ঢাকা, শনিবার, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ০৩ ডিসেম্বর ২০২২, ০৮ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

জাতীয়

মধ্যরাত থেকে ২২ দিন ইলিশ ধরা বন্ধ 

ছোটন সাহা, ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১১৩১ ঘণ্টা, অক্টোবর ৬, ২০২২
মধ্যরাত থেকে ২২ দিন ইলিশ ধরা বন্ধ 

ভোলা: ইলিশের প্রধান প্রজনন মৌসুমে মা ইলিশ সংরক্ষণের জন্য আজ বৃহস্পতিবার (৬ অক্টোবর)  রাত ১২টার পর থেকে ভোলার মেঘনা ও তেঁতুলিয়া নদীতে ২৮  অক্টোবর পর্যন্ত ২২ দিনের জন্য ইলিশ ধরা বন্ধ থাকবে।

এ সময় ইলিশ ধরা, বিক্রি, মজুদ, বাজারজাত ও পরিবহন নিষিদ্ধ থাকবে।

নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে জেলেরা যাতে নদীতে মাছ শিকার করতে না পারে সেজন্য নদীতে অভিযান পরিচালিত হবে।

এদিকে ইলিশ ধরা বন্ধ থাকায় বেকার হয়ে পড়বেন উপকূলের  দুই লক্ষাধিক জেলে। এতে চরম  অভাব-অনাটন আর অনিশ্চয়তার মধ্যে পড়ছেন তারা।  যদিও জেলে পুর্নবাসনের জন্য নিশেধাজ্ঞা সময়ে নিবন্ধিত জেলেদের জন্য ২০ কেজি করে চাল দেওয়া হবে। সরকারের বরাদ্দকৃত চাল যথা সময়ে পৌঁছানোর দাবি জেলেদের।  

ভোলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা জামাল হোসাইন বলেন, এখন ইলিশের প্রধান প্রজনন মৌসুম। তাই মা ইলিশ রক্ষায় আমাদের অভিযান চলবে। ৭ অক্টেবর থেকে ২৮ অক্টেবর পর্যন্ত ইলিশসহ সকল ধরনের মাছ ধরায় নিষেধাজ্ঞা। তবে এ সময়টায় নিবন্ধিত জেলেদের জন্য ২০ কেজি করে চাল দেওয়া হবে।

জেলেরা জানান, এ বছরই মার্চ-এপ্রিল দুই মাস মাছ ধরা বন্ধ থাকার পর ভরা মৌসুমেও ইলিশ পায়নি জেলেরা। যে মুহূর্তে জেলেদের জালে ইলিশ ধরা পড়তে শুরু করেছে তখনই নিষেধাজ্ঞা চলে আসায় সংকটে পড়েছেন উপকূলের জেলেরা।

তুলাতলী ঘাটের জেলে সিরাজ, মফিজল ও সোলাইমান বলেন, এ মৌসুমটা ইলিশ ছিল না, দুই দফা নিষেধাজ্ঞার পরেও নদীতে মাছ পড়েনি। অনেক জেলেই দেনায় জর্জরিত। যখন মাছ ধরতে শুরু করলো তখনই চলে এসছে নিষেধাজ্ঞা।

আড়তদার আজাদ বলেন, এ মৌসুমে জেলে-আড়তদার সবাই লোকসানে কাটিয়েছে।  

বাংলাদেশ সময়: ১১৩১ ঘণ্টা, অক্টোবর ০৬, ২০২২
এসআইএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa