ঢাকা, রবিবার, ৩০ শ্রাবণ ১৪২৯, ১৪ আগস্ট ২০২২, ১৫ মহররম ১৪৪৪

জাতীয়

চেয়ারম্যান পদে মনোনয়ন সংগ্রহ শাল্লার ঝুমন দাসের

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০৫০ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৫, ২০২১
চেয়ারম্যান পদে মনোনয়ন সংগ্রহ শাল্লার ঝুমন দাসের ...

সুনামগঞ্জ: সুনামগঞ্জের শাল্লা উপজেলার হবিবপুর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন হেফাজতের নেতা মাওলানা মামুনুল হককে সমালোচনা করে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় জেলে যাওয়া সেই ঝুমন দাস।  

রোববার (৫ ডিসেম্বর) দুপুরে তিনি রিটার্নিং কর্মকর্তা আলমগীর কবীর খানের কাছ থেকে মনোনয়নপত্র কিনেছেন।

পঞ্চম দফায় ইউপি (ইউনিয়ন পরিষদ) নির্বাচনে শাল্লা উপজেলার ৪টি ইউনিয়নে আগামী বছরের ৫ জানুয়ারি ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।  

রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ তারিখ ৯ ডিসেম্বর। মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই ১২ ডিসেম্বর, আপিল ১৩-১৫ ডিসেম্বর, আপিল নিষ্পত্তি ১৮ ডিসেম্বর, প্রার্থীতা প্রত্যাহার ১৯ ডিসেম্বর ও প্রতীক বরাদ্দ ২০ ডিসেম্বর।

শাল্লার হবিবপুর ইউনিয়নে মোট ভোটার ২১ হাজার ৯১২ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১১ হাজার ২৩ জন ও নারী ভোটার ১০ হাজার ৮৮৯ জন।  

এ ব্যাপারে ঝুমন দাস বলেন, ১০ বছর আগে থেকেই আমি নির্বাচন করার প্রস্তুতি নিচ্ছিলাম। জাতির পিতা রাজনীতি করে মানুষের দ্বারে দ্বারে গিয়েছিলেন। সেখান থেকেই অনুপ্রেরণা নিয়ে মানুষের জন্য কাজ করছি আমি।  

ঝুমন দাস আরও বলেন, গতবার স্থানীয় ইউপি নির্বাচনে একজন প্রার্থীর হয়ে মাঠে কাজ করেছি। তখন সাধারণ মানুষকে অনেক প্রতিশ্রুতি দিয়েছি- এই প্রার্থীকে নির্বাচিত করলে যেকোনো সমস্যার সমাধান করে দেওয়া হবে। নির্বাচনের পাঁচ বছরে মানুষকে যে কথা দিয়েছিলাম তা করতে পারিনি। কারণ আমি চেয়ারম্যান ছিলাম না। তাই আমার দেওয়া প্রতিশ্রুতির অসমাপ্ত কাজগুলো এবার নিজে চেয়ারম্যান হয়ে পূরণ করতে চাই।

তিনি বলেন, আজকে (রোববার) উপজেলায় এসে চালান ফরম কিনে ৫ হাজার পাঁচশ টাকা সোনালী ব্যাংকে জমা দিয়েছি। এরপর সমবায় অফিস থেকে আমার প্রার্থীতার জন্য নমিনেশন ফরম কিনে এনেছি। এর আগে ইউনিয়ন পরিষদে বাড়িসহ সব কর পরিশোধ করেছি। মনোনয়ন ফরম পূরণ করে নিদিষ্ট সময়ের মধ্যেই জমা দেব।

লোকমুখে শুনেছি আমার মনোনয়ন বাতিল করবার জন্য একটি মহল কাজ করে যাচ্ছে। আমাকে বাধা দেওয়ার কোনো কারণ দেখছি না। নিরাপত্তাজনিত কারণে নমিনেশন বাতিল হওয়ার কোনো কারণ হতে পারে না। কারণ নির্বাচন করার অধিকার আমার নাগরিক অধিকার।

শাল্লা উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. রেজাউল করিম জানান, নির্বাচনে সব প্রার্থী আমাদের কাছে সমান। যারা নমিনেশন ফরম সংগ্রহ করেছেন বিধি অনুযায়ী তাদের আগামী ৯ ডিসেম্বরের ভেতর জমা দিতে হবে।

বাংলাদেশ সময়: ২০৪৮ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ০৫, ২০২১
আরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa