bangla news

কাঁচা মাংস ভক্ষণকারীর মস্তিষ্ক-বুকে মিললো ৭শ’ ফিতাকৃমি!

অফবিট ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-১১-২২ ৫:২৩:৩১ পিএম
ছবি- প্রতীকী

ছবি- প্রতীকী

পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা ও স্বাস্থ্যবিধি জীবনের খুব গুরুত্বপূর্ণ একটি অংশ। এসবের অভাবে যে কোনো সময় বিপন্ন হতে পারে যে কারো জীবন। 

প্রায়ই মানুষের শরীরে নখ, সূচ, পয়সাসহ অস্বাভাবিক বিভিন্ন জিনিসের সন্ধান পান চিকিৎসকরা। কিন্তু সম্প্রতি চীনে এক ব্যক্তির শরীরে এমন কিছু মিলেছে যা শুনলে পাঠক শিউরে উঠবেন। 

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম বলছে, কিছুদিন আগে প্রচণ্ড মাথা ও বুক ব্যথায় আক্রান্ত হন ঝু ঝং-ফা নামে পূর্ব চীনের হাংঝু অঞ্চলের ৪৩ বছর বয়সী এক ব্যক্তি। প্রায় মাসখানেক ওই অবস্থা চলতে থাকলে শেষমেশ নিরুপায় হয়ে ঝেজিয়াং প্রদেশের চিকিৎসক ওয়াং জিয়ান-রং-এর শরণাপন্ন হন ঝু ঝং-ফা।     

ওই ব্যক্তি ভাবতেও পারেননি যে এই হাসপাতালে যাওয়া তার জীবনে সবচেয়ে বড় ধাক্কা বয়ে আনবে। প্রাথমিক স্বাস্থ্যপরীক্ষায় ভয়াবহ এক তথ্য বেরিয়ে আসে। জানা যায়, ঝু ঝন ব্যাপকমাত্রায় পরজীবী ফিতাকৃমিবাহিত টাইনায়াসিস রোগে ভুগছেন।

পরবর্তীতে রোগীর সারা শরীরে পরীক্ষা চালিয়ে দেখা যায়, তার মস্তিষ্ক, বুক ও ফুসফুসে বিপুল পরিমাণ ফিতাকৃমি বাসা বেঁধেছে।
   
চীনভিত্তিক সংবাদমাধ্যম পিয়ার-এ এক সাক্ষাৎকারে চিকিৎসক ওয়াং বলেন, ঝু ঝং-ফা’র  মস্তিষ্ক, বুক ও ফুসফুসে ৭শ’ ফিতাকৃমি পাওয়া গেছে। তার মস্তিষ্কে কৃমিজনিত ক্ষতের সৃষ্টি হয়েছে। বিপুল পরিমাণ কৃমিতে ভরে গেছে ফুসফুস ও বুকের পেশী। তার বেশিরভাগ অঙ্গপ্রত্যঙ্গেই ফিতাকৃমির সংক্রমণ ঘটেছে। 

চিকিৎসক জানান, কাঁচা মাংস খাওয়ার ফলেই ব্যাপক মাত্রায় এ রোগে আক্রান্ত হয়েছেন ঝু ঝং-ফা। তিনি মাংস খাওয়ার সময় কোনোভাবে কৃমির জীবন্ত ডিম থেকে  গিয়েছিল। তা থেকেই এ সংক্রমণ হয়। কেউ যদি কাঁচা মাংস খায়, তবে তার শরীরে ফিতাকৃমি প্রবেশ করে বিভিন্ন রকম অসুখ তৈরি করতে পারে।  

বাংলাদেশ সময়: ১৭২০ ঘণ্টা, নভেম্বর ২২, ২০১৯ 
এইচজে 

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

অফবিট বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত

Alexa
cache_14 2019-11-22 17:23:31