ঢাকা, রবিবার, ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৮ নভেম্বর ২০২১, ২২ রবিউস সানি ১৪৪৩

নিউইয়র্ক

আটলান্টা মাতিয়ে গেলেন ফাহমিদা নবী

নিউজ ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৯৩৪ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২৭, ২০১৫
আটলান্টা মাতিয়ে গেলেন ফাহমিদা নবী

আটলান্টা, জর্জিয়া, যুক্তরাষ্ট্র: ডিসট্রেসড চিলড্রেন অ্যান্ড ইনফ্যান্ট ইন্টারন্যাশনাল (ডিসিআই), আটলান্টা চ্যাপ্টারের উদ্যোগে অনুষ্ঠিত হলো তহবিল সংগ্রহের জাঁকজমকপূর্ণ কনসার্ট।

স্থানীয় সময় গত ১৯ সেপ্টেম্বর (শনিবার) আটলান্টার বার্কমার হাইস্কুল মিলনায়তনে রাত ৮টায় শুরু হওয়া এ অনুষ্ঠানে এক ঝাঁক শিশু-কিশোরের মনোমুগ্ধকর পারফরম্যান্স আর জনপ্রিয় শিল্পী  ফাহমিদা নবীর গানের মূর্ছনায় এক ভিন্নমাত্রার দিক নির্দেশনা এনে দেয়।



‘চিলড্রেন ফর চিলড্রেন’ অথবা ‘অসহায় শিশুদের পাশে আমাদের শিশুরা’ শীর্ষক শ্লোগানে উজ্জীবিত হয়ে প্রথমবারের মতো বাংলাদেশের গরিব ও খেটে খাওয়া শিশুদের পাশে দাঁড়াতে নতুন প্রজন্মের প্রায় সত্তর জন শিশু-কিশোরের অংশগ্রহণে পরিবেশিত ছয়টি ভিন্ন ভিন্ন পর্বের মধ্য দিয়ে বৈচিত্র্যময় অসাধারণ গান, কবিতা, নৃত্য আর আলেখ্য দর্শক-শ্রোতাদের মন্ত্রমুগ্ধ করে রাখে।

কনসার্টের দায়িত্বপ্রাপ্ত তিন কর্মকর্তা উপদেষ্টা ডা. আজিজুল হক, অনুষ্ঠান পরিচালক গাইডেন হকিন্স ও আটলান্টা চ্যাপ্টারের সমন্বয়কারী ফারুখ আহমেদের সার্বিক পরিচালনা ও তত্ত্বাবধানে অনুষ্ঠানে অসংখ্য প্রবাসী বাংলাদেশি দর্শনার্থীর বিনিময়ে এবং ডোনেশন প্রদানের মাধ্যমে বাংলাদেশের অসহায় শিশুদের সুস্থ্য জীবন-যাপন ও পড়ালেখার মাধ্যমে বেড়ে উঠার তহবিল সংগ্রহে আশাব্যঞ্জক ভূমিকা রাখেন বলে জানা যায়।

জর্জিয়াবাংলা ডট কমের সম্পাদক রুমী কবির ও তার মেয়ে মনজিমা কবিরের যৌথ সঞ্চালনায় আয়োজিত অনুষ্ঠানে আটলান্টার ছয়টি সংগঠন ইমারজ টু কানেক্ট, দোলন চাঁপা, ছন্দে আনন্দে, বাংলাধারা, ড্যাফোডিলস ও জাগো জুনিয়র অংশগ্রহণ করে।

দ্বিতীয় পর্বে অনুষ্ঠানের মধ্যমণি বাংলাদেশের কিংবদন্তী শিল্পী প্রয়াত মাহমুদুন নবীর মেয়ে ফাহমিদা নবীর একক সংগীত মধ্যরাত পর্যন্ত দর্শক-শ্রোতাদের সুরের মূর্ছনায় আচ্ছন্ন করে রাখে।

কনসার্টের মধ্য পর্বে ডিসিআই ইন্টারন্যাশনালের প্রেসিডেন্ট ও ইয়েল ইউনিভার্সিটির ক্লিনিক্যাল প্রফেসর ব্রায়ান এম ডিব্রফ এমডি, এফএসিএস প্রধান অতিথি হিসেবে তার সারগর্ভ ভাষণ রাখেন। মি. ব্রায়ান এ সময় বাংলাদেশের দুঃস্থ শিশুদেরকে আদর্শ মানুষ হিসেবে সুশিক্ষায় শিক্ষিত হয়ে বড় হয়ে উঠার ডিসিআই পরিচালিত বিভিন্ন কর্মসূচির ব্যাখাপ্রদানসহ তার সাম্প্রতিক  বাংলাদেশ সফরের অভিজ্ঞতার কথা তুলে ধরেন।

এছাড়া ডিসিআই’র প্রতিষ্ঠাতা ও নির্বাহী পরিচালক এবং একই ইউনিভার্সিটির খণ্ডকালিন রিসার্চ প্রফেসর ডা. এহসানুল হক বাংলাদেশের সেবা প্রকল্পের এক স্পর্শকাতর বর্ণনা উপস্থাপন করেন।   

অনুষ্ঠানে শিল্পী ফাহমিদা নবীসহ অংশগ্রহণকারী ছয়টি সংগঠনের কো-অর্ডিনেটর এবং অনুষ্ঠান পরিচালক গাইডেন হকিন্স, অনুষ্ঠান কো-অর্ডিনেটর রোমেল খান, মঞ্চ কো-অর্ডিনেটর গোলাম মহিউদ্দিন, ধারা বিবরণীর রচয়িতা ও উপস্থাপক-সাংবাদিক রুমী কবির, প্রকাশিত স্মরণিকা সম্পাদক মাহবুবুর রহমান ভূঁইয়া, স্মরণিকার গ্রাফিক্স ডিজাইনার ও প্রডাকশন কর্মকর্তা সোহেল আহেমদ, নতুন প্রজন্মের উদ্বোধনী সংগীতের পরিচালক নাগিব হক প্রমুখ সংগঠকদেরকে প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে সম্মাননা ক্রেস্ট প্রদান করা হয়।

বাংলাদেশ সময়: ০৯৩৪ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২৭, ২০১৫
জেডএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa