ঢাকা, শনিবার, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ১০ ডিসেম্বর ২০২২, ১৫ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

জাতীয়

অনলাইন প্রতারক চক্রের ফাঁদে রাজশাহীর যুবক!

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২৯ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২৯, ২০২২
অনলাইন প্রতারক চক্রের ফাঁদে রাজশাহীর যুবক!

রাজশাহী: অনলাইনে এক প্রতারক চক্রের ফাঁদে পড়ে অসহায় হয়ে পড়েছেন রাজশাহীর এক যুবক। এখন ওই চক্রের প্রতারণার মাশুল দিতে হচ্ছে তালাইমারী এলাকার আজম আলী নামের ওই যুবককে।

বৃহস্পতিবার (২৯ সেপ্টেম্বর) দুপুরে রাজশাহী সাংবাদিক ইউনিয়ন কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন লিখিত অভিযোগে করেন তিনি।

আজম আলী বলেন, গত এক মাসে অনলাইনে বিভিন্ন প্ল্যাটফর্মে তার কিছু ছবি এবং তার জাতীয় পরিচয়পত্রের ছবি ব্যবহার করে সারা দেশের বিভিন্ন মানুষের কাছে থেকে কয়েক লাখ টাকা মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে হাতিয়ে নিয়েছে একটি চক্র। এখনও তাদের প্রতারণা চলমান রয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে আজম আলী বলেন, বর্তমানে আমি অনলাইনে Fiverr.com প্ল্যাটফর্মে ডিজিটাল মার্কেটিংয়ের ওপরে কাজ শিখছি। গত ১০ আগস্ট একজন অজ্ঞাত ব্যক্তির সাথে অনলাইনের International Payment center BD ফেসবুক পেজ, যার মোবাইল নং ০১৩০৩৬০৬৯৮৭ এবং ইমেইল [email protected] এ যোগাযোগ হয়। অনলাইনে আমার কাজের জন্য অল্প কিছু ডলার কেনার ব্যাপারে তার সাথে চ্যাট এবং ওই পেজের নম্বরে কথা হয়। তিনি আমার কাছ থেকে কিছু ব্যক্তিগত ছবি, জাতীয় পরিচয়পত্রের ছবি, আমার বাবার জাতীয় পরিচয়পত্রের ছবি ও কিছু ব্যক্তিগত তথ্য চান।

পরবর্তীতে হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে (মোবাইল নম্বর ০১৯৬৪১৬৮২৫৭) আজম আলী তথ্য ও ছবি পাঠিয়ে দেন। কিন্তু ওই ব্যক্তি কৌশলে তার সরলতার সুযোগ নিয়ে আজমের সকল তথ্যসংগ্রহ করেন। এরপর তার সাথে যোগাযোগ বন্ধ করে দেন। এরপর আজম বুঝতে পারেন তিনি প্রতারিত হয়েছেন।

কয়েক দিন পর এটাও বুঝতে পারেন এটি একটি সংঘবদ্ধ প্রতারক চক্র। যারা তার নাম এবং ছবি ব্যবহার করে আরেকটি হোয়াটসঅ্যাপে নম্বর (০১৯৬৫৩৮৫৭৯৪) খোলে এবং তাদের প্রতারণার কাজে তার সকল তথ্য ব্যবহার করে। সেগুলো সাধারণ মানুষের কাছে পাঠিয়ে এখন পর্যন্ত প্রতারণা করছে।

একজন নারীর কাছ থেকে ওই চক্র মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে ১ লাখ ৭০ হাজার টাকা হাতিয়ে নিয়েছে। ঘটনাটি জানার পরই গত ১১ সেপ্টেম্বর রাতে রাজশাহীর বোয়ালিয়া মডেল থানায় সাধারণ ডায়েরি করেছেন আজম। এছাড়া আরএমপির সাইবার ক্রাইম ইউনিটকে বিষয়টি অবহিত করেছেন। র‍্যাব-৫ সদর দপ্তরেও লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন তিনি।

আজম জানান, সারা দেশ থেকে ভুক্তভোগী মানুষ তার সাথে প্রতারিত হওয়ার পর সশরীরে যোগাযোগ করছেন। এখন পর্যন্ত রাজশাহী, চট্টগ্রাম, নারায়াণগঞ্জ ও ঢাকার ৪ জনের কাছ থেকে ৬ লাখ ৩৬ হাজার টাকা হাতিয়ে নিয়েছে ওই চক্র। তাই এ ব্যাপারে সবাইকে সতর্ক থাকার জন্য অনুরোধ জানিয়েছেন তিনি।

বাংলাদেশ সময়: ২০২৯ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২৯, ২০২২
এসএস/এমজেএফ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa