ঢাকা, শুক্রবার, ১৪ মাঘ ১৪২৮, ২৮ জানুয়ারি ২০২২, ২৪ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

জাতীয়

বরগুনা হানাদার মুক্ত হয় ৩ ডিসেম্বর

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১১৪৮ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৩, ২০২১
বরগুনা হানাদার মুক্ত হয় ৩ ডিসেম্বর

বরগুনা: ৩ ডিসেম্বর। ১৯৭১ সালের এই দিনে হানাদার মুক্ত হয় বরগুনা জেলা।

মুক্তিযোদ্ধাদের প্রবল আক্রমণে পালিয়ে যেতে বাধ্য হয়েছিল হানাদার বাহিনী। সে সময় স্বাধীন জেলার দায়িত্ব হস্তান্তর করা হয় তৎকালীন জেলা প্রশাসকের কাছে।

সেই গৌরবময় দিনটির স্মরণে প্রতি বছর ৩ ডিসেম্বর বরগুনা মুক্ত দিবস পালন করেন বীর মুক্তিযোদ্ধারা।

বীর মুক্তিযোদ্ধারা যখন দেশের বিভিন্ন জেলা একে একে মুক্ত করতে  শুরু করেন, তখন বরগুনার বীর মুক্তিযোদ্ধাদের ওপর বামনার বুকাবুনিয়া সাব সেন্টার থেকে নির্দেশ আসে বরগুনা জেলাকে হানাদার মুক্ত করার।
হেডকোয়ার্টারের নির্দেশ অনুযায়ী ২ ডিসেম্বর বরগুনা মুক্ত করার লক্ষ্যে আবদুস সত্তারের নেতৃত্বে ২২ জন মুক্তিযোদ্ধা ৬টি ভাগে বিভক্ত হয়ে শহরের বিভিন্ন স্থানে অবস্থান নেন।
ফজরের আজানকে সংকেত হিসেবে ব্যবহার করেন বীর মুক্তিযোদ্ধারা। একই সঙ্গে চতুর্দিকে গুলির শব্দে আতঙ্কিত হয়ে পরে পাকিস্তানী বাহিনী। সম্মুখ যুদ্ধে না গিয়ে বরগুনা থেকে পালিয়ে যান তারা।  
মুক্তিযোদ্ধারা স্বাধীনতার লাল সবুজের পতাকা ওড়ায় এই জেলার বুকে। সেই থেকেই ৩ ডিসেম্বরকে বরগুনা মুক্ত দিবস হিসেবে পালন করে আসছেন বরগুনার বীর মুক্তিযোদ্ধারা।

বাংলাদেশ সময়: ১১৪৭ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ০৩, ২০২১
এসআই 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa