ঢাকা, শুক্রবার, ৯ আশ্বিন ১৪২৭, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৬ সফর ১৪৪২

অফবিট

মোবাইলের বিল বাড়িয়ে দিল ঈগল!

অফবিট ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭৩২ ঘণ্টা, নভেম্বর ১, ২০১৯
মোবাইলের বিল বাড়িয়ে দিল ঈগল! ছবি: সংগৃহীত

ঈগলের গায়ে ট্রান্সমিটার লাগিয়ে তথ্য সংগ্রহের কাজ করছিলেন রাশিয়ার কিছু বিজ্ঞানী। ট্রান্সমিটারের কারণে ঈগলগুলো যেখানেই উড়ে যায়, স্যাটেলাইটের ব্যবহার করে সেখানকার ছবি ও তথ্য এসএমএসের মাধ্যমে পেয়ে যেতেন বিজ্ঞানীরা। এই কাজে ব্যবহার করা হয় স্টেপে ঈগল, যেগুলো একটানা বহুদূর উড়তে পারে। 

আর ঝামেলা হয় সেখানেই। ঈগলগুলো দেশের সীমারেখা পেরিয়ে উড়ে চলে যায় ইরান ও পাকিস্তানে।

তবে, সেখানে যাওয়ার পরও নিয়মিত এসএমএস পেতে লাগলেন বিজ্ঞানীরা। কারণ ঈগলের গায়ে ব্যবহৃত সিমগুলোতে রোমিং এসএমএস সার্ভিস চালু ছিল। এতে বড় অংকের অর্থ খরচ হতে লাগলো সিমগুলো থেকে।

বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়, কাজাখস্তানের উদ্দেশে ঈগলটিকে ছাড়া হলেও সেটি চলে যায় ইরানে। যেখানে কাজাখস্তানে প্রতিটি এসএমএস ১৫ রুবল (১৯.৮৭ টাকা) করে খরচ হওয়ার কথা, সেখানে ইরানে চার্জ বেশি হওয়ায় প্রতি এসএমএসে যাচ্ছিল ৪৯ রুবল (৬৪.৯১ টাকা)। একারণে রাশিয়ার মেগাফোন অপারেটরে বিজ্ঞানীদের নামে যোগ হয়ে যায় বড় অংকের টাকা।  

যদিও এটি অনাকাঙ্ক্ষিত হওয়ায় তাদের নামে হওয়া বিল মাফ করে দেয় মোবাইল অপারেটর মেগাফোন।  

স্টেপে ঈগল মূলত সাইবেরিয়া ও কাজাখস্তানের পাখি। এরা জাতে পরিযায়ী পাখি। শীতে খাদ্যের সন্ধানে এসব ঈগল পৃথিবীর নানা দেশ ঘুরে বেড়ায়। তাই, গবেষণার জন্য এ ঈগলগুলোকেই চিহ্নিত করেন নভোসিবিরস্কের বন্যপ্রাণী পুনর্বাসন কেন্দ্রের বিজ্ঞানীরা।  

ঈগলগুলোর গায়ে থাকা ট্রান্সমিটার ও স্যাটেলাইটের সাহায্যে তথ্য সংগ্রহ করতেন তারা। একাজে মোট ১৩টি ঈগলকে ব্যবহার করা হয়। মেগাফোন তাদের বিল ও ক্ষতিপূরণের অর্থ মাফ করে দেওয়ায় তারা আবারও নিশ্চিন্তে গবেষণা চালিয়ে যেতে পারবেন।  

বাংলাদেশ সময়: ১৩৩২ ঘণ্টা, নভেম্বর ০১, ২০১৯
কেএসডি/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa