ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২৮ মে ২০২৪, ১৯ জিলকদ ১৪৪৫

জাতীয়

মোবাইল রেখে কাজ করতে বলায় কিশোরীর আত্মহত্যা!

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০০৯ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২৫, ২০২২
মোবাইল রেখে কাজ করতে বলায় কিশোরীর আত্মহত্যা! প্রতীকী ছবি

ঢাকা: রাজধানীর খিলগাঁও পশ্চিম নন্দীপাড়ার একটি বাসায় মীম আক্তার (১৬) নামে এক কিশোরীর অস্বাভাবিক মৃত্যু হয়েছে। মায়ের সঙ্গে অভিমান করে সে গলায় ফাঁস দিয়েছে বলে দাবি করেছে স্বজনরা।

শুক্রবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) বেলা পৌনে ৩টার দিকে এই ঘটনা ঘটে।

মুমূর্ষু অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক বিকেল ৫টায় তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

প্রতিবেশী অপূর্ব ইসলাম শামীম জানান, ২মাস আগে আল আমিন নামে এক অটোরিকশা চালকের সঙ্গে মীমের বিয়ে হয়। তবে এখনও স্বামীর বাসায় উঠিয়ে নেয়নি তাকে। পশ্চিম নন্দীপাড়ার টিনসেড বাড়িতে বাবা রিকশাচালক আবু সাইদ ও মায়ের সঙ্গে ভাড়া বাসায় থাকতো সে। তার মা অন্যের বাসায় কাজ করেন।

তিনি আরও জানান, দুপুরে সে মোবাইল নিয়ে বসে ছিল। এ সময় তার মা তাকে বকাঝকা করে বাসার ময়লা পরিষ্কার করতে বলেন। এরপর তিনি কাজে চলে যান।  কিছুক্ষণ পর বাসায় ফিরে দেখেন রুমের দরজা ভেতর থেকে বন্ধ। অনেক ডাকাডাকি করেও সাড়াশব্দ না পেয়ে দরজা ভাঙা হয়। পরে ভেতরে তাকে ঝুলন্ত অবস্থায় পাওয়া যায়।

ঢামেক হাসপাতাল পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ (ইন্সপেক্টর) মো. বাচ্চু মিয়া মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

বাংলাদেশ সময়: ২০০৯ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২৫, ২০২২
এজেডএস/জেডএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।