ঢাকা, শুক্রবার, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০৩ ডিসেম্বর ২০২১, ২৭ রবিউস সানি ১৪৪৩

জাতীয়

মহেশখালীতে বীর মুক্তিযোদ্ধাকে কোপালেন পৌর মেয়র

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭২৬ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৫, ২০২১
মহেশখালীতে বীর মুক্তিযোদ্ধাকে কোপালেন পৌর মেয়র রক্তাক্ত বীর মুক্তিযোদ্ধা আমজাদ হোসেন

কক্সবাজার: কক্সবাজারের মহেশখালীতে বীর মুক্তিযোদ্ধা আমজাদ হোসেনকে (৬৫) কুপিয়ে রক্তাক্ত করেছেন পৌর মেয়র। জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে মহেশখালী পৌরসভার মেয়র মকছুদ মিয়া এ ঘটনা ঘটিয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

মুমূর্ষু অবস্থায় তাকে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।  

বুধবার (২৪ নভেম্বর) রাত সাড়ে ৮টার দিকে গোরকঘাটা হিন্দুপাড়া রাস্তার মোড়ে এ ঘটনা ঘটে।

আমজাদ হোসেন (৬৫) উপজেলার গোরকঘাটা বাজার এলাকার বাসিন্দা।  

বীর মুক্তিযোদ্ধা আমজাদ হোসেন জানান, বাজার থেকে বাড়ি ফেরার পথে হিন্দুপাড়া রাস্তার মোড়ে পৌর মেয়র মকছুদ লোকজন নিয়ে তার রিকশার গতিরোধ করেন। পরে তাকে কুপিয়ে ও মারধর করে রাস্তায় ফেলে যান।  

তিনি বলেন, জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে পৌর মেয়র মকছুদ মিয়া দলবল নিয়ে হত্যার উদ্দেশে এ হামলা করেছেন।  

সম্প্রতি আমজাদ হোসেনের কুতুবজুমস্থ চিংড়ি ঘেরে ডাকাতির ঘটনা ঘটে। এতে তিনি মহেশখালী পৌরসভার মেয়র মকছুদ মিয়াসহ ৩০ জনের নামে ডাকাতি মামলা দায়ের করেন। মামলার পর থেকে উভয়পক্ষে বিরোধ আরও বাড়ে।  

মেয়র মকছুদ মিয়া ও তার লোকজনের হুমকির মুখে ছিলেন আমজাদ হোসেন। আমজাদকে নিয়মিত প্রাণনাশের হুমকি দেওয়া হয়। সেইসঙ্গে মেয়র মকছুদ তাকে দ্বীপ ছাড়াও করেছেন। এসব অভিযোগ তুলে কক্সবাজার প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করেন বীর মুক্তিযোদ্ধা আমজাদ হোসেন।  

মহেশখালী পৌরসভার মেয়র মকছুদ মিয়া মোবাইল ফোনে হামলার অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, ঘটনা সম্পর্কে আমি কিছুই জানিনা। উনি যে অভিযোগ করছেন তা বানোয়াট। আর যে জমি নিয়ে বিরোধ চলছে এগুলো আমার বাপ-দাদার সম্পত্তি। উনি কোন সময় কি অভিযোগ করেন, তার কোনো ঠিক নেই।  

এছাড়াও তিনি এলাকায় এসে ঘটনার যাচাই-বাছাই করার অনুরোধ করেন।

মহেশখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আবদুল হাই বলেন, ঘটনার বিষয়ে শুনেছি। এখনো অভিযোগ হাতে পাইনি। অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বাংলাদেশ সময়: ১৭২০ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৫, ২০২১
এসবি/এমআরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa