ঢাকা, সোমবার, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০৬ ডিসেম্বর ২০২১, ০১ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৩

জাতীয়

বাজারে কমেছে ইলিশের আমদানি

মুশফিক সৌরভ, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫৫২ ঘণ্টা, অক্টোবর ২৭, ২০২১
বাজারে কমেছে ইলিশের আমদানি

বরিশাল: নিষেধাজ্ঞা শেষে স্বাভাবিক নিয়মে ইলিশ আহরণ করছেন জেলেরা। তাই দক্ষিনাঞ্চলের মোকামগুলোতে ইলিশ আসতে শুরু করেছে।

তবে গতকাল মঙ্গলবার (২৬ অক্টোবর) থেকে বুধবার (২৭ অক্টোবর) মোকামগুলোতে কমেছে ইলিশের আমদানি।

বুধবার সকালে বরিশাল নগরের পোর্টরোডস্থ মৎস্য অবতরণ কেন্দ্রের মৎস্য ব্যবসায়ীরা এমনটাই দাবি করেছেন।

তারা জানান, বর্তমান সময়ে স্থানীয় নদ-নদীর ইলিশ আসছে আড়তগুলোতে,আর আজ ইলিশের আমদানি কম থাকায় বেড়েছে মূল্য। তবে সাগরের ইলিশের কাঙ্ক্ষিত আমদানি ঘটলে কমে যাবে বাজার দর।

এদিকে জেলেরা বলছেন, নিষেধাজ্ঞা উঠে যাওয়ার পর প্রথম রাতে যেভাবে ইলিশ মাছ পাওয়া গেছে, সেভাবে গত দিন ও রাত মিলয়ে নদীতে মাছ পাওয়া যায়নি।
আর শেষরাতে হঠাৎ বৃষ্টি ও বৈরি আবহাওয়ার কারণে মাছ শিকারেও বিঘ্নতা ঘটে, তাই মাছের আমদানি আজ কিছুটা কম হয়েছে বলে জানিয়েছেন মেহেন্দিগঞ্জের বাসিন্দা ও জেলে ইমরান।

কিন্তু পোর্টরোডের শ্রমিকরা বলছেন, তাজা ইলিশে সাদা ও সোনালী রংয়ের মিশ্রণ থাকলেও গতকালকের বেশি মাছই ছিল লাল-সাদা রংয়ের মিশ্রণের। আর ইলিশ মাছ পুরাতন হলেই এতে লালচে ভাব আসে। শ্রমিকদের হিসেব অনুযায়ী, গতকাল বাজারে যে মাছ এসেছে তার মধ্যে পুরতন ইলিশ ছিল। অর্থাৎ নিষেধাজ্ঞার সময়কালে শিকার করা ইলিশও ছিল। ফলে বাজারে প্রচুর ইলিশ মাছ দেখা গেছে গতকাল। কিন্তু আজ স্বাভাবিক দিনের ইলিশ আসায় এর পরিমাণ অনেকটাই কমে গেছে। গতকাল পোর্টরোডের গোটা মোকামে ২ হাজার মনের বেশি ইলিশ হলেও আজ  হাজারের ঘর পার হবে না বলছেন ব্যবসায়ীরাও।

এ বিষয়ে বরিশাল জেলা মৎস্য অফিসের মৎস্য কর্মকর্তা (ইলিশ) বিমল চন্দ্র দাস বলছেন, বর্তমান সময়টাতে ইলিশ মাছ ডিম ছেড়ে আবার সাগরে চলে যাবে, আবার কিছু মাছ যারা এখনও ডিম ছাড়েনি তারা নদীতে রয়েছে।

এদিকে নিষেধাজ্ঞার সময়কাল শেষ হওয়ার পর একত্রে হাজার হাজার জেলে নদীতে নেমেছে। যে যেখানে পেরেছেন জাল ফেলেছেন। তাই প্রথমদিনেই যে মাছ নদীতে ছিলো তার বৃহৎ অংশ শিকার করা হয়ে গেছে। সামনের জো পর্যন্ত, এখন কয়েকদিন ইলিশ কম আহরণ হবে বলে জানান তিনি।

যদিও আজকের বৃষ্টিমুখর আবহাওয়ার কারণে নদীতে বেশ ইলিশ ধরা পরবে বলে জানিয়ে মৎস্য কর্মকর্তা (ইলিশ) বিমল চন্দ্র দাস বলেন, আশাকরছি আগামীকাল বাজারে আজকের থেকে বেশি ইলিশের দেখা মিলবে।

উল্লেখ্য, বাজারে ইলিশের পরিমাণ কম থাকলেও সকাল থেকে ক্রেতাদের ছিল উপচে পড়া ভিড়। তবে খুচরো বিক্রেতারা জানিয়েছেন, দাম বেশি হওয়ায় বেচা-বিক্রিতে সময় লাগছে তাদের।

বাংলাদেশ সময়: ১৫৫২ ঘণ্টা, অক্টোবর ২৭, ২০২১
এমএস/এনএইচআর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa