ঢাকা, শনিবার, ১৫ মাঘ ১৪২৮, ২৯ জানুয়ারি ২০২২, ২৫ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

অফবিট

গালে চড় দিতে নারীকর্মী নিয়োগ!

অফবিট ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১১০২ ঘণ্টা, নভেম্বর ১৩, ২০২১
গালে চড় দিতে নারীকর্মী নিয়োগ!

নিজের গালে চড় দেওয়ার জন্য নারীকর্মী নিয়োগ! এমন কথা আগে কখনও শুনেছেন? ভুল পড়েননি তো? তাহলে অবার পড়ুন? এমনই এক কাণ্ডই ঘটিয়েছেন এক ব্যবসায়ী। তাকে চড় দেওয়ার জন্য একজন নারীকর্মীকে রীতিমতো মোটা অংকের বেতন দিয়ে নিয়োগ করলেন তিনি।

এ ঘটনায় মজা পেয়েছেন নেটিজেনরা, প্রশংসাও করছেন অনেকে। কেন প্রশংসা? ব্যাপারটা কী?

আসলে কাজে বেশি করে মন দিতেই অভিনব এই উপায় বের করেছেন ভারতীয় বংশোদ্ভূত এক মার্কিন নাগরিক। তার সমস্যা হলো, তিনি ফেসবুকের আসক্তি কাটিয়ে কাজে মগ্ন থাকতে চাইতেন। তাতেই নষ্ট হয় অনেকটা সময়। ক্ষতি হয় কাজের। এটা যাতে না হয়, সেই ব্যবস্থা করতেই তিনি যখন ফেসবুক খুলবেন তখন যেন তাকে কেউ চড় দেন। এজন্য সেই দায়িত্ব দিয়েছেন এক নারীকে।  

পরিধানযোগ্য ডিভাইস ব্র্যান্ড পাভলোকের সিইও মনীশ শেঠি। কর্মব্যস্ত মানুষ তিনি। এদিকে তিনি যখন অফিসে এসে কাজের জন্য ল্যাপটপে খুলেন ঠিক তখনই অভ্যাসবশত মন চলে যাচ্ছিল ফেসবুকে। অনেক ভেবে নিজেই এই সমস্যার সমাধানের উপায়ও বের করে ফেলেন তিনি।

২০১২ সালে ক্রেইজলিস্ট নামে একটি শ্রেণিবদ্ধ বিজ্ঞাপনের ওয়েবসাইটে চড় মারার চাকরির জন্য আবেদন চেয়ে একটি বিজ্ঞাপন দেন মনীশ। সেই বিজ্ঞাপনে কাজও দেয়। চাকরি প্রার্থনা করে আবেদন করেন কারা নামে এক নারী। এখন কারাই মনীশকে চড় দেওয়ার দায়িত্বে আছেন। এজন্য রীতিমতো মোটা পাইনে পান কারা। মাইনে হলো, ঘণ্টায় ৮ ডলার। ভারতীয় মুদ্রায় যা প্রায় সাড়ে ৫শ টাকার কাছাকাছি।

মনীশের দাবি, অভিনব উপায় বন্দোবস্তে কাজ হয়েছে। এখন ফেসবুকে কম থাকেন তিনি, কাজে সময় দেন বেশি। সংস্থার কর্মী হিসেবে তার উৎপাদন ক্ষমতা বেড়ে গেছে ৩৫ থেকে ৮০ শতাংশ অবধি। ফলে যিনি তাকে চড় মারেন, সেই কারার কাছে কৃতজ্ঞ তিনি।

বাংলাদেশ সময়: ১১০১ ঘণ্টা, নভেম্বর ১৩, ২০২১
এএটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa