ঢাকা, সোমবার, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০৬ ডিসেম্বর ২০২১, ০১ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৩

জাতীয়

শিগগিরই জানানো হবে চক্রান্তকারীদের নাম

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৩১২ ঘণ্টা, অক্টোবর ২৬, ২০২১
শিগগিরই জানানো হবে চক্রান্তকারীদের নাম

ঢাকা: দেশে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্টের চক্রান্তকারী ও ইন্ধনদাতাদের নাম জানিয়েছেন গ্রেফতারকৃতরা। শিগগিরই চক্রান্তকারী ও ইন্ধনদাতাদের নাম প্রকাশ করা হবে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।

 

মঙ্গলবার (২৬ অক্টোবর) দুপুরে সচিবালয়ে গণমাধ্যম কেন্দ্রে বাংলাদেশ সেক্রেটারিয়েট রিপোর্টার্স ফোরাম (বিএসআরএফ) আয়োজিত সংলাপে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা জানান।  

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, রংপুর ও নোয়াখালীর ঘটনায় ইন্ধনদাতাদের নাম বলেছে গ্রেফতারকৃতরা। ১৬৪ ধারায় দেওয়া জবানবন্দিতে তারা এসব নাম জানিয়েছেন। তবে আমরা শতভাগ নিশ্চিত হয়ে আপনাদের সামনে নাম প্রকাশ করবো। সেখানে বিএনপি-জামায়াত আছে কিনা সেটা এখই বলতে চাচ্ছি না। আমরা নিশ্চিত হয়েই আপনাদের জানাতে চাই।  

তিনি বলেন, এ সহিংসতা সুপরিকল্পিতভাবে দেশকে অস্থিতিশীল করতেই সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট করেছে একটি মহল। ঘটনায় গ্রেফতারকৃতদের ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি নেওয়া হয়েছে। অনেকের নাম জানা গেছে। খুব শিগগিরই কারা এসব ঘটিয়েছে তা উদঘাটন করা সম্ভব হবে।  

রংপুর ও কুমিল্লার ঘটনায় আটকদের বেশিরভাগই বিএনপি ও জামায়াতের সঙ্গে জড়িত এ বিষয়ে আপনার মন্তব্য কী জানতে চাইলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, দেখুন আমি এখনও খোলাসা করে বলেনি বিএনপি না জামায়াত। আমি বলেছি আমরা নাম পাচ্ছি। আমরা আরও নিশ্চিত হয়ে বলতে চাই। এমন কিছু বলতে চাই না যা সঠিক নয়। একদম সঠিক হয়ে আমরা জানাবো। তবে আপনি যেটা অনুমান করছেন আমরা কিন্তু অফিসিয়ালি বলছি না। আমরা আরও নিশ্চিত হয়ে বলবো। আপনি যেগুলো শুনেছেন আমরাও সে রকম শুনেছি। নিশ্চিত হয়েই জানাতে চাই।

সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্টের ঘটনায় স্থানীয় পর্যায়ের আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদেরও নাম আসছে এ বিষয়টি আপনি কীভাবে দেখছেন এমন প্রশ্নেন জবাবে তিনি বলেন, আমরা কোনো অপরাধীকে ছাড় দেই না। সে জনপ্রতিনিধি হোক বা অনেক গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি হোক আমরা কাউকে ছাড় দেই না। আমরা যেখানেই এ রকম কারো সম্পৃক্ততা পেয়েছি তাকে আইনের আওতায় আনা হয়েছে। এখানে যাদের নাম এসেছে তারা যদি জড়িত থাকে তাহলে ছাড় পাবে এমন কোনো কথা এখানে আসাই উচিত না। যারা এ অপকর্ম করবে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা আমরা অবশ্যই নেব।  

গোয়েন্দা সংস্থার ভূমিকাটা কীভাবে দেখছেন এমন প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, গোয়েন্দা সংস্থার ব্যর্থতা বা সফলতার প্রশ্ন আসে না। প্রশ্ন আসে যারা এ ষড়যন্ত্র করেছেন, এ ধরনের অস্থিতিশীল পরিস্থিতি তৈরি করার জন্য পরিকল্পনা করেছিল এ বিষয়গুলো আমাদের সামনে চলে আসছে। হাজার বছর ধরে আমরা ধারাবাহিকভাবে একসঙ্গে চলে আসছি সেটা বিনষ্ট করার জন্যই এ প্রক্রিয়াটা আমি তো শুরুতেই বলেছি। আমাদের পুলিশ-গোয়েন্দা সংস্থা যথাযথভাবে কাজ করেছে বলেই তাৎক্ষণিকভাবে আমরা অনেক কিছু করতে সক্ষম হয়েছি। তারা কাজ করছে বলেই এর পেছনে কারা আছে তা উদঘাটন করতে পারছি।

সরকারের অন্যান্য মন্ত্রীরা বলছেন এ ঘটনার পেছনে বিএনপি-জামায়াত জড়িত স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে এ বিষয়টি স্পষ্ট হওয়া দরকার এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, যারা বলেছেন তাদের কাছে হয়তো তথ্য আছে। তার ভিত্তিতেই ওনারা বলেছেন। আমিতো বলেছি আমরা বলবো। যে নামগুলো এসেছে আমরা এ রকমই শুনছি। আমরা শতভাগ নিশ্চিত হয়েছে জানাবো।  

বাংলাদেশ সেক্রেটারিয়েট রিপোর্টার্স ফোরামের সভাপতি তপন বিশ্বাসের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন সাধারণ সম্পাদক মাসউদুল হক।

এ সময় সংগঠনের যুগ্ম সম্পাদক মেহদী আজাদ মাসুম, সাংগঠনিক সম্পাদক আকতার হোসেন, অর্থ সম্পাদক মো. শফিইল্লাহ সুমন, প্রশিক্ষণ ও গবেষণা সম্পাদক তাওহীদুল ইসলাম, কার্যনির্বাহী সদস্য ইসমাইল হোসাইন রাসেল, শাহজাহান মোল্লা, হাসিফ মাহমুদ শাহ, শাহাদাত হোসেন রাকিব উপস্থিত ছিলেন।  

বাংলাদেশ সময়: ১৩০৯ ঘণ্টা, অক্টোবর ২৬, ২০২১, আপডেট: ১৪২২ ঘণ্টা
জিসিজি/আরবি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa