ঢাকা, শুক্রবার, ১৪ আশ্বিন ১৪২৯, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

জাতীয়

মাছ নিয়ে দ্বন্দ্বে স্কুলছাত্রীকে হত্যার অভিযোগ 

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮২৬ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২২, ২০২২
মাছ নিয়ে দ্বন্দ্বে স্কুলছাত্রীকে হত্যার অভিযোগ 

নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে মরিয়ম আক্তার (১০) নামের এক স্কুলছাত্রীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তবে ওই শিক্ষার্থীর বাবার অভিযোগ, তার মেয়েকে হত্যার পর ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে।

বুধবার (২১ সেপ্টেম্বর) রাত ৮টার দিকে উপজেলার গোলাকান্দাইল নতুন বাজার এলাকার একটি বাসা থেকে ওই শিশুর মরদেহটি উদ্ধার করে পুলিশ।

নিহত মরিয়ম কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার জালিয়া এলাকার বাচ্চু মিয়ার মেয়ে এবং শাইলজান সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণীর ছাত্রী।

মরিয়মের বাবা বাচ্চু মিয়া জানান , তিনি একজন রিকশাচালক। গত চার মাস আগে তিনি রূপগঞ্জের গোলাকান্দাইল নতুন বাজার এলাকায় বাসা ভাড়া নেন। তার স্ত্রীও স্থানীয় একটি গার্মেন্টসে চাকরি করেন। কাজের তাগিদে তারা মরিয়মকে রেখে প্রতিদিন সকালে বের হন আবার রাতে বাসায় ফেরেন। মঙ্গলবার বাড়িওয়ালা মোমেন একতি বিলে মাছ ধরতে যান।  ওইখানে থেকে বাড়িওয়ালার মেয়ের সঙ্গে মাছ আনতে যায় মরিয়ম। এসময় মরিয়মের কাছ থেকে একটি মাছ পুকুরের পানিতে পড়ে যায়।  কিন্তু বাড়িওয়ালা ও তার পরিবার মাছ চুরি করা হয়েছে বলে শিশুটির ওপর দোষারোপ করে। বুধবার সন্ধ্যায় মরিয়মের ঝুলন্ত মরদেহ পাওয়া যায়।

মরিয়মের বাবা বাচ্চু মিয়ার বলেন, মাছ নিয়ে  দ্বন্দ্বের জেরেই আমার মেয়েকে হত্যার পর ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে।  

এ বিষয়ে বাড়িওয়ালা মোমেনের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করে তাকে পাওয়া যাযনি।

ভুলতা পুলিশ ফাঁড়ির সহকারী পরিদর্শক হুমায়ন কবির বলেন, খবর পেয়ে আমরা মরদেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নারায়ণগঞ্জ মর্গে পাঠিয়েছি। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন আসলে হত্যা না আত্মহত্যা বলা যাবে।

বাংলাদেশ সময়: ১৭২০ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২২, ২০২২
এমআরপি/ইআর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa