bangla news

গ্রহাণুর হানায় পাল্টে গেছে চাঁদের মুখ 

অফবিট ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৬-১০-১৮ ২:৪০:০১ পিএম

মহাকাশ থেকে ছুটে আসা অসংখ্য পাথরের ঘায়ে পাল্টে গেছে চাঁদের মুখ। আর তা ঘটেছে ৮১ হাজার বছর পর। 

মহাকাশ থেকে ছুটে আসা অসংখ্য পাথরের ঘায়ে পাল্টে গেছে চাঁদের মুখ। আর তা ঘটেছে ৮১ হাজার বছর পর। 

নাসা তার নতুন গবেষণায় দেখেছে, আগে যেমনটা ভাবা হয়েছিলো, তার চেয়ে অন্তত একশ’ ভাগ কম সময়ের ব্যবধানে এ আঘাত সইতে হচ্ছে চাঁদকে। 
 
একেকবার যখন এমন আঘাত আসে, তখন চাঁদের চেহারাটাই পাল্টে যায়। এতে চাঁদের পিঠে এক ইঞ্চি পরিমাণ ক্ষয় হয়। মূলত চাঁদের ওপরে ধূলিময় অংশটুকু তার অস্তিত্ব হারায়।
 
গবেষকরা আরও দেখেছেন, মহাকাশের গ্রহাণু ও ধুমকেতুগুলো যখন পৃথিবীর এই একমাত্র উপগ্রহের গায়ে আঘাত হানে, তখন প্রতিবারে গড়ে ১৮০টি করে নতুন গর্ত তৈরি হয়। যার কোনো কোনোটির পরিধি ১০ মিটার পর্যন্ত বড় হয়। 
 
ন্যাচার জার্নালে প্রকাশিত গবেষণাপত্রে এসব তথ্য তুলে ধরা হয়েছে। এতে ২০০৯ সাল থেকে নাসা চাঁদের যে ম্যাপিং করছে, তাতে চন্দ্রপৃষ্ঠের পূর্বাপরের অবস্থা বিশ্লেষণ করা হয়।  
 
যুক্তরাষ্ট্রের অ্যারিজোনা বিশ্ববিদ্যালয়ের এমারসন স্পেরারের নেতৃত্বে মহাকাশ বিজ্ঞানীদের একটি দল নিয়মিত বিরতিতে চন্দ্রপৃষ্ঠের একই এলাকার ওপর নজর রাখছিল। এ সময়কালের মধ্যে তারা চাঁদের পিঠে অসংখ্য নতুন নতুন ক্ষত হতে দেখেছেন।
 
গবেষকরা জানান, এ সময়ে তারা ২২টি নতুন ক্ষত দেখেছেন, যা সাধারণ হিসাবের চেয়ে ৩৩ শতাংশ বেশি। আর কোনো কোনো ক্ষতের পরিধি ১০ মিটারের সমান বড়।
 
এছাড়া হাজার হাজার ছোট ছোট ক্ষত তারা চন্দ্রপৃষ্ঠে দেখতে পেয়েছেন।
 
একই ধরনের আঘাত পৃথিবীর গায়েও পড়ে। তবে পৃথিবীর অত্যন্ত পুরু আবহমণ্ডলের কারণে তা ক্ষতি সাধনে ব্যর্থ হয়- জানান বিজ্ঞানীরা।
 
প্রতিদিন ১০০ টন ধূলি কিংবা বালুর মতো বস্তু পৃথিবীর ওপর এসে পড়ে। এমনকি ২৫ মিটার পরিধির পাথরের টুকরোও আঘাত হানে। কিন্তু পুরু আবহমণ্ডলে এসে তা চূর্ণ-বিচূর্ণ হয়ে যায়। ফলে পৃথিবী কোনো ক্ষতির মুখে পড়ে না বলেও জানিয়েছে নাসা। 
 
কিন্তু চাঁদের আবহমণ্ডল অত্যন্ত পাতলা। পৃথিবীর সমুদ্রপৃষ্ঠে প্রতি ঘন সেন্টিমিটারে বিলিয়ন বিলিয়ন অণু রয়েছে। চাঁদের প্রতি ঘন সেন্টিমিটারে তার সংখ্যা মাত্র ১০০টি। ফলে মহাকাশে ভীষণই বিপন্ন এই চাঁদ।
 
বাংলাদেশ সময়: ০০৩৮ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৯, ২০১৬
এমএমকে/এএসআর  
 

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

অফবিট বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত

Alexa
cache_14 2016-10-18 14:40:01