুন রেকর্ড গড়েন সিঙ্গাপুরের জোসেফ স্কুলিং। স্কুলিং এবারের অলিম্পিকে সিঙ্গাপুরকে প্রথম স্বর্ণের দেখা পাইয়ে দিলেন।

২১ বছর বয়সী স্কুলিং স্বর্ণ জিততে ৫০.৩৯ সেকেন্ড সময় নেন। যার আগের রেকর্ডটি ছিল ফেলপসেরই। আর রুপা পাওয়া ফেলপস দ্বিতীয় হয়েছেন আরও দু’জনকে নিয়ে। ৫১.১৪ সেকেন্ড সময় নিয়ে দক্ষিণ আফ্রিকার চ্যাড লে ক্লজ ও হাঙ্গেরির লাজলো চেহও রুপা পেয়েছেন।

এর আগে রিও অলিম্পিকে অবিশ্বাস্য কীর্তি প্রদর্শন করেন যুক্তরাষ্ট্রের ‘জলদানব’ মাইকেল ফেলপস। টানা চার আসরে ২০০ মিটার মিডলেতে সেরার আসনে বসার অনন্য রেকর্ড গড়েন ৩১ বছর বয়সী এ সাঁতারু।

এর মধ্য দিয়ে অলিম্পিকে নিজের ২২তম স্বর্ণপদক নিশ্চিত করেছিলেন ফেলপস। বিশ্বের সবচেয়ে বড় ক্রীড়াযজ্ঞের ইতিহাসে ব্যক্তিগত ইভেন্টে আর কোনো সাঁতারুর টানা চারবার স্বর্ণ জয়ের অর্জন নেই।

লন্ডনের (২০১২) পর রিও অলিম্পিকেও চারটি স্বর্ণ জিতে নিয়েছেন অবসর ভেঙে ফেরা ফেলপস। দু’টি ব্যক্তিগত ও দু’টি দলীয় ইভেন্টে। সতীর্থদের সঙ্গে ৪০০ মিটার ফ্রি-স্টাইল রিলেতে প্রথম স্বর্ণ গলায় ঝোলান। এর মধ্য দিয়ে প্রথম সাঁতারু হিসেবে চারটি আসরে স্বর্ণ জেতার নজির স্থাপন করেন। পরে ২০০ মিটার বাটারফ্লাই ও ৮০০ মিটার ফ্রি-স্টাইল রিলেতেও (দলীয়) শেষ হাসি হাসেন।

৩১ বছর বয়সী ফেলপসের রিও অলিম্পিকে দুটি ব্যক্তিগত ও দুটি দলীয় সোনা জেতা হয়েছে। লন্ডনে গত অলিম্পিকেও চারটি সোনার পদক গলায় ঝুলিয়েছিলেন তিনি। এর আগে ২০০৪ সালে এথেন্সে ৬টি আর বেইজিংয়ে আটটি সোনা জেতেন সর্বকালের সেরা এই অলিম্পিয়ান।

বাংলাদেশ সময়: ১২১৮ ঘণ্টা, ১৩ আগস্ট, ২০১৬
এমএমএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa