ঢাকা, রবিবার, ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৮ নভেম্বর ২০২১, ২২ রবিউস সানি ১৪৪৩

জাতীয়

পন্টুনে ধাক্কা, কাত হয়ে ডুবলো আমানত শাহ 

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০১৪০ ঘণ্টা, অক্টোবর ২৮, ২০২১
পন্টুনে ধাক্কা, কাত হয়ে ডুবলো আমানত শাহ  উদ্ধারকারী জাহাজ হামজা

মানিকগঞ্জ: পাটুরিয়া ঘাটে পন্টুনের সঙ্গে ধাক্কা লেগেই কাত হয়ে ডুবে যায় ফেরি আমানত শাহ। এমনটাই জানিয়েছেন ওই ফেরির একাধিক যাত্রী।

তারা বলেন, সকাল ৯টার দিকে দৌলতদিয়া ফেরি ঘাট থেকে আমানত শাহ নামের রো রো ফেরিটি পাটুরিয়া ঘাটের উদ্দেশ্যে রওনা হয়। পথিমথ্যে মাঝ পদ্মা নদীতে ফেরিতে পানি ওঠা শুরু করে। তখন তড়িঘড়ি করে পাটুরিয়া ঘাটে  নোঙর করতে ফেরি দ্রুত চালাতে থাকেন এর মাষ্টার। কিন্তু পন্টুনে নোঙ্গর করা সময় সজোরে ধাক্কায় ফেরির ওই সময়ই ফেরি কাত হয়ে এক অংশ ডুবে যায়।

এদিকে ফেরি ডুবে যাওয়ার খবর ছড়িয়ে পড়লে স্থানীয় প্রশাসন ও ফায়ার সার্ভিস এবং বিআইডব্লিউটিসির একাধিক ডুবরি দল উদ্ধার কাজে অংশ নেন। সকাল থেকে রাত সাড়ে ৮টা পর্যন্ত মাত্র ৪টি পণ্য বোঝাই ট্রাক উদ্ধার করতে সক্ষম হয়েছে বিআইডব্লিউটিএ'র উদ্ধারকারী জাহাজ হামজা। তবে ফেরি উদ্ধার করতে নারায়ণগঞ্জ থেকে আরও একটি উদ্ধারকারী জাহাজ ‌'প্রত্যয়' রওনা হয়েছে।

সরেজমিনে দেখা যায়, সকালের দিকে আমানত শাহ নামের রো রো ফেরি ডুবে যাওয়ার পরপরই উদ্ধার কাজে অংশ নেয় বিআইডব্লিউটিএ'র উদ্ধারকারী জাহাজ হামজা। তবে এ পর্যন্ত কোনো হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি। যদিও স্থানীয় প্রশাসন সব ধরনের প্রস্তুতি নিয়ে রেখেছে। ফেরি ডুবে যাওয়ার সংবাদ বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশেরর পর সাবেক নৌ মন্ত্রী শাহজাহান খান পাটুরিয়া ঘাট পরিদর্শন করেন এবং তদন্ত পূর্বক দোষীদের শাস্তির ব্যবস্থা করার জন্য নৌ মন্ত্রনালয়কে বলেন।

ডুবে যাওয়া ফেরি আমানত শাহ'র যাত্রী ওমর আলী বলেন, যখন দৌলতদিয়া ঘাট থেকে রওনা হই তখনই ফেরি এক দিকে কাত ছিল। ওই অবস্থায়ই ফেরিটি পাটুরিয়া ঘাটের উদ্দেশে রওনা হয়। মাঝ পদ্মায় এলে ফেরিতে পানি ওঠতে থাকে। এ সময় মাষ্টার দ্রুত গতিতে চালিয়ে ফেরিটি তীরে ভিড়াতে সক্ষম হলে মাত্র দুই-তিনটি ট্রাক নামতে পারে, আর কোন যানবাহন নামতে পারেনি। দুই থেকে পাঁচ মিনিটের মধ্যে ডান কাত হয়ে ডুবে যায় ফেরি। আমরা কোনমতে লাফিয়ে নেমে সাতার কেটে তীরে উঠেছি।  

একই ফেরির বেঁচে যাওয়া ইয়াকুব আলী  বলেন, পাটুরিয়া ঘাটে ফেরি নোঙ্গর করার সঙ্গে সঙ্গে ট্রাকগুলো নামার প্রস্তুতি নিচ্ছিল, কিন্তু মাত্র দুটি ট্রাক নামতে পেরেছে। পাঁচ মিনিটের মধ্যে ফেরি কাত হয়ে গেলে একটির উপর আরেকটি ট্রাক পড়ে, তখন আমি নদীতে ঝাঁপ দিয়ে সাতার কেটে তীরে উঠি।

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ পরিবহন কর্পোরেশন (বিআইডব্লিউটিসি) আরিচা সেক্টরের ডিজিএম জিল্লুর রহমান বলেন, ওপার থেকে ফেরিটি ১৭টি ট্রাক নিয়ে রওনা হয়। এপারে আসার পরপরই ফেরিতে পানি ওঠে। এ কারণে ফেরিটি এক দিক কাত হয়ে গেলে ডুবে যায় যানবাহনগুলো।
 
আর সংস্থাটির (বিআইডব্লিউটিসি) চেয়ারম্যান তাইজুল ইসলাম বলেন, আমরা খুব দ্রুত দুর্ঘটনায় কবলিত ফেরি এবং ট্রাকগুলোকে উদ্ধারের জন্য বিআইডব্লিউটিএ'র উদ্ধারকারী জাহাজ হামজাকে নিয়ে এসেছি।  

দুর্ঘটনার পর সাবেক নৌ পরিবহন মন্ত্রী শাহজাহান খান ঘটনাস্থলে পৌঁছে বলেন, আমাদের কাছে খবর আছে ১৭টি পণ্য বোঝাই ট্রাক নিয়ে কাত হয়ে ডুবে গেছে ফেরি আমানত শাহ। কারো মৃত্যুর সংবাদ এখনও পাইনি। তবে বিষয়টি খুবই দুঃখজনক, এই প্রথম এ ধরনের একটি  ঘটনা ঘটলো। আশাকরি তদন্তে কীভাবে এ দুর্ঘটনা ঘটেছে এবং কে দায়ি তা জানা যাবে। কেউ অপরাধী প্রমাণ হলে তার বিরুদ্ধে নৌপরিবহন মন্ত্রণালয় প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবে।  

বাংলাদেশ সময়: ০১৪০ ঘণ্টা, অক্টোবর ২৮, ২০২১
এমএমজেড

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa