ঢাকা, বুধবার, ২ ভাদ্র ১৪২৯, ১৭ আগস্ট ২০২২, ১৮ মহররম ১৪৪৪

জাতীয়

স্বজনদের সামনেই পুড়ে মারা গেলেন নারী  

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১২৫ ঘণ্টা, আগস্ট ৬, ২০২২
স্বজনদের সামনেই পুড়ে মারা গেলেন নারী  

কুমিল্লা: ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের কুমিল্লার চান্দিনার কুটুম্বপুর বাসস্ট্যান্ড এলাকায় মাইক্রোবাসের চাকা বিস্ফোরিত হয়ে ইঞ্জিনে আগুন লেগে যায়। এসময় মাইক্রোবাসের অন্যসব যাত্রী ও চালক বের হতে পারলেও ফাতেমা বেগম (২৭) নামের একজন নারী আটকে পড়েন।

পরে মাইক্রোবাসেই চিৎকার করতে করতে পুড়ে মারা যান তিনি।

শনিবার (৬ আগস্ট) বেলা ১১টায় এ ঘটনা ঘটে।  

জানা গেছে, মাইক্রোবাসটি ঢাকার টঙ্গী থেকে নয় জন যাত্রী নিয়ে নোয়াখালীতে  যাচ্ছিল। সেখানে নিহত ফাতেমার ভাইয়ের শ্বশুর বাড়ি। কয়েকদিন আগেই তার ভাইয়ের বিয়ে হয়। ভাইয়ের সঙ্গে পরিবার নিয়ে যাচ্ছিলেন নোয়াখালী। কুটুম্বপুর আসলে গাড়ির চাকা ফেটে যায়। এসময় রাস্তায় উল্টে পড়ে গাড়িতে আগুন ধরে যায়। স্থানীয়দের সাহায্যে গাড়ির চালকসহ আটজন যাত্রী বের হতে পারলেও ফাতেমা বের হতে পারেননি। এসময় জ্বলন্ত গাড়িতে পরিবারের সামনেই পুড়ে মারা যান ফাতেমা। পরে ফায়ার সার্ভিসের লোকজন এসে আগুন নেভায়। ওই গাড়িতে ফাতেমার সদ্য বিবাহিত ভাইসহ পরিবারের আট জন সদস্য ছিল।  

ইলিয়টগঞ্জ হাইওয়ে পুলিশের ইনচার্জ প্রেমধন মজুমদার বলেন, মাইক্রোবাসটি আমাদের কাছেই আছে। নিহতের মরদেহ পরিবার নিয়ে গেছে। নিহত ফাতেমা বেগমের বাড়ি ফরিদপুর জেলায়। তারা গাজীপুরের টঙ্গী এলাকায় ভাড়া থাকেন। এ ঘটনায় একজন সামান্য আহত হয়েছেন। তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে বাড়ি পাঠানো হয়েছে।  

বাংলাদেশ সময়: ১৮০২ ঘণ্টা, আগস্ট ০৬, ২০২২
ইআর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa