ঢাকা, রবিবার, ২৯ শ্রাবণ ১৪২৯, ১৪ আগস্ট ২০২২, ১৫ মহররম ১৪৪৪

জাতীয়

কেএনএফ’র ভয়ে বড়থলীর রোয়াংছড়ি-রাজস্থলীতে ঠাঁই নিল ২৩ পরিবার

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০১০২ ঘণ্টা, জুলাই ২, ২০২২
কেএনএফ’র ভয়ে বড়থলীর রোয়াংছড়ি-রাজস্থলীতে ঠাঁই নিল ২৩ পরিবার

রাঙামাটি: রাঙামাটির বিলাইছড়ি উপজেলার সবচেয়ে দুর্গম বড়থলী ইউনিয়নের ২৩ পরিবার কুকী-চীন ন্যাশনাল ফ্রন্ট’র (কেএনএফ) ভয়ে বান্দরবানের রোয়াংছড়ি উপজেলা এবং রাঙামাটির রাজস্থলী উপজেলায় আশ্রয় নিয়েছে।

শুক্রবার (০১জুলাই) এমন তথ্য নিশ্চিত করেছেন বড়থলী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এবং ওই ইউনিয়নের সন্তু গ্রুপের নেতৃত্বাধীন পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতি’র (পিসিজেএসএস)  সভাপতি  আতোমং মারমা।

বড়থলী ইউনিয়নের বিলছড়ি পাড়ার বাসিন্দা ফুল মালা তঞ্চঙ্গ্যা বলেন, কয়েকদিন আগে কুকী-চীন ন্যাশনাল ফ্রন্ট’র স্বশস্ত্র সদস্যরা তাদের এলাকায় এসে বিভিন্ন সামগ্রী নিয়ে যায় এবং হুমকি দেয় দ্রুত ওই এলাকা ছেড়ে দিতে। যে কারণে তিনিসহ তার পরিবার এলাকা ছেড়ে প্রাণ বাঁচাতে রোয়াংছড়ি উপজেলায় আশ্রয় নিয়েছেন।

ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আতোমং মারমা বলেন- কুকী-চীন ন্যাশনাল ফ্রন্ট’র স্বশস্ত্র সদস্যরা ওই এলাকার স্থানীয়দের মেরে ফেলার হুমকি দিলে বৃহস্পতিবার (৩০জুন) রাতে  বড়থলী ইউনিয়নের ২৩ পরিবার প্রাণ বাঁচাতে বান্দরবানের রোয়াংছড়ি উপজেলা এবং রাঙামাটির রাজস্থলী উপজেলায় আশ্রয় নিয়েছে।

রোয়াংছড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল মান্নান বলেন, স্থানীয়দের কাছ থেকে শুনেছি রাঙামাটির বিলাইছড়ি উপজেলার বড়থলী ইউনিয়নের কয়েকটি পরিবার সন্ত্রাসীদের কাছ থেকে বাঁচতে রোয়াংছড়ি উপজেলায় আশ্রয় নিয়েছে। তবে এ ঘটনায় এখনো কোনো অভিযোগ আসেনি।

এ ব্যাপারে জানতে কুকী-চীন ন্যাশনাল ফ্রন্ট’র একাধিক সূত্রের মাধ্যমে যোগাযোগের চেষ্টা করেও সংশ্লিষ্ট কারও সঙ্গে কথা বলা সম্ভব হয়নি।

বাংলাদেশ সময়: ০১০২ ঘণ্টা, জুলাই ০২, ২০২২
এমএইচএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa