bangla news

মিললো ৩১০ বছরের পুরনো বেহালা, উচ্ছ্বসিত বাদক

অফবিট ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-১১-০৪ ৯:০২:৪৪ এএম
হারানো বেহালা ফিরে পেয়ে উচ্ছ্বসিত বাদক স্টিফেন মরিস। ছবি: সংগৃহীত

হারানো বেহালা ফিরে পেয়ে উচ্ছ্বসিত বাদক স্টিফেন মরিস। ছবি: সংগৃহীত

ঢাকা: পেশাদার বেহালা বাদক স্টিফেন মরিসের সবসময়ের সঙ্গী ছিল ৩১০ বছরের পুরনো একটি বেহালা। প্রিয় এ বেহালা নিয়েই তিনি অংশ নিয়েছেন ডেভিড বোয়ি ও স্টিভ ওয়ান্ডারের মতো তারকাদের সংগীতানুষ্ঠানে। এছাড়া লর্ড অব দ্য রিংস ও জেমস বন্ডের মতো চলচ্চিত্রের সাউন্ডট্র্যাকেও বাজিয়েছিলেন এ বেহালাটিই।

কিন্তু লন্ডন থেকে অরপিংটন যাওয়ার পথে তাড়াহুড়োয় ভুল করে প্রিয় এ বেহালাকে ট্রেনে ফেলে আসেন তিনি। গত ২২ অক্টোবর সার্বক্ষণিক এ সঙ্গীকে হারিয়ে পাগলপ্রায় হয়ে যান ৫১ বছর বয়সী এ বাদক।

লন্ডনের সিডেনহামে বসবাসকারী এ বাদক জানিয়েছেন, বেহালাটি হারানোর পর ওই রাতে তিনি শান্তিতে ঘুমোতেও পারেননি।

মধ্যযুগের বিখ্যাত কারিগর ডেভিড ট্যাকলার লিওটারো ১৭০৯ সালে বেহালাটি তৈরি করেছিলেন। দু’লাখ ৫০ হাজার ব্রিটিশ পাউন্ড (দু’কোটি ৭৪ লাখ টাকা) মূল্যের এ বেহালাটির গায়ে খচিত রয়েছে প্রস্তুতকারীর নামও।

প্রিয় এ বেহালাটি পেতে সম্ভাব্য সব উপায়ে চেষ্টা করতে থাকেন স্টিফেন মরিস।
বেহালায় খচিত প্রস্তুতকারীর নাম। ছবি: সংগৃহীতব্রিটিশ ট্রান্সপোর্ট পুলিশ (বিটিপি) পরে এক সিসিটিভি ফুটেজ থেকে বেহালাটি নেওয়া সম্ভাব্য ব্যক্তির ছবি প্রকাশ করে এবং সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে তাকে যোগাযোগের জন্য আহ্বান জানায়।

৩১ অক্টোবর ছিল স্টিফেন মরিসের জন্য বিস্ময়কর দিন। ওই দিন সরাসরি তাকেই টুইটারে মেসেজ দিয়ে এক ব্যক্তি জানায়, প্রকাশিত ছবির ব্যক্তিটি তার পরিচিত। বেহালাটি ফেরত পেতে তিনি সাহায্য করতে চান।

পরে যোগাযোগের মাধ্যমে নিশ্চিত হওয়া যায়, যোগাযোগকারী ব্যক্তিই মূলত বেহালাটি নিয়েছিলেন।

নিজেকে জেন বলে পরিচয় দেওয়া এ ব্যক্তি মরিসের সঙ্গে পরদিন (১ নভেম্বর) সন্ধ্যায় বেকেনহাম রেলস্টেশনের কাছেই অবস্থিত ওয়েটরস গাড়ি পার্কিয়ের স্থানে দেখা করতে সম্মত হন।

শুক্রবার সন্ধ্যায় নির্ধারিত স্থানে আগে থেকেই সাদা পোশাকে অবস্থান নেয় পুলিশ।ফিরে পাওয়া ওই বেহালা বাজাচ্ছেন স্টিফেন মরিস। ছবি: সংগৃহীতস্থানীয় সময় রাত ১০টার কিছু পরে ২৫ থেকে ২৯ বছর বয়সী এক যুবক এসে নিজেকে জেন বলে পরিচয় দেন। স্টিফেন মরিসকে তার বেহালা ফিরিয়ে দিয়ে বারবার ক্ষমা চাইতে থাকেন তিনি।

শেষে স্টিফেন মরিস তাকে ক্ষমা করে দেওয়ায় পুলিশ তার বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নেয়নি।

মরিস বলেন, ‘তিনি অনুতপ্ত ছিলেন। তিনি আমাকে জানান, একান্ত ব্যক্তিগতভাবেই তিনি আমাকে তা ফেরত দিতে চেয়েছিলেন।’

বিটিপি জানায়, বেহালার মালিকের সঙ্গে যোগাযোগের দায়িত্ব নিয়ে তা ফেরত দেওয়ায় তারা ওই ব্যক্তির বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নেয়নি।

এদিকে নিজের প্রিয় বেহালাটি ফিরে পেয়ে উচ্ছ্বসিত বাদক স্টিফেন মরিস।

বাংলাদেশ সময়: ০৯০০ ঘণ্টা, নভেম্বর ০৪, ২০১৯
এবি/এসএ

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

অফবিট বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত

Alexa
cache_14 2019-11-04 09:02:44