bangla news

ডোনাল্ড ট্রাম্পের কাণ্ডজ্ঞান!

অফবিট ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৪-২১ ৮:৫৩:৫৫ পিএম
মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প, ছবি: সংগৃহীত

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প, ছবি: সংগৃহীত

ঢাকা: গালিগালাজ পরে, বললে প্রথমেই দম ফাটিয়ে হাসবেন নিশ্চিত- মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন, শ্রীলঙ্কায় বোমা হামলায় ১৩৮ মিলিয়ন মানুষ নিহত হয়েছেন; যেখানে দেশটিতে জনসংখ্যাই মাত্র ২১ মিলিয়ন। আর হামলাটিতে মারা গেছেন এ পর্যন্ত ২০৭ জন।

যদিও ট্রাম্পের বেলায় এটা নতুন নয়, রাজনীতির ভেতরে-বাইরে নিজের ‘কাণ্ডজ্ঞানের’ পরিচয় দিয়ে বারবার তুমুল হাস্যকর পরিস্থিতিতে পড়েছেন তিনি। অনেককে অকপটে অবাকও করে দিয়েছেন বিশ্ব রাজনীতির কেন্দ্র যুক্তরাষ্ট্রের মতো দেশের সরকার প্রধান হয়ে।

সংবেদনশীল একটি তথ্য কেনো দায়িত্বশীল কারও কাছ থেকে বিভ্রান্তির সৃষ্টি করবে- এর জেরে ‘যে ব্যক্তি নিজের বাবার জন্মস্থান ঠিকভাবে বলতে পারেন না, সে ব্যক্তি এমন উদ্ভট টুইট করতেই পারেন, যুক্তরাষ্ট্রের মতো দেশের প্রেসিডেন্ট কীভাবে এতো ‘উদাসীন’ হতে পারেন’ এ কী প্রেসিডেন্টের ‘কাণ্ডজ্ঞান’, রাজনীতিতে বিতর্ক আর হাসি যেখানে, সেখানেই ডোনাল্ড ট্রাম্প! এমন মন্তব্য ছড়িয়ে পড়েছে বিভিন্ন মাধ্যমে।

রোববার (২১ এপ্রিল) শ্রীলঙ্কার গির্জা আর হোটেলে সিরিজ বোমা হামলায় ২০৭ জন নিহত হওয়ার পর বিশ্বনেতারা এর নিন্দা জানাচ্ছেন। এর ধারাবাহিকতায় নিন্দা জানিয়েছেন ট্রাম্পও। সবকিছু ঠিকঠাকই ছিল, কিন্তু তার বার্তাটি ছিল ভুল। তা-ও ছোটখাটো কোনো ভুল নয়, যেখানে মারা গেছেন ২০৭ জন, সেখানে তিনি বলেছেন, ১৩৮ মিলিয়ন মানুষ। এমন সংবেদনশীল বড় ভুলের জন্য নতুন করে আবার হাসির খোরাক হলেন ট্রাম্প।ডোনাল্ড ট্রাম্পের সেই টুইট কপিঘটনাটির নিন্দা জানিয়ে ট্রাম্প সে টুইটে এভাবেই লিখেছিলেন, শ্রীলঙ্কায় গির্জা ও হোটেলে ভয়াবহ বিস্ফোরণে ১৩৮ মিলিয়ন মানুষ নিহত এবং ৬০০ জন আহত হওয়ার ঘটনা একটি সন্ত্রাসী হামলা। যুক্তরাষ্ট্র নিহতদের প্রতি শোক প্রকাশ করছে। একইসঙ্গে শ্রীলঙ্কার কোনো সহায়তায় আমরা প্রস্তুত রয়েছি।

পরে অবশ্য সেই টুইট এডিট করে ১৩৮ জন মানুষ মারা গেছেন বলে উল্লেখ করেন ট্রাম্প। যদিও এ সময়টার ভেতরেই ব্যাপক ছড়িয়ে পড়ে তার এই ভুল টুইটটি।

আরও পড়ুন>> বাবার জন্মস্থান জানেন না প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প!

বাংলাদেশ সময়: ২০৪৮ ঘণ্টা, এপ্রিল ২১, ২০১৯
টিএ

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   ডোনাল্ড ট্রাম্প যুক্তরাষ্ট্র
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-04-21 20:53:55