ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৩ আষাঢ় ১৪২৯, ০৭ জুলাই ২০২২, ০৭ জিলহজ ১৪৪৩

জাতীয়

ব্যাটারিচালিত যানবাহনের লাইসেন্স দাবিতে বিক্ষোভ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬৩২ ঘণ্টা, মে ১৬, ২০২২
ব্যাটারিচালিত যানবাহনের লাইসেন্স দাবিতে বিক্ষোভ

বরিশাল: ব্যাটারিচালিত যানবাহনের লাইসেন্স, নগরের গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টে পার্কিং স্ট্যান্ড নির্ধারণ, জলাবদ্ধতা নিরসনে খাল, ড্রেন ও ভাঙাচোরা রাস্তাঘাট সংস্কারের দাবিতে বরিশালে বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সোমবার (১৬ মে) বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল-বাসদ ও ব্যাটারিচালিত রিকশা-ভ্যান-ইজিবাইক চালক সংগ্রাম পরিষদের উদ্যোগে নগরের অশ্বিনী কুমার হলের সামনে সদর রোডে এ কর্মসূচির আয়োজন করা হয়।

সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন বাসদের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও কেন্দ্রীয় সংগ্রাম পরিষদের উপদেষ্টা ডা. মনীষা চক্রবর্তী।

বক্তব্য রাখেন সমাজতান্ত্রিক শ্রমিক ফ্রন্ট বরিশাল জেলা শাখার সহ-সভাপতি গোলাম রসুল, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মানিক হাওলাদার, বরিশাল রিকশা ভ্যান চালক শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি দুলাল মল্লিক, ব্যাটারিচালিত রিকশা-ভ্যান-ইজিবাইক চালক সংগ্রাম পরিষদ ২৫ নম্বর ওয়ার্ডের সভাপতি শাহিন শরিফ, ১৩ নম্বর ওয়ার্ডের সভাপতি শহিদুল ইসলাম, ১৫ নম্বর ওয়ার্ডের সাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম, ২২ নম্বর ওয়ার্ড শাখার সভাপতি মহসিন মীর, সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট বরিশাল মহানগর শাখার প্রচার ও প্রকাশনা বিষয়ক সম্পাদক বিজন শিকদার, ছাত্র ফ্রন্ট ব্রজমোহন কলেজ শাখার সহ-সভাপতি হাফিজুর রহমান রাকিব প্রমুখ।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, ব্যাটারিচালিত রিক্সা-ভ্যান-ইজিবাইক চালক সংগ্রাম পরিষদ ও বাসদের উদ্যোগে দীর্ঘ ১২ বছর ধরে ব্যাটারিচালিত যানবাহনের নীতিমালা ও লাইসেন্সের দাবিতে ধারাবাহিক আন্দোলন সংগ্রাম পরিচালিত হচ্ছে। সারাদেশে প্রায় ৫০ লাখ অটোরিকশা-ইজিবাইকের শ্রমিকদের জীবন-জীবিকা রক্ষায় এই আন্দোলন পরিচালিত হচ্ছে। এই আন্দোলনের ফসল হিসেবে ২০২১ সালে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে ‘থ্রি হুইলার ও সমজাতীয় মোটরযানের সুষ্ঠু ব্যবস্থাপনা ও নিয়ন্ত্রণ নীতিমালা-২০২১’ প্রকাশ করা হয়। নীতিমালার ৫.৩ ও ৬.১ ধারায় যথাক্রমে অটোরিকশা ও ইজিবাইকের লাইসেন্স বিষয়ে সুস্পষ্টভাবে লেখা আছে, বিআরটিএ অটোরিকশা ও ইজিবাইকের লাইসেন্স প্রদান করবে। যাত্রী ও পণ্য পরিবহন কমিটি এসব যানবাহনের সংখ্যা নির্ধারণ করবে। তাই সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের এই নীতিমালা অনুযায়ী বক্তারা বিআরটিএ-এর কাছে অবিলম্বে অটোরিকশা ও ইজিবাইকের লাইসেন্স দেওয়া দাবি জানান বক্তারা।

তারা আরও বলেন, রাজপথের আন্দোলনের পাশাপাশি আইনি পথেও লড়াই করে ২০২২ এর এপ্রিলে ইজিবাইকসহ ব্যাটারিচালিত যানবাহনের ওপর হাইকোর্টের নিষেধাজ্ঞা বাতিলের রায় এবং মহাসড়ক ছাড়া সর্বত্র ইজিবাইক চলাচলে সর্বোচ্চ আদালতের অনুমোদন আদায় করা হয়েছে। বর্তমানে এই রায়কে পুঁজি করে বরিশালে একটি প্রতারকচক্র শ্রমিকদের লাইসেন্স দেওয়ার কথা বলে বিভ্রান্ত করছে। বক্তারা শ্রমিকদের এই বিভ্রান্তির ফাঁদে পা দিয়ে প্রতারিত না হওয়ার আহ্বান জানান।

বক্তারা বরিশালের যানজট নিরসনে গুরুত্বপূর্ণ মোড়গুলিতে ব্যাটারিচালিত রিকশা ও ইজিবাইকের পার্কিং স্ট্যান্ড নির্ধারণ করার জন্য দাবি জানান। একই সাথে নগরের জলাবদ্ধতা নিরসনে ভাঙাচোরা রাস্তাঘাট ও খাল-ড্রেন সংস্কারের দাবি করেন।

সমাবেশ শেষে একটি মিছিল নগরীর গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে। মিছিল শেষে একটি প্রতিনিধি দল বিআরটিএ কর্তৃপক্ষ, জেলা প্রশাসক ও বরিশাল সিটি কর্পোরেশনের মেয়র বরাবর স্মারকলিপি পেশ করে।

অন্যদিকে নগরের প্রাণকেন্দ্র সদর রোড আটকে কর্মসূচি পালন করায় ভোগান্তিতে পড়েন নগরবাসী।

বাংলাদেশ সময়: ১৬৩১ ঘণ্টা, মে ১৬, ২০২২ 
এমএস/এমজেএফ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa