ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২৮ মে ২০২৪, ১৯ জিলকদ ১৪৪৫

জাতীয়

শীতলক্ষ্যা সেতু নির্মাণ, ২০ লাখ চাঁদা দাবিতে হুমকি

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২২২৪ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২৫, ২০২২
শীতলক্ষ্যা সেতু নির্মাণ, ২০ লাখ চাঁদা দাবিতে হুমকি

নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জের বন্দরে ২০ লাখ টাকা চাঁদার দাবিতে বাংলাদেশের তৃতীয় শীতলক্ষ্যা সেতুর আংশিক নির্মাণ কাজ বন্ধ করে দেওয়ার হুমকির ঘটনা ঘটেছে।

শুক্রবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে সিনোহাইড্রো কর্পোরেশন লিমিটেডে এর প্রজেক্ট ম্যানেজার চাইনিজ নাগরিক দুয়ন উই বাদী হয়ে বন্দর থানায় এ ঘটনায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, ঢাকা বনানী ব্লক-জ রোড নং-১৮ ও বাড়ী নং ৩০ এর অস্থায়ী বাসিন্দা বর্তমানে বাংলাদেশ তৃতীয় শীতলক্ষা সেতু নির্মাণ প্রকল্প সিনোহাইড্রো কর্পোরেশন লিমিটেড এর প্রজেক্ট ম্যানেজার চাইনিজ নাগরিক দুয়ন উই এর নির্মাণাধীন প্রকল্পের তৃতীয় শীতলক্ষ্যা সেতু নির্মাণ সংক্রান্ত আওতাভুক্ত একটি স্টীল ব্রীজ রয়েছে। সেতু নির্মাণের স্বার্থে উক্ত ব্রীজটি খুলে উক্ত জায়গাটি ফাঁকা করা অতীব জরুরী। উক্ত কাজের জন্য বাংলাদেশ সরকার সিনোহাইড্রো কর্পোরেশন লিমিটেডকে অনুমতি প্রদান করে।  

এর ধারাবাহিকতায় ব্রীজ খোলার কাজ শুরু করতে গেলে গত ২২ ফেব্রুয়ারী হতে বিভিন্ন সময়ে ফরাজিকান্দা এলাকার স্থানীয় চাঁদাবাজ মারুফ, একই এলাকার সেলিম, শ্যামল ওরফে রাব্বী ও সালামসহ অজ্ঞাত নামা ৩০/৩৫  জনের একটি সন্ত্রাসী ও চাঁদাবাজ গ্রুপ ট্রলার যোগে, প্রাইভেট গাড়ী যোগে এমনকি মটর সাইকেল যোগে কাজের স্থানে এসে সুইচ গিয়ার চাকু, ধারালো চাপাতি ও দেশীয় অস্ত্রসস্ত্র নিয়ে নির্মাণ শ্রমিকদের কাজে বাধা প্রদান করে আসছে। প্রজেক্ট ম্যানেজার চাইনিজ নাগরিক দুয়ন উই এর কারণ জানতে চাইলে ওই সময় স্থানীয় চাঁদাবাজরা জানায় এখানে কাজ করতে হলে ২০ লাখ টাকা দিতে হবে। টাকা না দিলে এখানে কোন কাজ করা যাবেনা । দাবিকৃত চাঁদা না দিয়ে কাজ করলে নির্মাণ শ্রমিকদের হত্যা করা হবে বলে হুমকি প্রদান করে।

বন্দর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দীপক চন্দ্র সাহা বলেন, অভিযোগ পেয়ে আমি সাথে সাথে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়েছি। অভিযুক্ত চাঁদাবাজদের গ্রেফতারের জন্য আমাদের অভিযান অব্যাহত রাখা হয়েছে।  

বাংলাদেশ সময়: ২২২৪ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২৫, ২০২২
এমআরপি/আরইউ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।