ঢাকা, সোমবার, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ০৫ ডিসেম্বর ২০২২, ১০ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

জাতীয়

আইসিসিবিতে শুরু হলো বিয়ের মেলা

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২৩২৩ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২৯, ২০২২
আইসিসিবিতে শুরু হলো বিয়ের মেলা ইন্টান্যাশনাল কনভেনশন সিটি বসুন্ধরায় ওয়েডিং এক্সপো। ছবি: রাজীন চৌধুরী

ঢাকা: বাঙালি সংস্কৃতির সব থেকে উৎসবমুখর আয়োজনটি হলো বিয়ে। এ বিয়ে ঘিরে বিয়ের আগে ও পরে খাবার, পোশাক, গান-বাজনা, নাচ, আচার-অনুষ্ঠান সবকিছুর একটা বড় আয়োজন থাকে সবসময়ই।

সেদিক থেকে সংস্কৃতির একটি বড় সাংস্কৃতিক আয়োজনও বলা যায় বিয়ের উৎসবকে। আর এসবগুলো সংস্কৃতি এক ছাদের নিচে নিয়ে প্রথমবারের মতো শুরু হলো বিয়ের মেলা।

বৃহস্পতিবার (২৯ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় ইন্টান্যাশনাল কনভেনশন সিটি বসুন্ধরা (আইসিসিবি) প্রেজেন্টস বাংলাদেশ ওয়েডিং এক্সপো ২০২২; পাওয়ার্ড বাই বায়োজিন কসমেসিউটিক্যালস শুরু হয় আইসিসিবির হল রাজদর্শনে। রাতে এই আয়োজনের উদ্বোধন করেন পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী শামসুল আলম। এ আয়োজনে সহযোগিতা করছে সায়মান বিচ রিসোর্ট এবং রেনেসাঁস ডেকোর লিমিটেড।

মেলার প্রথম দিন সন্ধ্যায় সরেজমিন ঘুরে দেখা যায়, ৫০টি স্টলে জমে উঠেছে তিনদিনের এ বিয়ের মেলা। আইসিসিবি'র রাজদর্শন হলে আলোর ঝলকানি আর ফ্যাশন শো'র মধ্য দিয়ে পর্দা উঠে এ আয়োজনের। ধবধবে সাদা পাঞ্জাবি, সোনালি কটি, ধূসর শেরওয়ানি, গোলাপি পাগড়িতে বর সাজে নিজেদের মেলে ধরেন মডেলরা। কনে সাজে শাড়ি, লেহেঙ্গা, ভারী ওড়না পরে র্যা ম্পে হাঁটেন বউ সাজা রমণীরা। আর এ সাজের সঙ্গে নিজেদের বিয়ের সাজের পরিকল্পনা সেরে নিতে পারেন অনেকেই। কেন না দেশের নামিদামি ডিজাইনাররা নিজেদের পোশাক নিয়ে হাজির হয়েছেন এ মেলায়।

রাতে উদ্বোধনী বক্তব্যে প্রধান অতিথি বলেন, বাঙালি সংস্কৃতির সব থেকে উৎসবমুখর আয়োজনটি হলো বিয়ে। এবিয়ে ঘিরে বিয়ের আগে পরে খাবার, পোশাক, গান-বাজনা, নাচ, আচার-অনুষ্ঠান সবকিছুর একটা বড় আয়োজন। আর তা একসঙ্গে করা সত্যিই অনেক বড় বিষয়।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এ সময় মঞ্চে আরও উপস্থিত ছিলেন আইসিসিবির চিফ অপারেটিং অফিসার এম এম জসিম উদ্দিন, আয়োজক লিংক্স ইভেন্টসের সিইও নুযাত নাওয়ার, বায়োজিন-এর ডিরেক্টর (মার্কেটিং অ্যান্ড সেলস) কামরুল হাসান রনি, সাইমন বিচ রিসোর্টের ব্যবস্থাপক (সেলস অ্যান্ড মার্কেটিং) মো. আহসানুল হোসাইন। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এক্সপোর সব থেকে আকর্ষণীয় প্যাভিলিয়নের জন্য পুরস্কার দেওয়া হয় আইসিসিবিকে।

এদিকে বিয়ের মেলায় বিভিন্ন পণ্যে মিলছে বিশেষ ছাড়। ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটি বসুন্ধরা (আইসিসিবি) এ এক্সপোতে তাদের হল বুকিংয়ে দিচ্ছে বিশেষ ছাড়।  

এ বিষয়ে আইসিসিবির জেনারেল ম্যানেজার (অ্যাকাউন্ট অ্যান্ড ফিন্যান্স) এস এম মনিরুল ইসলাম পলাশ বলেন, এক্সপোতে আইসিসিবিতে বিয়ের জন্য হল বুকিং দিলে থাকছে ১৫ শতাংশ ছাড়। যার মেয়াদ ২০২৩ সাল পর্যন্ত। তবে আগামী ডিসেম্বর ও জানুয়ারি দুই মাস এ ছাড় থাকবে ১০ শতাংশ।

এক্সপোতে স্কিন কেয়ার নিয়ে কাজ করা বায়োজিন কসমেসিউটিক্যালস এনেছে বিশেষ ব্রাইড প্যাকেজ। তাদের চারটি প্যাকেজ ‘লীলাবতি’, ‘রূপবতী’, ‘কমলা সুন্দরী’ এবং ‘আনারকলি’ সাজানো হয়েছে ত্বকের যত্নের বিশেষ পরিচর্যা নিয়ে।  

এ বিষয়ে বায়োজিনের ম্যানেজমেন্ট ট্রেইনি অফিসার আফজা জানান, বিশেষ ছাড়ে ৪৫ থেকে ৯০ দিনের এ প্যাকেজগুলো পাওয়া যাবে ৪০ হাজার থেকে এক লাখ টাকার মধ্যে। এছাড়া বায়োজিনের সোশ্যাল মিডিয়ার পেইজ থেকে জানা যাবে আরও বিস্তারিত।

এক্সপো উপলক্ষে দুই রাত তিন দিনের বিশেষ হানিমুন প্যাকেজ এনেছে সায়ামন বিচ রিসোর্ট।  

এ বিষয়ে রিসোর্টের ব্যবস্থাপক (সেলস অ্যান্ড মার্কেটিং) মো. আহসানুল হোসাইন জানান, এক্সপো উপলক্ষে দুই রাত তিন দিনের হানিমুন প্যাকেজ দিচ্ছে সায়ামন বিচ রিসোর্ট। এতে থাকছে ক্যান্ডেল লাইট ডিনার, হানিমুন কেক, স্পেশাল লাঞ্চ। রুম ভেদে এ প্যাকেজটির মূল্য রাখা হয়েছে ১৯ হাজার ৯৯৯ টাকা থেকে ৩৩ হাজার ৩৩৩ টাকা। এছাড়া এক্সপোতে সাইমন বিচ রিসোর্টের প্যাভিলিয়নে ছবি তুলে তা নির্দিষ্ট হ্যাসট্যাগসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোস্ট করে লটারির মাধ্যমে জিতে নেওয়ার সুযোগ থাকছে আকর্ষণীও এ প্যাকেজটিও।

এক্সপোতে সব ধরনের ফার্নিচারে বিশেষ ছাড় দিচ্ছে ভিনটেজ ফার্নিচার।  

এ বিষয়ে ভিনটেজ ফার্নিচারের ডেপুটি ম্যানেজার (সেলস অ্যান্ড মার্কেটিং) বলেন, ফ্ল্যাট ২০ শতাংশ ডিসকাউন্ট থাকছে ভিনটেজের সব ফার্নিচারে। এছাড়া ফেয়ার উপলক্ষে সাজানো হয়েছে বিশেষ ওয়েডিং প্যাকেজ। এ প্যাকেজ সাজানো হয়েছে বেডরুম সেট, সোফাসেট এবং ডাইনিং টেবিল সেট দিয়ে। স্পেশাল এ প্যাকেজে ছাড় থাকছে ২৫ শতাংশ।
মেলায় গহনা থেকে শুরু করে পোশাক, মিষ্টি, কসমেটিকসের পসরা সাজিয়ে বসেছেন উদ্যোক্তারা। এস এম কালেকশনের নারী উদ্যোক্তা শিখা রহমান এসেছেন ভারতীয় এবং পাকিস্তানি থ্রি-পিস, ওড়না নিয়ে।  

তিনি বলেন, প্রতিষ্ঠান এবং পণ্যের পরিচিতি বাড়াতে ওয়েডিং এক্সপোতে অংশগ্রহণ করেছি। এখানে প্রদর্শনীর পাশাপাশি বিক্রিও চলছে। প্রথম দিনে ক্রেতা কিছুটা কম ছিল। আশা করছি আগামী দুদিনে গ্রাহক উপস্থিতি আরও বাড়বে।

আইসিসিবির চিফ অপারেটিং অফিসার এম এম জসিম উদ্দিন বলেন, আমরা বেশ ভালো সাড়া পেয়েছি ওয়েডিং এক্সপোতে। আইসিসিবিতে ওয়েডিং ইভেন্টসহ আন্তর্জাতিক অনেক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। ভবিষ্যতে আমরা আরও বড় পরিসরে আয়োজন করবো।

প্রথম দিন রাত ১০টা পর্যন্ত চলে মেলার কার্যক্রম। বেচা-কেনার পাশাপাশি শেষ সময় পর্যন্ত চলে র্যা ম্প শো। এতে সর্বশেষ অংশ নেন চিত্র নায়িকা ও মডেল বিদ্যা সিনহা মিম। আগামীকাল সকাল ১০টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত চলবে এ বিয়ের মেলা।

বাংলাদেশ সময়: ২৩২০ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২৯, ২০২২
এইচএমএস/আরআইএস
 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa