ঢাকা, রবিবার, ১৭ আশ্বিন ১৪২৯, ০২ অক্টোবর ২০২২, ০৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

জাতীয়

হত্যার অভিযোগে মামলায় কবর থেকে শিশুর মরদেহ উত্তোলন

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭২৮ ঘণ্টা, আগস্ট ১৩, ২০২২
হত্যার অভিযোগে মামলায় কবর থেকে শিশুর মরদেহ উত্তোলন

গাইবান্ধা : সাদুল্লাপুর উপজেলায় দাফনের একমাস পর হাছিম রায়হান (২) বছর বয়সী এক শিশুর মরদেহ উত্তোলন করা হয়েছে। সন্তানের মৃত্যুর পর মায়ের মামলায় শিশুর ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহটি তোলা হয়।

শনিবার (১৩ আগস্ট) দুপুরে উপজেলার ইদিলপুর ইউনিয়নের তাজনগর গ্রামের পারিবারিক কবরস্থান থেকে হাছিমের মরদেহ তোলা হয়। এ সময় জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ইফতেখার রহমানসহ পুলিশের একটি টিম উপস্থিত ছিল।

হাছিম রায়হান তাজনগর গ্রামের রুবেল সরদারের ছেলে ছিল। গত ১১ জুলাই স্বজনদের সঙ্গে বিয়ের দাওয়াত খেতে গিয়ে নিখোঁজ হয়েছিল সে। অনেক খোঁজাখুঁজির পর গত ১২ জুলাই বাড়ির পাশের একটি কুপে তার মরদেহ পাওয়া যায়। পরে স্বজনরা তাকে উদ্ধার করে সেদিন রাতেই পারিবারিক করবস্থানে দাফন করে।

সম্প্রতি হাছিমকে হত্যা করা হয়েছে দাবি করে গাইবান্ধা আদালতে মামলা করেন তার মা হোসনে মমতা তিথি। পরে আদালতের নির্দেশে শনিবার দুপুরে হাছিমের মরদেহ কবর থেকে উত্তোলন করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়।

এসব তথ্য নিশ্চিত করে সাদুল্লাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) প্রদীপ কুমার বলেন, আদালতের নির্দেশে মরদেহ উত্তোলন করা হয়েছে। শিশুটি হত্যা হয়েছে কিনা তা ময়নাতদন্ত রিপোর্টে নিশ্চিত হওয়া যাবে।

বাংলাদেশ সময় : ১৭২৮ ঘণ্টা, ১৩ আগস্ট, ২০২২
এমজে

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa