ঢাকা, মঙ্গলবার, ২০ আষাঢ় ১৪২৯, ০৫ জুলাই ২০২২, ০৫ জিলহজ ১৪৪৩

জাতীয়

প্রতিবন্ধী শিশু অপহরণ করে কসাই জাহাঙ্গীরের স্ত্রী আটক

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১৫৭ ঘণ্টা, মে ২৫, ২০২২
প্রতিবন্ধী শিশু অপহরণ করে কসাই জাহাঙ্গীরের স্ত্রী আটক

পিরোজপুর: পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় কিস্তির সাড়ে ১০ হাজার টাকা পরিশোধ না করায় তসিবুল শাওন (৯) নামে এক বাক-প্রতিবন্ধী শিশুকে অপহরণের ঘটনা ঘটেছে।

বুধবার (২৫মে) সকালে পৌর শহরের ৮ নম্বর ওয়ার্ড সবুজ নগরে এ ঘটনা ঘটে।

অপহরণের শিকার শিশুটির মা তাসলিমা বেগম জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯ নম্বরে কল করে বিষয়টি পুলিশকে জানান। পরে পুলিশ সদস্যরা শিশুটিকে উদ্ধার করেন। একই সঙ্গে অপহরণের দায়ে হনুফা বেগম নামে এক নারীকে আটক করা হয়। তার স্বামীর নাম কসাই জাহাঙ্গীর।

পুলিশ ও ভুক্তভোগীর পরিবারের লোকজনের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, সম্প্রতি প্রাইম বাংলাদেশ ফাউন্ডেশন নামে একটি স্থানীয় এনজিও থেকে লোন ছাড় করান হনুফা বেগম। এরপর পৌর শহরের সবুজ নগরের বাসিন্দা ও ডাক বিভাগের রানার সিরাজুল ইসলামকে লোনটি পাইয়ে দেন তিনি। সিরাজুল সম্পর্কে তার মামা শ্বশুর।

লোনের কিস্তি-বাবদ সিরাজুলের কাছে ১০ হাজার ৬০০ পাওনা ছিল হনুফার। দীর্ঘদিন ধরে মামা শ্বশুর কিস্তির টাকা পরিশোধ করতে না পারায় বুধবার (২৫মে) সকাল পৌনে ৯টার দিকে তার ছেলে শাওনকে রাস্তা থেকে তুলে নেন হনুফা।

এ সময় শাওনের চিৎকার শুনে জাহাঙ্গীরের ছোট বোন সুরাতন (৪৫) তার ভাবী তাসলিমাকে জানান। তিনি ঘটনাস্থলে এসে ছেলেকে উদ্ধারের চেষ্টা করে ব্যর্থ হন।

পরে ৯৯৯ নম্বরে কল করে এ বিষয়ে অভিযোগ করলে ঘটনাস্থলে আসে মঠবাড়িয়া থানা পুলিশ। সদস্যরা হনুফার বাড়ির একটি তালাবন্ধ ঘর থেকে শিশু শাওনকে উদ্ধার করেন।

হনুফা জানান, এনজিও থেকে নিজের নামে লোন নিয়ে মামা শ্বশুর সিরাজকে দিলেও তিনি কিস্তির টাকা পরিশোধ করছিলেন না। বিভিন্ন সময় টাকা চাইতে গেলে সিরাজ তাকে গালমন্দ করতেন। এজন্য পাওনা টাকা আদায়ে তার ছেলেকে আটকে রেখেছেন বলে জানান হনুফা।

এ বিষয়ে সিরাজুল ইসলাম বলেন, ভাগ্নে বউ হনুফা আমার কাছে কিস্তির ১০ হাজার ৬০০ টাকা পাবে। কিন্তু যোগাড় করতে না পারায় টাকা দিতে পারিনি। কিন্তু তিনি আমার ছেলেকে তুলে নিয়ে গেছেন।

মঠবাড়িয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নুরুল ইসলাম বাদল বলেন, পাওনা টাকা নিয়ে আত্মীয়-স্বজনদের মধ্যে এমন ঘটনা ঘটেছে। খবর পেয়েই প্রতিবন্ধী শিশুটিকে উদ্ধার করা হয়েছে এবং ওই নারীকে আটক করা হয়েছে। এ ব্যাপারে কোনো লিখিত অভিযোগ পাইনি। লিখিত পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বাংলাদেশ সময় ২২৫৮ ঘণ্টা, ২৫ মে, ২০২২
এমজে

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa