ঢাকা, শুক্রবার, ১৪ মাঘ ১৪২৮, ২৮ জানুয়ারি ২০২২, ২৪ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

জাতীয়

ভাঙা হচ্ছে আব্বাসের অবৈধ মার্কেট 

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫২৫ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৪, ২০২১
ভাঙা হচ্ছে আব্বাসের অবৈধ মার্কেট 

রাজশাহী: রাজশাহীর পবা উপজেলার কাটাখালী পৌরসভায় সরকারি খালের ওপর গড়ে তোলা অবৈধ মার্কেটটি ভেঙে দেওয়া হচ্ছে। খাল দখল করে বিতর্কিত মেয়র আব্বাস আলীর ওই মার্কেটের দুইটি ভবন নির্মাণাধীন ছিল।

 
শনিবার (০৪ ডিসেম্বর) সকালে মার্কেটের নির্মাণাধীন ভবন বুলডোজার মেশিন দিয়ে ভাঙার কাজ শুরু করেছে স্থানীয় প্রশাসন।  

ভবন দু’টি ভাঙায় নেতৃত্ব দেন- রাজশাহীর পবা উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও  ভ্রাম্যমাণ আদালতের ম্যাজিস্ট্রেট শেখ এহসান উদ্দীন। ভবন ভাঙার সময় তিনি গণমাধ্যমকে বলেন, স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় থেকে নির্মাণাধীন এই অবৈধ মার্কেট উচ্ছেদের জন্য চিঠি পাওয়ার পর পৌর মেয়রকে সময় দিয়েছিলেন। এজন্য মেয়রকে সেপ্টেম্বরে উচ্ছেদের নোটিশও দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু তিনি কোনো সাড়া দেননি। ফলে সময় পার হওয়ার পর আইন অনুযায়ী তা ভেঙে ফেলা হচ্ছে।

তিনি আরও জানান- পবা উপজেলার কাটাখালী বাজার সংলগ্ন ১৯১নং সমসাদীপুর মৌজার ৮২৩ ও ৯৬০ নং আরএস দাগের নালা শ্রেণির ১.৪২ ও ০.৯ একর জমি ১নং খাস খতিয়ানভুক্ত। নালিশী খাল হতে ইতিপূর্বে অবৈধ দখলদার উচ্ছেদ করে বিএমডিএ পবা জোন কর্তৃক আর.সি.সি ড্রেন নির্মাণ করা হয়েছে। ড্রেনের ওপর  নির্মাণাধীন ভবনটি উচ্ছেদের জন্য সেপ্টেম্বর মাসে নোটিশ দেওয়া হয়। নোটিশের পরও নির্মাণাধীন ভবন সরিয়ে না নেওয়ায় আজ সরকারি জায়গা দখল মুক্ত করা হচ্ছে।

এদিকে, স্থানীয়রা জানান দ্বিতীয়বার আওয়ামী লীগের মনোনয়ন নিয়ে কাটাখালী পৌরসভার মেয়র নির্বাচিত হওয়ার পরই আব্বাস আলী খাল দখল করে তার ওপর দুইতলা মার্কেটের নির্মাণ কাজ শুরু করেন। ক্ষমতার অবৈধ প্রভাব দেখিয়ে তিনি কাজটি শুরু করেন। এই নিয়ে জেলা প্রশাসনও তাকে নোটিশ করেছিল।  

রাজশাহীর কাটাখালী পৌর মেয়র আব্বাস আলী বর্তমানে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে গ্রেফতারের পর রাজশাহী কেন্দ্রীয় কারাগারে বন্দি রয়েছেন। তার বিরুদ্ধে গত ২ ডিসেম্বর ১০ দিনের রিমান্ডের আবেদন জানিয়েছে- বোয়ালিয়া থানা পুলিশ।

এর আগে রাজশাহীর প্রবেশমুখে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ম্যুরাল স্থাপন নিয়ে বিতির্কিত বক্তব্যের অডিও ফাঁস হয়। এরপর তার বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা দায়ের করেন রাজশাহী সিটি করপোরেশনের ১৩ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও মহানগর সেচ্ছ্বাসেবক লীগের সভাপতি আবদুল মোমিন।

আব্বাস আলী কাটাখালী পৌর আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক ও জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য ছিলেন। তাকে পৌর আওয়ামী লীগ থেকে অব্যাহতি দেওয়ার জন্য আবেদন জানানো হয়েছে। এছাড়া জেলার সদস্য পদ থেকেও তাকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কারের জন্য এরই মধ্যে কেন্দ্রে সুপারিশ পাঠিয়েছে রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগ।  


বাংলাদেশ সময়: ১৫২৪ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ০৪, ২০২১ 
এসএস/এসআইএস
 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa